সস্তায় বেসিক স্মার্টফোন ম্যাক্সিমাস ম্যাক্স৯০২

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের বাজারে অনেক আগে থেকে ভালো অবস্থান ম্যাক্সিমাস ফোনের। বড় বড় ব্র্যান্ডগুলোর তুলনায় এ ব্র্যান্ডের মডেলগুলোর দাম বেশ কম, সেবাও খারাপ নয়।

স্মার্টফোনের বাজারেও বেসিক পর্যায়ের কিছু অ্যান্ড্রয়েড ফোন নিয়ে তারা গ্রাহক ধরে রেখেছে। এমন একটি বেসিক অ্যান্ড্রয়েড ফোন ম্যাক্সিমাস ম্যাক্স৯০২।

maximus max 902_techshohor

ডিজাইন
দেখতে কিছুটা স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২ এর মতো এ ফোনের সমূর্ণ বডি প্লাস্টিকে তৈরি। তাই ওজনে বেশ হালকা।

ডিসপ্লে
দুর্বল ডিসপ্লে ফোনটির একটি নেতিবাচক দিক। ৩.৫ ইঞ্চির ডিসপ্লের রেজুল্যুশন মাত্র ৩২০*৪৮০ পিক্সেল। তবে মাল্টিটাচ সাপোর্ট করে।

ক্যামেরা
ফোনটির পেছনে ৩ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা আছে। সামনে ১.৩ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি ক্যামেরা আছে। প্রধান ক্যামেরার ফটো রেজুল্যুশন ২০৪৮*১৫৩৬ পিক্সেল, ফ্ল্যাশ আছে।

কানেক্টিভিটি
ডুয়াল সিম ডুয়াল স্ট্যান্ডবাই সুবিধা রয়েছে এতে। আরও আছে থ্রিজি, ব্লুটুথ, ওয়াই-ফাই, ওয়াই-ফাই হটস্পট। অ্যান্ড্রয়েডের মূল সেন্সরগুলো ছাড়া আছে এফএম রেডিও।

কনফিগারেশন
১ গিগাহার্জ গতির এআরএম প্রসেসর এতে ব্যবহার করা হয়েছে। র‍্যাম ২৫৬ মেগাবাইট। ইন্টারনাল মেমরি ৫১২ মেগাবাইট, যা বাড়ানো যাবে ৩২ জিবি পর্যন্ত।

পারফরম্যান্স
অ্যান্ড্রয়েডের বেশ পুরনো সংস্করণ রয়েছে এতে-২.৩.৬. জিঞ্জারব্রেড। এটি দিয়ে ফোন ব্যবহারে তেমন কোনো সমস্যা হবে না। আপগ্রেড করলে এর পরবর্তী এডিশন আইসক্রিম স্যান্ডউইচ বেশ মসৃণভাবেই চলবে। তবে জেলি বিনে আপডেট হবে না।

হার্ডওয়্যার একেবারেই সাধারণ মানের হওয়ায় এটি দিয়ে সাধারণ ব্রাউজিং, ছবি তোলা, ভিডিও চ্যাট ইত্যাদির বেশি করা যাবে না। নতুন গেইম ও অনেক অ্যাপ না চলারই সম্ভাবনা বেশি।

ব্যাটারি
এর ১৪০০ এমএএইচ ব্যাটারি পর্যাপ্ত সময় ব্যাকআপ দিতে সক্ষম।

প্রথমবারের মতো কম দামের একটি অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করতে চাইলে ম্যাক্সিমাস ম্যাক্স৯০২ ভালো বিকল্প হতে পারে। এটি এখন পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ৪ হাজার টাকায়।

এক নজরে ভালো
– দাম খুবই কম

এক নজরে খারাপ
– দুর্বল কনফিগারেশন ও ডিসপ্লে
– পুরনো অপারেটিং সিস্টেম

Related posts

টি মতামত

*

*

Top