পারফর্ম্যান্সে এগিয়ে সনির ল্যাপটপ ভাইয়ো এসভিই১৪১২২সিএক্সবি

শাহরিয়ার হৃদয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সনির বিখ্যাত ভাইয়ো সিরিজের ল্যাপটপগুলোর দাম কিছুটা বেশি। তবে গুণগত মানের দিক দিয়ে এর তুলনা নেই। এর মধ্যে ভাইয়োর মাঝারি মানের ল্যাপটপ এসভিই১৪১২২সিএক্সবি। চমৎকার কনফিগারেশনের ল্যাপটপটি পারফর্ম্যান্সের বিচারেও এগিয়ে রয়েছে।

ডিজাইন

আলট্রাবুক না হলেও এর ডিজাইন প্রিমিয়াম এন্ডের মতো। ভাইয়োর অন্যান্য ল্যাপটপের মতো চমৎকার ও মসৃণ ফিনিশিং। এর ওজন প্রায় আড়াই কেজি হওয়ায় বহন করার বেশ সহজ হবে। কালো রঙে এটি পাওয়া যাচ্ছে।

sony vaio_techshohor

ডিসপ্লে

১৪ ইঞ্চি অ্যাকটিভ ম্যাট্রিক্স এলসিডি স্ক্রিনের রেজুল্যুশন ১৩৬৬*৭৬৮ পিক্সেল। স্ক্রিন এলইডি ব্যাকলিট হওয়ায় নিখুঁত উজ্জ্বলতা দেখাবে। এ ছাড়া ভিউয়িং অ্যাঙ্গেল বেশ ভালো, যা দীর্ঘক্ষণ ধরে কাজ করা বা মুভি দেখার উপযোগী।

কানেক্টিভিটি

ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ও ইথারনেট পোর্ট রয়েছে এতে। আরও আছে তিনটি ইউএসবি ২.০ পোর্ট, ইউএসবি ৩.০ পোর্ট, হেডফোন আউটপুট, এইচডিএমআই ও ভিজি পোর্ট, ল্যান কার্ড রিডার ও মেমরি কার্ড রিডার। স্ক্রিনের ওপর একটি ওয়েবক্যাম আছে। স্পিকারটি দিয়ে জোরালো ও পরিষ্কার সাউন্ড শোনা যাবে।

কনফিগারেশন

ল্যাপটপটির ভেতরে রয়েছে ইন্টেল কোর আইথ্রি ৩১১০এম ২.৪০ গিগাহার্জ প্রসেসর। র‍্যাম ৪ গিগাবাইট ডিডিআরথ্রি, গ্রাফিক্স চিপ ইন্টেল ৪০০০। ইন্টারনাল হার্ডডিস্ক ৫০০ গিগবাইট। এ ছাড়া কিবোর্ডটি ব্যাকলিট ও টাচপ্যাড মাল্টিটাচ সাপোর্ট করে, তাই উইন্ডোজ ৮ খুব সহজেই ব্যবহার করা যাবে।

পারফর্ম্যান্স

সব মিলিয়ে আলট্রাবুক না হলেও ল্যাপটপটির পারফর্ম্যান্স চমৎকার বলতে হবে। তৃতীয় প্রজন্মের প্রসেসর ও পুরনো গ্রাফিক্স প্রসেসর হার্ডকোর ইউজারদের জন্য নেতিবাচক দিক হতে পারে। তবে ব্রাউজিং, মিডিয়া চালানো, ছোটখাটো গেইম খেলা ও টুকটাক এডিটিংয়ের কাজ স্বাচ্ছন্দ্যে করা যাবে।

ব্যাটারি

এতে ৫৩০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার-আওয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে, যেটি প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা ব্যাকআপ দেবে।

দেশের বাজারে এর দাম ৬৩ হাজার টাকা।

এক নজরে ভালো

–       আকর্ষণীয় ডিজাইন

–       সন্তোষজনক পারফর্ম্যান্স

এক নজরে খারাপ

–       পুরনো প্রজন্মের প্রসেসর

–       দাম কিছুটা বেশ

ট্যাগ ,

Related posts

*

*

Top