সাধারণের কাছে প্রযুক্তি দুর্বোধ্য হলেও মজার

‘পল্লব মোহাইমেন প্রণীত সচিত্র ডিজিটাল ব্যঙ্গ অভিধান’ নামে রম্য বই লিখেছেন প্রথম আলোর উপ-ফিচার সম্পাদক পল্লব মোহাইমেন। টেকশহরডটকমের সঙ্গে আলাপচারিতায় তিনি জানিয়েছেন বইটির বিভিন্ন দিক নিয়ে। বিস্তারিত জানাচ্ছেন তুহিন মাহমুদ

টেক শহর : এটিই কি আপনার প্রথম বই? আগামীতে এ ধরণের বই আসবে কিনা?

পল্লব মোহাইমেন : আসলে অনেকদিন ধরেই লেখালেখির সাথে আছি। কিন্তু বই প্রকাশের প্রতি আগ্রহ কখনোই ছিলো না। কারণ বই লেখার যোগ্যতা আমার আছে কিনা সেটি নিয়ে সন্দেহ ছিল ও আছে। তবে ফেইসবুকে ও প্রথম আলো’র রম্য ম্যাগাজিন ‘রস আলো’তে এই ধরণের লেখা প্রকাশ করার পর ব্যাপক সাড়া পাই। সেখান থেকেই বইটি প্রকাশের পরিকল্পনা মাথায় আসে। এটি আমার প্রথম বই। আগামীতে অন্য কোনো বই লিখবো কিনা সেটি বলতে পারছি না। দেখা যাক।

Pallab Mohaimen-TechShohor

টেক শহর : বইটির সম্পর্কে একটু বলুন।

পল্লব মোহাইমেন : এ বইতে আমি চেষ্টা করেছি ডিজিটাল শব্দগুলোর প্রযুক্তিগত বৈশিষ্ট্য ধারণ করে সমসাময়িক বা আমাদের বিষয়ের সঙ্গে মিলিয়ে রম্য-ব্যঙ্গ অর্থ ও ব্যাখ্যা দেওয়ার। এখানে ডিজিটাল রম্য, রঙ্গ যেমন আছে তেমনি খোঁচা দেওয়াও হয়েছে। একে এক ধরনের ‘লোকালাইজেশন’ বলা যেতে পারে। প্রযুক্তির কথাবার্তা সাধারণ মানুষের কাছে দুর্বোধ্য। কিন্তু ডিজিটাল যুগে প্রতিদিনই মানুষ থাকছে প্রযুক্তির সঙ্গে। তাই মানুষের কাছে আসলে প্রযুক্তি কিন্তু মজার এক বিষয়ই বটে। সচিত্র ডিজিটাল ব্যঙ্গ অভিধান সে ধরণের একটি প্রয়াসমাত্র।

টেক শহর : বইয়ে কি ধরণের বিষয় ঠাই পেয়েছে?

পল্লব মোহাইমেন : এফএম মানে ফিরিঙ্গি মডিউল; মাউস মানে কিলিকবাজ ইঁদুর, আইপি মানে ইনডিসেন্ট প্রপোজাল, পিএসপি হয়ে গেল পাটিসাপ্টা পিঠা। প্রযুক্তির শব্দগুলো নিয়ে এমন রসিকতা তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে। এখানে প্রযুক্তির মূল রস যেমন রয়েছে, তেমনি চারপাশের রঙ্গ-ব্যঙ্গও রয়েছে। অর্থ-ব্যাখ্যায় ১৮২টি ডিজিটাল শব্দকে যুগোপযোগী করে তোলা হয়েছে সব ধরণের পাঠকের কাছে। বইটিকে অভিধান বলা যায়। ডিজিটাল প্রযুক্তির বইও বলা যায়। তবে এটি রম্য বই, রঙ্গ-ব্যঙ্গই মূল উদ্দেশ্য।

টেক শহর : এ ধরণের বই বাজারে আছে কিনা?

পল্লব মোহাইমেন : রম্য বই, রঙ্গ ও ব্যঙ্গ এই তিনের মিশেলে গ্রন্থ বাংলাভাষা এমনকি পৃথিবীর অন্য কোনো ভাষাতে আছে কিনা আমার জানা নেই।

টেক শহর : বইটি কবে বাজারে আসবে ও সংশ্লিষ্ঠ কে কে আছেন?

পল্লব মোহাইমেন : আগামী ২ ফেব্রুয়ারি বইটি বাজারে আসার কথা আছে। মূলত অমর একুশে বইমেলাকে লক্ষ্য করেই বইটি প্রকাশ করা হচ্ছে। কোনো কারণে ওই দিন সম্ভব না হলেও ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে এটি বাজারে আসবে। বইটির প্রকাশক শুভ্র প্রকাশ। এছাড়া প্রচ্ছদ একেছেন মাহফুজ রহমান। আঁকা- শিখা। বইটির মুখবন্ধ লিখেছেন কথা সাহিত্যিক আনিসুল হক। চার রঙের ও ৬৪ পৃষ্ঠার এই বইটির দাম ১৫০ টাকা।

টেক শহর : আমরা জানি আপনি সাংবাদিকতার পাশাপাশি ফটোগ্রাফি ও ভ্রমণেও পটু। এই বিষয়ে কিছু করার পরিকল্পনা আছে কিনা?

পল্লব মোহাইমেন : আমার বরাবরই ভ্রমন করতে ও ছবি তুলতে ভালো লাগে। এ বিষয়ে পত্রিকাতে নিয়মিত লিখেও থাকি। তবে যদি কখনো মনে হয় তাহলে ভ্রমণ কিংবা ফটোগ্রাফি নিয়ে বই লিখতে পারি। আপাতত পরিকল্পনা নেই।

টেক শহর : টেক শহরকে সময় দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।

পল্লব মোহাইমেন : টেক শহর পরিবারকেও ধন্যবাদ।

Related posts

*

*

Top