মাইক্রোম্যাক্স এ৭৪ : সাধারণ হলেও চলনসই স্মার্টফোন

শাহরিয়ার হৃদয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভারতীয় কোম্পানি মাইক্রোম্যাক্সের সাম্প্রতিক কিছু ফোন বিশ্ববাজারেও জনপ্রিয়তা পেয়েছে। কম দামে ভালো পারফরম্যান্স এসব ফোনের বড় বৈশিষ্ট্য। তেমনি সাধারণ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের উপযোগী একটি হ্যান্ডসেট মাইক্রোম্যাক্স এ৭৪ ক্যানভাসফান। সিম্ফোনি বা ওয়ালটনের কাছাকাছি দামের ফোনের সঙ্গে এটি বাজারে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।

ডিজাইন
ফোনটি সাধারণ ডিজাইনের, তবে দেখতে যথেষ্ট আকর্ষণীয়। নীল, লাল ও কালো- এ তিন রঙে পাওয়া যাচ্ছে। এর পুরুত্ব মাত্র ০.৪০ ইঞ্চি।

Micromax Canvas-Fun-A74-TechShohor

ডিসপ্লে
এতে রয়েছে ৪.৫ ইঞ্চি টিএফটি ডিসপ্লে, যার রেজুল্যুশন ৪৮০*৮৫৪ পিক্সেল। প্রতি ইঞ্চিতে পিক্সেল সংখ্যা ২১৮। মাল্টিটাচসাপোর্ট করে।

কানেক্টিভিটি
স্মার্টফোনের সব বেসিক কানেক্টিভিটি সুবিধা এতে রয়েছে। হটস্পট সাপোর্টেড ওয়াই-ফাই, ডুয়াল সিম, থ্রিজি, ব্লুটুথ, এফএম রেডিও ও মাইক্রো এসবি রয়েছে। এ ছাড়া অ্যাক্সেলেরোমিটার ও প্রক্সিমিটি সেন্সর রয়েছে।

ক্যামেরা
ফোনটির মূল ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল। এটি সর্বোচ্চ ২৫৯৪*১৯৪৪ পিক্সেলে ছবি তুলতে পারে সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ আছে। ভিডিও চ্যাটের জন্য সামনে ভিজিএসেকেন্ডারি ক্যামেরা আছে।

কনফিগারেশন
এতে রয়েছে মিডিয়াটেকচিপসেট ও ১.৩ গিগাহার্জকর্টেক্স এ৭ ডুয়াল কোর প্রসেসর। গ্রাফিক্স প্রসেসর মালি-৪০০, যা সনি, স্যামসাংসহ অনেক কোম্পানির ফোনেও ব্যবহার করা হয়েছে। র‍্যাম কিছুটা কম, ৫১২ মেগাবাইট। ইন্টারনাল মেমরি ৪ জিবি, যা ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

পারফরম্যান্স
অ্যান্ড্রয়েড জেলি বিন ৪.২.২ ব্যবহার করা হয়েছে এতে। ডুয়াল কোর প্রসেসর ও উন্নত গ্রাফিক্স প্রসেসরের কল্যাণে বিভিন্ন অ্যাপ ও গেইম সর্বোচ্চ কোয়ালিটিতে চালানো যাবে।

হাই কোয়ালিটি মুভি দেখা, গান শোনা, ইত্যাদি মাল্টিমিডিয়া কাজেও কোনো সমস্যা নেই, কেবল স্ক্রিন কিছুটা ছোট হওয়ায় মুভি দেখার মজা কমে যেতে পারে। এটি জেলি বিনের পরবর্তী এডিশন অ্যান্ড্রয়েডকিটক্যাটে আপডেট করা যাবে।

ব্যাটারি
এতে ১৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে, যা পাঁচ ঘণ্টার মতো টকটাইম ব্যাকআপ দেবে।

দেশের বাজারে ফোনটির দাম ৭ হাজার ৯৯০ টাকা।

এক নজরে ভালো
– ভালো পারফরম্যান্স
– দাম কম ও চমৎকার আউটলুক

এক নজরে খারাপ
– ক্যামেরার রেজুল্যুশন কম
– স্ক্রিন তুলনামূলক ছোট

Related posts

*

*

Top