ক্যানন পিক্সমা আইপি৭২৭০ : অ্যাপ দিয়েও প্রিন্ট হবে

শাহরিয়ার হৃদয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জাপানের বিখ্যাত ইলেকট্রনিক নির্মাতা ক্যানন কিছুদিন আগে বাজারে এনেছে পিক্সমা সিরিজের আইপি ৭২৭০ ইংকজেট প্রিন্টার। কম দামের মধ্যে স্মার্ট কানেক্টিভিটি ফিচারসহ প্রিন্টারটি ঘরে বা অফিসে ব্যবহারের উপযোগী।

প্রিন্টারটির বডি উন্নত মানের প্লাস্টিকে তৈরি। ফিনিশিং খুবই চমৎকার ও স্টাইলিশ। প্লাস্টিকে তৈরি হওয়ায় ওজনে হালকা। সুবিধাজনক আকারের কারণে ছোট জায়গাতে বসানো যাবে। এর ফ্রন্ট প্যানেলে পাওয়ার বাটনের পাশাপাশি রয়েছে ফিড পেপার বাটন ও ওয়াই-ফাই বাটন।

canon printer_ip7270_techshohor

এর মূল ফিচারগুলোর মধ্যে রয়েছে অটো ডুপ্লেক্স প্রিন্ট ও ডুয়াল ফ্রন্ট পেপার ক্যাসেট। অটো ডুপ্লেক্সের ফলে পেজের দুপার্শ্বে একই সাথে প্রিন্ট করা যাবে। ডুয়াল ফ্রন্ট পেপার ক্যাসেটে ভিন্ন ভিন্ন আকারের কাগজ রাখা যাবে এবং পরপর দুই ধরনের কাগজে প্রিন্ট করা যাবে। সরাসরি সিডি থেকে প্রিন্ট দেওয়ার জন্য ডাইরেক্ট ডিস্ক প্রিন্ট সুবিধা রয়েছে।

তবে এর আরেক বড় আকর্ষণ ওয়াই-ফাই প্রিন্টিং।  ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক সেটাপ করার পর কম্পিউটারের সাথে প্লাগ-ইন না করেও সহজে যে কোন কার্ড, ছবি বা ডকুমেন্ট প্রিন্ট করতে পারেন। বিভিন্ন ইউজারের জন্য ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে প্রোফাইল তৈরি করা যাবে।

ক্যানন ইজ ফটো প্রিন্ট নামে একটি অ্যাপ এ কাজটি আরও সহজ করে দিয়েছে। এর ফলে ট্যাব বা স্মার্টফোন থেকে মাত্র এক ক্লিকে প্রিন্ট করতে পারবেন। প্রিন্টারের ওয়াই-ফাই সিগন্যাল বেশ শক্তিশালী হওয়ায় কোনো ক্ষেত্রেই ব্যাঘাত ঘটবে না। অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর ও আই টিউনস স্টোরে পাওয়া যাবে।

প্রিন্টিং গতির দিক থেকে বেশিরভাগ ইংক জেট প্রিন্টারের চেয়ে এগিয়ে আছে এটি। মাঝারি মানের রঙিন ছবি ও টেক্সটসহ ১০টি পেজ প্রিন্ট হতে ৪৩ সেকেন্ড লাগে বলে রিভিউতে দেখা গেছে। আর গতির কারণে আউটপুট কোয়ালিটিতে কোনো ক্ষতি হয়নি। টেক্সট বা ফটো যে কোনো ধরনের প্রিন্টিংয়ে চমৎকার মান বজায় রেখেছে। সাধারণ সাদাকালো প্রিন্টিং ঝকঝকে ও পরিচ্ছন্ন আসবে। রঙিন ও ফটো প্রিন্টিংয়ের ক্ষেত্রেও খুঁত ধরার সুযোগ কম।

তবে কালার লেজার প্রিন্টারগুলোর সাথে তুলনা করে রংগুলোকে অনুজ্জ্বল ও ফ্যাকাশে লাগতে পারে।

২০১২ সালের পর থেকে ক্যানন বেশিরভাগ প্রিন্টারের সাথে ‘মাই ইমেজ গার্ডেন’ নামের উপকারী একটি সফটওয়্যার দিচ্ছে। আইপি৭২৭০ এর সাথেও রয়েছে তা। ছবির ব্যাকআপ রাখার জন্য ও গুছিয়ে রাখার জন্য এটি চমৎকার একটি সফটওয়্যার। বার্থডে কার্ড, শুভেচ্ছা কার্ড, স্মরণীয় কোনো মুহূর্তের কার্ড ইত্যাদি সহজে তৈরি করে প্রিন্ট করা যাবে সফটওয়্যারটি দিয়ে।

প্রিন্টারটির সাথে এক বছরের ওয়ারেন্টি আছে। দেশের বাজারে দাম ১০ হাজার ৪০০ টাকা।

এক নজরে ভালো
– স্টাইলিশ গড়ন
– ওয়াই-ফাই সুবিধা
– সন্তোষজনক আউটপুট

এক নজরে খারাপ
– রঙিন ছবির প্রিন্ট কখনও কখনও ঝাপসা আসতে পারে

Related posts

*

*

Top