Maintance

ঢাকায় এক মাসেই উবারে ১৫ লাখ রিকোয়েস্ট

প্রকাশঃ ২:২৬ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ৩, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৯:৪৩ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ৩, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ঢাকায় রাইড শেয়ারিং অ্যাপ উবার চালুর পর  শুধু গত নভেম্বরেই গাড়ির জন্য ১৫ লাখের বেশি রিকোয়েস্ট পেয়েছে। আর গত মাসেই নতুন করে প্ল্যাটফর্মটিতে সাড়ে ৯ হাজার চালক নিবন্ধন করেছে।

ঢাকায় উবার যাত্রার এক বছর উপলক্ষ্যে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান উবারের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়ার সেন্ট্রাল অপারেশনের প্রধান প্রদীপ পরেমেশ্বরণ।

তিনি জানান, এই এক বছরে সাইফুল ইসলাম নামের এক চালক সর্বোচ্চ তিন হাজার ৩৫০টি ট্রিপ দিয়েছেন। যা ঢাকায় ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ট্রিপ।

এছাড়াও চলতি বছরের নভেম্বরে দুই লাখের বেশি মানুষ উবার অ্যাপ ব্যবহার করে গাড়িতে যাতায়াত করেছেন। প্রতিমাসে প্ল্যাটফর্মটিতে গড়ে ১০ হাজার চালক যুক্ত হচ্ছেন, আর প্রতিবার রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে গাড়ি পেতে গড়ে মাত্র ৭ মিনিট অপেক্ষা করতে হয় বলে জানান প্রদীপ পরেমেশ্বরণ।

প্রদীপ পরেমেশ্বরণ বলেন, ঢাকায় উবার কার্যক্রম শুরু করার পর থেকে নানা ধরনের চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে। তবে স্মার্টফোনের মাধ্যমে  প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে বর্তমান অবকাঠামোর মাধ্যমেই যোগাযোগ ব্যবস্থার পরিবর্তনে কাজ করছে উবার।

উবারের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের প্রেসিডেন্ট অমিত জেন বলেন, উবারের যাত্রা ২০০৯ সালে। তারপর থেকেই বিশ্বব্যাপী অ্যাপের মাধ্যমে চালক এবং যাত্রীদের একটা সংযোগ স্থাপনের কাজ করে আসছে। ঢাকায় ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা বেশি। এই বিপুল সংখ্যক গাড়িকে অ্যাপের মাধ্যমে চালক ও যাত্রীদের সংযোগ করিয়ে দেয় উবার। ঢাকায় ইতোমধ্যে আমাদের অ্যাপটি ব্যাপক জনপ্রিয় হয়েছে।

যাত্রী এবং চালকের নিরাপত্তার দিকটিকে তারা খুব প্রাধান্য দেন বলেও জানান তিনি।

এর আগে গত বছরের ২২ নভেম্বর ঢাকায় উবারে অ্যাপের মাধ্যমে গাড়ি শেয়ারিং সেবা শুরু করে সানফ্র্যান্সিসকো ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটি। ৩৩তম শহর হিসেবে ঢাকায় তখন উবার যাত্রা করে। আর চলতি বছরে উবার একই অ্যাপের সাহায্যে মোটরবাইক সেবা শুরু করে।

উবার চালু করার দুদিন পরেই বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথোরিটি (বিআরটিএ) সেবাটিকে দেশে নিষিদ্ধ করে। কারণ অ্যাপভিত্তিক এমন পরিবহণ সেবা দেওয়ার জন্য কোনো আইন ছিল না সংস্থাটির।

কিন্তু পরে বিআরটিএ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে উবার কর্তৃপক্ষ। তখন সড়ক যোড়াযোড় ও সেতুমন্ত্রী ওবাইদুল কাদের বলেন, উবার তাদের সেবা দিতে পারবে। তবে অল্প সময়ের মধ্যেই তাদের একটি নীতিমালার আওতায় আনা হবে।

ইতোমধ্যে বিআরটিএ সেই নীতিমালার খসড়া প্রণয়ন করেছে। যা মন্ত্রীসভায় চূড়ান্ত অনুমোদন পেলে অ্যাপভিত্তিক এমন পরিবহণ সেবাকে নীতিমালার আওতায় আনা যাবে।

রোববার উবার সংবাদ সম্মেলন করলেও সাংবাদিকদের কোনো প্রশ্নের উত্তর দেননি কর্মকর্তারা।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/