Maintance

গ্যালাক্সি এস৫ আনবক্সিং বাংলা ভিডিও রিভিউ

প্রকাশঃ ২:৩৭ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১২, ২০১৪ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:৩৭ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১২, ২০১৪

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অবশেষে বিশ্বের অন্যান্য স্থানের মতো দেশেও জনপ্রিয় গ্যালাক্সি সিরিজের পঞ্চম প্রজন্মের ফোন প্রযুক্তিপ্রেমীরা হাতে পাওয়া শুরু করেছেন।আকর্ষণীয় সব ফিচারের কথা আগেই ফাঁস হয়ে যাওয়ায় গ্যালাক্সি এস৫ নিয়ে বেশ আগ্রহ তৈরি হয়। এখন ব্যবহারকারীদের হাতে আসার পর দেখার পালা অন্যান্য হাই এন্ড ফোনের সঙ্গে এটি কতটা পাল্লা দিতে পারে।

নতুন প্রজন্মের এ ফোনটির নতুনসব ফিচারের কথা বলে শেষ করা যাবে না। উচ্চ দামের বিষয়টি বিবেচনায় না নিলে এটি স্মার্টফোন জগতে নতুন সংযোজন। যদিও এর বিশেষ ফিচার স্ক্যানার ও পানিরোধক প্রযুক্তি আইফোন ও সনি এক্সপেরিয়াতে দেখা গিয়েছিল।

এরপরও গ্যালাক্সি এস৫ বর্তমান হ্যান্ডসেট বাজারে শক্তিশালী একটি স্মার্টফোন। যা আইফোন ফাইভ এস, সনির এক্সপেরিয়ার জেডটু, এলজি জিটুর সঙ্গে পাল্লা দিতে পারে।

galaxy-s5-android_techshohor

এরই মধ্যে এ ফোনটি নিয়ে বেশ আগ্রহ তৈরি হয়েছে স্মার্টফোনপ্রেমীদের মধ্যে। ইতোমধ্যে দেশের বাজারেও এটির রেকর্ড সংখ্যক প্রি-অর্ডার পেয়েছে স্যামসাং বাংলাদেশ।

গ্যালাক্সি এস৫ স্মার্টফোনটি নিয়ে ইংরেজি এবং অন্যান্য ভাষায় ভিডিও রিভিউ থাকলেও বাংলায় নেই। টেকশহরডটকমের হাতে আসার পর স্মার্টফোনটির বাংলা ভিডিও রিভিউ তুলে ধরা হলো।

ডিজাইন
এস৫ এর ডিজাইন নিয়ে সবার আগ্রহ ছিল বেশি। তবে এ বিষয়ে কোনো নতুনত্ব আনতে পারেনি স্যামসাং। ডিজাইন দেখতে আগের গ্যালাক্সি এস৩ এবং এস৪ এর মতো। এ সিরিজের আগের ফোন ব্যবহারকারীরা কিছুটা হলেও হতাশ হতে পারেন।

ফোনটির ওজন ১৪৫ গ্রাম। সাদা, কালো, গোল্ড এবং নীল- চারটি রংয়ের পাওয়া যাচ্ছে এটি।

ডিসপ্লে
এর ডিসপ্লের আকার ৫.১ ইঞ্চি, রেজুল্যুশন ১০৮০*১৯২০ পিক্সেল। ডিজাইনে যতটুকু ফাঁক ছিল সেটি পূরণ হয়েছে ডিসপ্লের কারেণ। এক কথায় বললে, প্রথম দেখাতে মুগ্ধ হওয়ার মতো ডিসপ্লে।

পাশাপাশি রয়েছে সুপার অ্যামলয়েড ক্যাপাক্টিভ টাচস্ক্রিন, যা স্ক্র্যাচ প্রতিরোধক। এ ছাড়া স্ক্রিনের ওপর তৃতীয় প্রজন্মের গরিলা গ্লাস প্রলেপ রয়েছে।

কানেক্টিভিটি
এতে রয়েছে ফিঙ্গার পিন্ট প্রযুক্তি। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েডের সেরা ডিভাইসগুলোর চেয়ে কানেক্টিভিটির কোনো দিক থেকেই পিছিয়ে নেই এটি।

Symphony 2018

টুজি, থ্রিজি ও ফোরজির (এলটিই) পাশাপাশি আছে ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, এটুডিপি ব্লুটুথ। দ্রুত ফাইল শেয়ারিংয়ের জন্য এনএফসি আছে। সেন্সরের মধ্যে আছে এ-জিপিএস, অ্যাক্সেলেরোমিটার, জাইরো, প্রক্সিমিটি ও কম্পাস।

ক্যামেরা
অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের মধ্যে যেমন ক্যামেরা ফোনের দিক দিয়ে এগিয়ে আছে সনি, উইন্ডোজ ফোনে তেমনি নোকিয়া। তবে এ ফোনটির ক্যামেরাকে অনেক দিক দিয়ে সনির চেয়েও ভালো বলা যেতে পারে।

গ্যালাক্সি এস৫ এর পিছনে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও সামনে ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ক্যামেরা ব্যবহার করে ৪কে মানের ভিডিও রের্কড করা যাবে। এ ছাড়া রয়েছে অটোফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ, পিওরভিউ, ডুয়াল ক্যাপচার, প্যানারোলার মতো ফিচার।

কনফিগারেশন
ফোনটির হার্ডওয়্যারের মধ্যে আছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮০১ চিপসেটের ২.৫ গিগাহার্জ কোয়াড-কোর প্রসেসর। এতে রয়েছে অ্যাড্রেনো ৩৩০ গ্রাফিক্স প্রসেসর, ২ জিবি র‍্যাম। ইন্টারনাল মেমরি ১৬ গিগাবাইট ও ৩২ গিগাবাইট, যা বাড়ানো যাবে ১২৮ গিগাবাইট পর্যন্ত।

ব্যাটারি
এর ব্যাটারি ২৮০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার। স্ট্যান্ডবাই টাইম ৩৯০ ঘণ্টা ও টকটাইম ২১ ঘন্টা।

দেশের বাজারে এর দাম ৬০ হাজার টাকা।

এবার দেখে নেওয়া যাক দুই পর্বে গ্যালাক্সি এস৫ এর আনবক্সিং বাংলা ভিডিও রিভিউটি।

পর্ব – এক

পর্ব – দুই

*

*

Related posts/