সস্তায় স্মার্ট ফিচারের ক্যমেরা স্যামসাং ডিভি১৫০এফ

শাহরিয়ার হৃদয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ফটোগ্রাফিপ্রেমীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো সবসময় সাথে ক্যামেরা থাকা। কোনো চমৎকার মুহূর্তই যাতে ফ্রেমে বন্দী হওয়া থেকে বাদ না যায়। কিন্তু সবসময় বড় ডিএসএলআর ক্যামেরা বহন করা কষ্ট, বিশেষ করে শখের ফটোগ্রাফারদের জন্য। তাই বহনযোগ্য কমপ্যাক্ট ক্যামেরা হিসেবে স্যামসাং ডিভি১৫০এফ অনেকের পছন্দ হতে পারে।

এ ছোট্ট পকেট সাইজ ক্যামেরার মূল আকর্ষণীয় দিক ১.৫ ইঞ্চি ফ্রন্ট ডিসপ্লে। সেলফ পোট্রেট ও গ্রুপ ফটো তোলার জন্য যা বেশ কাজে দেবে খুবই কাজে দেবে।

samsung camera_techshohor

অন্যদিকে রিয়ার ডিসপ্লেটি মাত্র ২.৭ ইঞ্চি, যা অনেকের কাছে ছোট মনে হতে পারে। রিয়ার ডিসপ্লে থেকে ফ্রন্ট ডিসপ্লেতে পরিবর্তন করার জন্য একটি ডেডিকেটেড বাটন রয়েছে। ব্যাটারি ছাড়া এর ওজন মাত্র ১১৫ গ্রাম, তাই যে কোনো জায়গায় বহন করতে কোনো সমস্যা হবে না।

ক্যামেরার লেন্স ১৬.২ মেগাপিক্সেল। সাথে আছে ৫ এক্স জুম ও ওয়াইড এঙ্গেলফিচার। দূর থেকে ছবি তুলতে এ দুটি সাহায্য করবে। যারা ছবি তোলার ক্যামেরা সেটিংসের ওপর পুরো নিয়ন্ত্রণ চান, তাদের হয়তো কিছুটা অসুবিধায় পড়তে হবে।

তবে ফ্ল্যাশ আউটপুট, সেলফ টাইমার ইত্যাদি ডেডিকেটেড বাটন প্রয়োজন মেটাতে পারবে। কিন্তু এক্সপোজার সেটিংসের কোনো ডেডিকেটেড বাটন নেই। তাই ছবির উজ্জ্বলতা বাড়ানো ও কমানোর জন্য বারবার সফটওয়্যার মেনুতে যেতে হবে।

এর অন্যান্য বড় ফিচারের মধ্যে আছে ওয়াই-ফাই, যা দিয়ে যে কোনো ছবি তোলার সাথে সাথে ফেইসবুক, টুইটার ও অন্যান্য সোশ্যাল নেটওয়ার্কে আপলোড করতে পারবেন।

এ ছাড়া মোবাইল লিঙ্কঅ্যাপ ও রিমোট ভিউফাইন্ডার অ্যাপ দিয়ে আইওস ও আন্ড্রয়েড ডিভাইস থেকে লেন্স জুমিং, ফ্ল্যাশ কন্ট্রোল, সেলফ টাইমার সেটিং ঠিক করা যাবে, এমনকি ছবিও তোলা যাবে।

অটো ব্যাকআপ দিয়ে স্মার্টফোন বা ট্যাবলেট কম্পিউটারে ছবি সেভ করে রাখতে পারবেন কোনো ডাটা ক্যাবল ছাড়া।

দেশের বাজারে ক্যামেরাটির দাম মাত্র ১২ হাজার টাকা।

এক নজরে ভাল
– কম দাম
– সেলফ পোট্রেটের জন্য ফ্রন্ট ক্যামেরা
– ওয়াই-ফাই সুবিধা
– ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স

এক নজরে খারাপ
– ২.৭ ইঞ্চি রিয়ার ডিসপ্লে
– স্লো পারফরমেন্স
– ৫এক্স জুম রেঞ্জ

Related posts

*

*

Top