অনলাইন মার্কেটিংয়ের সেরা ৫ সোশ্যাল সাইট

তুহিন মাহমুদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায় উদ্যোক্তা, অনলাইন মার্কেটার ও ব্লগার যাদের কাজ অনলাইন নির্ভর, তাদেরকে ইন্টারনেটে নিজের ও নিজের পণ্যের, সেবার প্রচারণার প্রয়োজন হয়। আপনি যদি সোশ্যাল মিডিয়ায় না থাকেন, তাহলে এটি নিশ্চিত যেভাবে অনলাইন মার্কেটিং করা প্রয়োজন আপনি সেটি করছেন না।

আগের দিনের টেলিভিশন ও প্রিন্ট মিডিয়ার বদলে এখন নিজের কাজ ও পণ্যের প্রচারণা সোশ্যাল মিডিয়া যেমন ফেইসবুক, টুইটার, গুগল প্লাস, পিন্টারেস্টে স্থান করে নিয়েছে। এখান থেকে আপনি পণ্যের প্রচারের পাশাপাশি কি করতে হবে তার ধারণা পাবেন।

internet-marketing-social media-TechShohor

গত কয়েক বছরে অগনিত সোশ্যাল মিডিয়া সাইট এসেছে। তবে কাজের প্রয়োজনে এগুলো একটি থেকে আরেকটি ভিন্ন। তদুপরি অনলাইন মার্কেটার ও ব্লগারদের জন্য এসব সাইট খুবই কার্যকরী।

একটু খেয়াল করলেই দেখবেন আপনি যখন আপনার ফেইসবুক, টুইটার, লিংকডইন কিংবা গুগল প্লাসে লগ-ইন করবেন, তখন আপনার সামনে অনেক প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনমূলক মেসেজ, পোস্ট দেখতে পাবেন। এগুলো কোনোটা আপনার কাজে লাগতে পারে আবার কোনোটা আপনার কাছে মোটেই মূল্য নেই। তাই অনলাইন মার্কেটারদের মনে রাখতে হবে, আপনার পণ্য ও সেবার প্রসার বাড়াতে সম্ভাব্য ক্রেতা বা সেবাগ্রহীতাদের কাছে আপনাকে পৌছাতে হবে।

আর সম্ভাব্য ক্রেতা ও সেবাগ্রহীতাদের কাছে পৌছাতে আপনাকে কিছু কাজ করতে হবে।
• আপনার কোম্পানি ও ব্যবসায়ের জন্য একটি ইউনিক ও সহজে মনে রাখা যায় এমন নাম রাখতে হবে। নিচে উল্লেখ করা বেশিরভাগ সোশ্যাল মিডিয়া সাইটে আপনার পেইজ, কমিউনিটি কিংবা গ্রুপের জন্য বিশেষ টুলস রয়েছে। এগুলোর সঠিক ব্যবহার জানতে হবে।
• আপনার সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্কে শুধু লোক না বাড়িয়ে সম্ভাব্য ক্রেতাদের টার্গেট করুন। এতে ঐ নেটওয়ার্ক ইন্টার‍্যাক্টিভ থাকবে।
• আপনার সোশ্যাল মিডিয়া ক্যাম্পেইনে অবশ্যই সুন্দর ছবি ও আকর্ষনীয় কনটেন্ট দিতে হবে।
• আপনার নেটওয়ার্কের উন্নয়নে এতে সম্পৃক্তদের কাছ থেকে ফিডব্যাক নিন ও সেই অনুযায়ী এগিয়ে যান।

নিচে অনলাইন মার্কেটারদের উপযোগি ৫টি সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্কিং সাইট সম্পর্কে জানানো হলো। এগুলোতে প্রচারের মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যবসাকে সহজেই সম্প্রসারণ করতে পারেন।

ফেইসবুক
ফেইসবুকে বিশ্বের এক নাম্বার সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট একথা নতুন করে বলার দরকার নেই। গত জানুয়ারির হিসাব অনুযায়ী ফেইসবুকের বর্তমান ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৩১ কোটিরও বেশি। এই বছরেই এটি ২০০ কোটি ছাড়িয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর এই বিশাল জনগোষ্ঠির মাঝেই রয়েছে আপনার পণ্য বা সেবার গ্রহীতা কিংবা আপনার ওয়েবসাইটের সম্ভাব্য ভিজিটর। ফেইসবুকে কেনো এবং কিভাবে আপনি আপনার পণ্য বা সেবার প্রচারণা করবেন সেটি দেখা যাক।
• এখানে আপনি আপনার ব্যবসার প্রচারণার জন্য একটি ইউনিক পেইজ খুঁলতে পারবেন। আর এই নামটি যেনো আপনার ব্যবসায় সম্পর্কিত বা প্রতিষ্ঠানের নামেই হয় সে বিষয়টি খেয়াল করতে হবে।
• একটি ফেইসবুক পেইজ আপনার ব্যবসায়ের পূর্ণাঙ্গ প্রোফাইল ধারণ করে। এতে যুক্ত সবাই আপনার ব্যবসা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। ঠিক সেভাবেই আপনার পেইজটিকে সাজানো উচিত, যাতে সম্ভাব্য ক্রেতারা আগ্রহী হয়।
• থাম্বনেইল হিসেবে আপনার ব্যবসায়ের লোগো ব্যবহার করুন। এটি আপনার ব্যবসায়ের প্রাথমিক পরিচয় বহন করে। এছাড়া কাভার ফটোতে অবশ্যই গুরুত্ব দিতে হবে। এটি অডিয়েন্সের মধ্যে বিশেষ প্রভাব ফেলে।
• যখন আপনি কেনো পেইজ খুঁলবেন তখন এটিতে আপনার কোম্পানির তথ্য ও যোগাযোগের উপায়গুলো দিয়ে দিবেন। ফলে ক্রেতা বা সেবাগ্রহীতারা সহজেই যোগাযোগ করতে পারবে।
• পেইজে একাধিক অ্যাডমিন যুক্ত করুন। আপনি ব্যস্ত থাকলে অন্য অ্যাডমিনরাও কনটেন্ট ও পোস্ট দিতে পারবে।

গুগল প্লাস
প্রযুক্তি জায়ান্ট গুগলের সামাজিক যোগাযোগ সেবা গুগল প্লাস। এতে ১০০ কোটির বেশি নিবন্ধিত ও নিয়মিত ৫৪ কোটির অধিক সক্রিয় ব্যবহারকারী রয়েছে। প্রতিনিয়ত এই সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গুগল অথরশিপ হওয়ার এটি অনলাইন মার্কেটিংয়ের একটি অন্যতম মাধ্যম হয়ে দাড়িয়েছে। এই সাইটে কোনো কিছু শেয়ার করলে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এসই) এর দিক থেকে অনেক সুবিধা দেয়। গুগল প্লাস থেকে আপনি কি সুবিধা পাবেন তা দেখে নেওয়া যাক।
• এটি ব্যবহারকারীদের ব্র্যান্ড পেইজ তৈরির সুযোগ দেয়।
• পেইজে কাস্টোমাইজড কাভার টেমপ্লেট ও থাম্বনেইল ব্যবহার করতে পারবেন।
• কনট্যাক্ট, ওয়েবসাইট ও জিওগ্রাফিক্যাল লোকেশনসহ আপনার ব্যবসায়ের বিস্তারিত তথ্য এখানে যুক্ত করতে পারবেন।
• বিশেষ কীওয়ার্ড ও লোকেশন অনুযায়ী ব্যবহারকারী খুঁজে পাওয়ার সুযোগ দেয়।
• আপনার সার্কেলে থাকা মানুষগুলোকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সাজাতে পারবেন। পরবর্তীতে ঐ নির্দিষ্ট ক্যাটাগরির ব্যবহারকারীদের উদ্দেশ্য করে কনটেন্ট শেয়ার করতে পারেন।
• আপনার ব্র্যান্ডের জন্য একটি গুগল প্লাস পেইজ ইউনিক ইউআরএল পেতে পারেন।
• পেইজে বিভিন্ন ওয়েবমাস্টার ও এপিআই কনসোল সেবা পাবে, যা আপনার ব্র্যান্ড বা সেবাকে অন্যান্য অনলাইন প্লাটফর্মে ছড়িয়ে দেওয়ার সুযোগ দিবে।

লিংকডইন
প্রায় ২৬ কোটি ব্যবহারকারী নিয়ে লিংকডইন সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রফেশনাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট। এতে আপনার প্রফেশনাল প্রোফাইল তৈরি করার ও কমিউনিটি তৈরির সুযোগ রয়েছে। লিংকডইনও আপনার পণ্য বা সেবার জন্য ব্র্যান্ড আইডেন্টিটি তৈরির সুবিধা দেয়। এই সাইট থেকে আপনি কি পাবেন সেটি দেখে নেওয়া যাক।
• এখানে আপনার ব্র্যান্ডের জন্য গ্রুপ তৈরি ও সংযুক্তদের সঙ্গে এটি প্রোমোট করতে পারবেন।
• তৈরি করা ব্র্যান্ড গ্রুপকে নিজের মতো সাজাতে পারবেন।
• আপনার গ্রুপে যারা আছে তাদের মাধ্যমেই নতুন কানেকশনের সাজেশন পাবেন। যার মাধ্যমে আপনার নেটওয়ার্ক আরও বৃদ্ধি পাবে।
• আপনার ব্যবসায়ের ধরণ অনুযায়ী সম্ভাব্য ক্লায়েন্ট খুঁজতে পারবেন।

টুইটার
মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে বর্তমানে প্রায় ২৫ কোটি ব্যবহারকারী রয়েছে। প্রতিদিন গড়ে ৫০ কোটি টুইট হয় এই সামাজিক যোগাযোগ সাইটটিতে। বিশ্বের সেলিব্রেটি, বিশেষ ব্যক্তি, ব্যবসায়ী, প্রতিষ্ঠান এই সাইটটি সক্রিয় থাকেন। চলুন দেখে নেওয়া যাক আপনার কি কাজে লাগতে পারে সাইটটি।
• টুইটারে আপনি একটি ইউনিক ইউআরএল পাবেন।
• এতে আপনার ব্যবসায়ের প্রোফাইল ছবি, হেডার ছবি এবং ব্যাকগ্রাউন্ড দিতে পারবেন পছন্দমতো।
• আপনার ব্যবসায়ের ওয়েবসাইট যুক্ত করতে পারবেন সাইটটিতে, যা ব্যবহারকারীদের সরাসরি ভিজিট করার সুযোগ দেবে।
• আপনার ব্যবসায়িক ওয়েবসাইটে টুইটার এপিআই উইজেট ব্যবহার করতে পারবেন।
• হ্যাশট্যাগ, অ্যাট (@) ইত্যাদি সাংকেতিক চিহ্ন ব্যবহার করে আপনার কাঙ্খিত ব্যাক্তি বা কমিউনিটির সঙ্গে যোগাযোগ সমন্বয় করতে পারেন।

পিন্টারেস্ট
এটি বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত জনপ্রিয় হওয়া সোশ্যাল বুকমার্কিং সেবার সাইট। বর্তমানে প্রায় ৮ কোটি ব্যবহারকারী রয়েছে সাইটটির। ছবি ভিত্তিক এই ওয়েবসাইটটি আপনার পণ্য ও সেবার অনলাইন মার্কেটিংয়ে সবচেয়ে কাজে দিবে। এখানে আপনি যা যা সুবিধা পাবেন:
• এই নেটওয়ার্কে আপনার বিজনেস প্রোফাইল তৈরি করতে পারবেন।
• এটি আপনার ব্যবসায়ের নামানুসারে একটি পার্সোনালাইজড ইউজার নেম দেয়।
• এখানে আপনার অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া লিংক যুক্ত করতে পারবেন। যেমন এই সাইটের সঙ্গে আপনার ফেইসবুক প্রোফাইল যুক্ত থাকলে আপনি যখনই কোনো ছবি পিন করবেন, তখন এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার ফেইসবুকে শেয়ার করে দিবে। আপনার একটি ওয়েবসাইট থাকলে এই সাইট থেকে ডুফলো ব্যাকলিংক পেতে পারেন।

Related posts

টি মতামত

*

*

Top