সুরক্ষিত স্ক্রিন নিয়ে ডেল ইন্সপিরনের নতুন ল্যাপটপ

শাহরিয়ার হৃদয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সাধারণ  ব্যবহারকারীদের কাছে ডেলের ইন্সপিরন সিরিজের ল্যাপটপগুলো খুবই জনপ্রিয়। দৈনন্দিন কাজের পাশাপাশি প্রয়োজনের সময় বেশ ভালো পারফর্ম্যান্স দেয় এটি। সম্প্রতি বাজারে এসেছে ইন্সপিরন ১৪ ৭০০০ সিরিজ ল্যাপটপ, যা কমদাম ও সন্তোষজনক পারফর্ম্যান্সের জন্য ইতোমধ্যে ভোক্তাদের নজর কেড়েছে।

সুরক্ষিত স্ক্রিন : ল্যাপটপটির সবচেয়ে বড় গুণ এটি মাত্র ০.৬ ইঞ্চি পুরু। ওজনেও হালকা। ১৪ ইঞ্চির টাচস্ক্রিন ডিসপ্লের সব্বোচ্চ রেজুলেশন ১৯২০*১০৮০ পিক্সেল, যা সাধারণত সবচেয়ে উচ্চ পযায়ের ল্যাপটপে দেখা যায়। স্ক্রিনকে সুরক্ষিত রাখার জন্য গরিলা গ্লাসের একটি স্তর রয়েছে।

 কুলিংয়ের সুবিধা : ইন্সপিরন সিরিজের অন্যান্য ল্যাপটপের মতো এর গঠন মজবুত ও দৃঢ়। কুলিংয়ের সুবিধা ও স্থির থাকার জন্য নিচে রাবারের প্যাড রয়েছে। মেটাল ফিনিশিংয়ের বডিতে পর্যাপ্ত সব পোর্টই পাবেন। ডানপাশে রয়েছে ইউএসবি ৩.০, এসডি কার্ড স্লট, হেডফোন জ্যাক ও স্পিকার। বামপাশে রয়েছে আরেকটি ইউএসবি ৩.০, এইচডিএমআই পোর্ট, পাওয়ার কানেক্টর ও আরেকটি স্পিকার। ওয়াইফাই থাকলেও ইন্টারনেট কানেকশনের কোনো পোর্ট নেই।

Dell Inspiron_techshohor

কিবোর্ডে পৃথক কি : স্লিম ল্যাপটপগুলোর কিবোর্ডে টাইপ করতে অনেকের অসুবিধা হয়। ইন্সপিরন ১৪ ৭০০০ অত্যন্ত পাতলা ল্যাপটপ হওয়া সত্ত্বেও কিবোর্ড ও টাচপ্যাড এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে তা ব্যবহারে হাতের উপর কোনো চাপ না পড়ে। কিবোর্ডের প্রতিটি কি পৃথক এবং ব্যাকলিট সুবিধা রয়েছে। উইন্ডোজ এইটের ইন্টারফেসে টাচপ্যাডটি ব্যবহারে বেশ সুবিধা হবে।

এসএসডি নেই : এ ছাড়া এর ভেতরে রয়েছে ইন্টেল কোর আইফাইভ ৪২০০ইউ প্রসেসর, ৬ গিগাবাইট র‌্যাম, ইন্টেল ৪৪০০ গ্রাফিক্স ও ৫০০ গিগাবাইট হার্ডডিস্ক। এ কনফিগারেশনের ফলে ডেস্কটপ কম্পিউটার বেশিরভাগ সাধারণ কাজই সহজে সম্পন্ন করতে পারবে ল্যাপটপটি, তবে সলিড স্টেট ড্রাইভের (এসএসডি) অনুপস্থিতি অনেকের জন্য নেতিবাচক হতে পারে। এর আরেক বড় গুণ, মাল্টিটাস্কিং এবং অনেক ভারী কাজের সময়ও ল্যাপটপটি একেবারে নিরব ও তুলনামূলক অনেক শীতল থাকবে। ফুল পারফর্ম্যান্সেও তাপমাত্রা ৮৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে থাকে বলে রিভিউ সাইটগুলো জানিয়েছে।

ভালো ব্যাকআপ: স্লিম এবং হাই-রেজ্যুলুশনের ল্যাপটপ থেকে খুব ভালো ব্যাটারি লাইফ অনেকেই আশা করেন না। কিন্তু এক্ষেত্রে হতাশ করবে না ইন্সপিরন ১৪। সম্পূর্ণ পারফর্ম্যান্সেও প্রায় আড়াই ঘণ্টা ব্যাকআপ দেবে।

দামে সহজলভ্য : এতকিছুর পরও দাম মোটামুটি হাতের নাগালে (৮৪৯ ডলার) থাকায় ল্যাপটপটি অনেকেরই পছন্দের তালিকায় থাকতে পারে। তবে অ্যাপলের ম্যাকবুক বা ডেলেরই এক্সপিএস সিরিজের মতো আকর্ষণীয় আউটলুক এতে পাওয়া যাবে না।

এক নজরে ভালো

–        আকর্ষণীয় স্ক্রিন

–        কিবোর্ড ও টাচপ্যাড উন্নতমানের

–        নিরব ও শীতল থাকে

এক নজরে খারাপ

–        সলিড স্টেট ড্রাইভ (এসএসডি) নেই

–        আউটলুক সাধারণ মানের

ডিজিটাল ট্রেন্ডস,  সিনেট,  টেকরাডার অবলম্বনে

Related posts

*

*

Top