Maintance

একজন ব্লগারের যে তিন সুপারপাওয়ার থাকতে হবে

প্রকাশঃ ২:০১ অপরাহ্ন, জুলাই ২৫, ২০১৬ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:৫০ অপরাহ্ন, জুলাই ২৫, ২০১৬

মোশাররফ রুবেল, অ্যাপ ডেভেলপার  অতিথি লেখক : একজন ভাল ব্লগার হতে হলে আপনার অবশ্যই গল্প বলার ক্ষমতা থাকতে হবে। ভালো গল্প বলার কৌশল আপনাকে ভালো ব্লগার হতে সাহায্য করবে।

প্রথমত, আপনাকে গল্প বলার কাঠামোর উপর মনোযোগী হতে হবে। কিভাবে একটা ভালো কাঠামোর মাধ্যমে গল্পটাকে এগিয়ে নেয়া যায় এবং আপনি তা দিয়ে একটা আকর্ষনীয় ব্লগ পোষ্ট তৈরি করতে পারেন।

যে তিনটি সুপারপাওয়ার একজন ব্লগারের থাকা দরকার ও আপনি তা কিভাবে আয়ত্ত করতে পারেন তা নিয়ে এ টিউটোরিয়াল।

সুপারসনিক হিয়ারিং
লেখকদের একটা অবিশ্বাস্য বিষয় আছে যা সত্যি অবাক করার মতো। আপনাকে অন্যের কথা মনোযোগ দিয়ে শুনতে হবে। আড়িপাতার গুণ থাকলে সেটিও মাঝে মধ্যে কাজে লাগাতে হবে।

আপনি বিষয়টা নিয়ে জনপ্রিয় লেখকের সঙ্গে কথা বলে দেখতে পারেন। আমার মনে হয় তারা তা অকপটে স্বীকার করবে। যারা সত্যি ভালো লেখক তারা সব জায়গাতেই, যেমন-  বাসে, ট্রেনে, লঞ্চে ও ক্যাফেতে মানুষের আলোচনা মনোযোগ দিয়ে শোনেন।

এর কারণ সেখান থেকে গল্প ও ব্লগ লিখতে দারুণ সব আইডিয়া সংগ্রহ করেন তারা। লেখকদের অন্যের কথা বেশি বেশি শোনার ক্ষমতা থাকতে হবে। এতে নতুন আইডিয়া আসবে। চারিদিকে কি ঘটছে তারা তা জানতে পারবেন। অন্যেরক মনোজগতে কি চলছে তা বুঝতে পারবেন।

এটি আপনার জন্য কিভাবে কার্যকরি হবে
আপনাকে মনোযোগী শ্রোতা হতে হবে। দেখতে হবে যে আপনার আশেপাশের মানুষ কি বিষয় নিয়ে কথা বলে, তাদের কি ধরণের সমস্যা আছে। তারা সেটা নিয়ে কিভাবে ভাবছেন। তা থেকে আপনি আপনার কাঙ্খিত লেখার টপিক খুঁজে নিতে পারেন।

তাছাড়া আরও একটা বিষয় আপনাকে সাহায্য করতে পারে তা হলো আপনার আইডিয়াগুলো পিসিতে লিখে রাখতে পারেন। প্রতিদিন সেটা নিয়ে কাজ করতে পারেন এবং নতুন কিছু যোগ করতে পারেন।

blogger-techshohor

ব্যাটম্যান ভয়েস
আমাদের সকলেরই একটা ব্যাটম্যান ভয়েস আছে। আপনারও আছে। আজকে থেকে চেষ্টা করুন সেটাকে টেনে বের করে নিয়ে আসার।

একটা বিষয়ে বিশ্বে মিলিয়ন ব্লগ পোষ্ট আছে। তবে আপনি যখন সে বিষয় নিয়ে লিখবেন তখন সেটা আপনার নিজস্ব স্টাইলে লিখবেন। নতুন কিছু যোগ করবেন, আপনার মতামত তুলে ধরবেন যাতে সেটা কারো কপি না হয়ে যায়।

আপনি লিখবেন শুধু আপনার মতো করে, যা নিজস্ব স্টাইল তৈরি করতে সাহায্য করবে। এ গুণ আপনাকে অন্যদের থেকে আলাদা করবে।

এটি আপনার জন্য যেভাবে কার্যকরি হবে
নিজের মতামতকে প্রতিষ্ঠিত করার সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে লেখা। আপনাকে লেখার জন্য অনেক আন্তরিক হতে হবে। ভাবতে হবে এটার সঙ্গে অনেক বেশি সংযুক্ত হতে হবে। আপনি একটা ডায়েরি রাখতে পারেন যাতে প্রতিদিনের চিন্তাগুলো লিখে রাখতে পারেন।

চারপাশে ঘটে যাওয়া সব ঘটনা লিখে রাখা বা মনে রাখার দরকার নেই, তবে এর মধ্য থেকে দু’একটি ঘটনা নিয়ে লিখতে থাকুন। এভাবেই চর্চা চালিয়ে যান। এটা আপনার মধ্যে ভয়ংকর সুপারপাওয়ার তৈরি করবে।

সাহসিকতা
‘যে কোনো কিছু করা সম্ভব যদি আপনার পর্যাপ্ত নার্ভ থাকে’- জনপ্রিয় লেখক জে কে রাউলিংয়ের এ কথা একবারে বাস্তব। প্রত্যেক সফল ব্লগার ও লেখকের প্রচন্ড সাহসিকতা নিয়েই এগিয়ে যেতে হবে। হেরে যাবার ভয় থাকলে চলবে না।

আপনার সাহসিকতাই সাহায্য করবে ভালো কিছু লিখতে ও তা ব্লগ পোষ্টের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিতে।

ভালো ব্লগার হতে নিজের মধ্যেকার গুণতে নিজেই বাইরে নিয়ে আসার চেষ্টা করতে হবে। আপনার মধ্য থেকে আপনাকেই বের করে নিয়ে আসতে  হবে। প্রথমত, সবাই আপনার সাথে একমত নাও হতে পারে, কেউ কেউ এটাকে অপছন্দই করতে পারে। কিন্তু বিশ্বাস করুন এর মধ্য দিয়েও আপনি কিছু শিখতে পারবেন প্রতিমূহর্তে।

এটি আপনার জন্য যেভাবে কার্যকরি হবে
এখানে একমাত্র উপায় হচ্ছে সবকিছুর ভেতর দিয়ে লেখাটকে চালিয়ে যাওয়া। আপনি যদি সমালোচনার ভয়ে হাত গুটিয়ে বসে থাকেন তাহলে কখনও এগুতে পারবেন না। ধৈর্য নিয়ে লিখতে হবে। এর ফলস্বরূপ ভালো কিছু আপনি পাবেনই।

আরও ভালো হতে পারে আপনি যদি কমিনিউটিতে যেসব ভালো লেখক আছেন তাদের সঙ্গে গেটটুগেদার করেন ও আইডিয়া নেন।

একই সঙ্গে নিয়মিত হ্যাশট্যাগ চেক করুন। এ থেকে জানতে পারবেন চারিদিকে কি ঘটছে। ট্রেন্ডিং বিষয়গুলো কী। এগুলো থেকে আইডিয়া নেওয়ার চেষ্টা করুন।

rubel

আরও পড়ুন

*

*

Related posts/