ব্লগ লেখায় অমনোযোগী : জেনে নিন ৫ টিপস

মোশাররফ রুবেল, অ্যাপ ডেভেলপার  অতিথি লেখক : কথায় আছে, সহজ কথা যায় না বলা সহজে। একটা ভালো লেখা পড়তে যতটা সহজ ও সুখপাঠ্য মনে হয়, লেখালেখিটা তেমন সহজ নয়। আনন্দের সঙ্গে লেখালেখি করতে পারলেই শুধু এটা সম্ভব। কেননা লেখার মধ্যে সুখ খুঁজে না পেলে বুঝতে হবে অমনোযোগিতা তৈরি হয়েছে। তখন লেখালেখি করা আরও কঠিন হয়ে যায়।

অনলাইনে লেখালেখির সময় অনেক কিছু আপনার মনোযোগ কেড়ে নিতে পারে, যেমন -ফেইসবুক নোটিফিকেশন, ই-মেইল ইত্যাদি। আপনি হয়তো বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছেন সমস্যাটা দূর করার জন্য।

এর সঙ্গে যোগ করে নিন কারিগরি দিক বিবেচনায় এ টিউটোরিয়ালের কিছু টিপস। এগুলো আপনাকে সহায়তা করবে। তবে হ্যাঁ, আপনাকে বলে রাখি লেখালেখিতে মনোযোগ ধরে রাখার মূল বিষয় হলো আনন্দের সঙ্গে কাজটি করা ও লেখালেখিটাকে প্রচন্ডভাবে ভালবাসা।

blogging-336376_1280

নিজের ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে লিখুন ব্লগওয়ার্ডপ্রেস ডিসট্রাকশন ফ্রি লেখার মোড ব্যবহার করুণ নিয়মিত। কেননা লেখালেখিতে অনেক বেশি মনোযোগ দিতে হয়। অথচ আপনি যখন ওয়ার্ডপ্রেসে লিখছেন, তখন সাইডবারের লেখা/অপশনগুলো আপনার মনোযোগ বিচ্যুত করতে পারে।

লেখার জন্য ওয়ার্ডপ্রেসে জায়গা থাকে অল্প একটু, বাকি জায়গায় অন্য অপশনে ভরপুর থাকে। তাই আপনাকে ডিসট্রাকশন ফ্রি লেখায় সাহায্য করতে ওয়ার্ডপ্রেস নতুন ভার্সনে ডিসট্রাকশন ফ্রি লেখার মোড অপশনটি নিয়ে এসেছে।

এ অপশনে আপনি শুধু একটি ডিসট্রাকশন ফ্রি ইন্টারফেস পাবেন, সেখানে শুধু আপনি কার্সর ছাড়া বাকি সব পরিষ্কার দেখতে পাবেন। কার্সরকে যদি একটু নাড়াছাড়া করেন তাহলে একটা ছোট টুলবার দেখতে পাবেন, যেখানে কিছু বাটন আছে।

হ্যাঁ, আপনি হয়তো ভাবছেন সাইডবার দেখতে না পওয়ায় এডিট করার অপশনটা হারিয়ে ফেলছেন, কিন্তু না আপনি এ অপশন থেকেই লেখা এডিট করতে পারবেন। তবে বেশিরভাগ ভালো লেখকরা বলে থাকেন- লেখার সময় এডিট না করাই ভালো। কারণ, তা ভালো লেখার ধারাকে নষ্ট করে।

আরও মনোযোগী হয়ে লিখতে মাল্টি-ট্যাব ব্রাউজিংকে বন্ধ রাখুন। আপনি যখন অনলাইনে থাকায় অবস্থায় ব্লগ পোষ্ট লিখছেন, তখন অনলাইনের অন্যান্য কার্যক্রম অনেক বেশি সময় নিয়ে। এটি লেখার মাঝে বিরতি তৈরি করছে।

আপনি বারবার করে সোস্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলো চেক করছেন, যা আপনার লেখায় মারাত্নক ক্ষতি করছে। তাই, খুব বেশি ভালো হয় আপনি লেখার সময় যদি ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ রাখেন।

bloger-women-techshohor

এমন পরিস্থিতিতে লেখার সময় আপনার টিউটোরিয়াল পোষ্ট দেখার প্রয়োজন হলে ইন্টারনেট ছাড়া অন্য উপায় বের করতে হবে। এ পদক্ষেপ আপনাকে ইন্টারনেট ব্যবহার থেকে দূরে রাখবে।

এমন ক্ষেত্রে আপনি কন্ট্রোলড মাল্টি-ট্যাব ব্রাউজিং ক্রোম এক্সটেনশন ব্যবহার করতে পারেন। যারা ফায়ারফক্স ব্যবহার করেন তারা উইন্ডো অ্যান্ড ট্যাব লিমিটার এডঅন ব্যবহার করতে পারেন।

আপনি লিখতে বসা মাত্রই ঠিক করে ফেলুন, আপনার লিখতে কয়টা ট্যাব লাগবে। তারপর শুধু তাই খুলুন।

নির্বিঘ্নে লেখালেখির জন্য করতে পারেন টাইম সেট। আপনি যখন কোনো কাজের জন্য নির্দিষ্ট সময় সেট করে নেবেন, তখন তা এক্সট্রা মটিভিশিন হিসাবে কাজ করবে । আপনি তখন সময়মত শেষ কাজটা শেষ করে ফেলতে পারবেন ।

কারণ, লেখার জন্য সময় সেট করে নিলে আপনি শুধু তখন লেখার কাজই করবেন। অন্যদিকে মনযোগ কম যাবে।

ধরুন, আপনি একটি লেখার জন্য ২৫ মিনিট ঠিক করে নিলেন। এ সময়ে তা হয়ে গেলে পরের ৫ মিনিট ব্রেক নিয়ে আরেকটি লেখা শুরু করতে পারেন। এ ক্ষেত্রে, ফোকাস বুষ্টার টাইমার সফটওয়্যারটা আপনাকে সাহায্য করতে পারে। এটার অনলাইন ও অফলাইন দুই ভার্সনই আছে।

rubel

আরও পড়ুন: 

Related posts

*

*

Top