আপত্তিকর ছবি থেকে মুক্তি দিলো স্ন্যাপচ্যাট

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : যোগাযোগ নিরবচ্ছিন্ন রাখার জন্য সারাক্ষণ খোলা থাকে মোবাইল, সেই সঙ্গে মোবাইলের তাৎক্ষনিক বার্তা সেবার অ্যাপও। এ ধরনের একটি অ্যাপ স্ন্যাপচ্যাট। জরিপের তথ্য মতে, যুক্তরাজ্যের প্রতি ৪ জন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের মধ্যে ১ জন এই অ্যাপ ব্যবহার করেন। আর যুক্তরাষ্ট্রে এই সংখ্যা মোট জনসংখ্যার ১০ শতাংশ।

অফিসে কাজ করছেন, এমন সময় নোটিফিকেশনের শব্দ। মোবাইলে চোখ রাখার পরই দেখলেন আপত্তিকর ছবি কেউ একজন পাঠিয়েছে। ছবির প্রেরক যেই হোক, কাজেরে ব্যস্ততার মুহূর্তে এমন ঘটনায় মেজাজ খারাপ হওয়ারই কথা। তাছাড়া এমন ছবি পারিবারিক অশান্তির কারণও হতে পারে।

বিশ্বের জনপ্রিয় একটি তাৱক্ষণিক বার্তা ও ছবি পাঠানোর সেবা হওয়ায় এ ধরনের ঘটনায় স্ন্যাপচ্যাট কর্তৃপক্ষও চিন্তিত। অ্যাপটির নির্মাতা ইভান স্পেইগেল জানান, আপত্তিকর কনটেন্ট স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুছে ফেলতে সেটিংসে পরিবর্তন আনা হয়েছে। কোনো ব্যক্তি এ ধরনের ছবি পাঠালে তা সনাক্ত করার পর পরবর্তীতে পাঠানো সব ছবিই মুছে যাবে।

Snapchat_pic
২৩ বছর বয়সী এ অ্যাপ নির্মাতা আরো জানান, ৭০ শতাংশ নারীদের আপত্তিকর ছবি পাঠানো হয়।

প্রতিদিন ৪০০ মিলিয়ন ছবি বিনিময় হয় স্ন্যাপচ্যাটে। সম্প্রতি প্রযুক্তিবিষয়ক সাইটগুলোতে বলা হয়, ফেইসবুক অ্যাপটি কেনার প্রস্তাব দেয়। তবে ২০১৪ সালের আগে এই অ্যাপ বিক্রি করা হবে না বলে জানায় স্ন্যাপচ্যাট কর্তৃপক্ষ।

টেলিগ্রাফ অবলম্বনে তারেক হাবিব

Related posts

*

*

Top