Maintance

গুগল ফেইসবুক অ্যাংরিবার্ডসদের নিয়ে আসছে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড

প্রকাশঃ ৩:৫৪ অপরাহ্ন, নভেম্বর ১৬, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:১৬ অপরাহ্ন, নভেম্বর ১৮, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের তথ্যপ্রযুক্তির বর্তমান অবস্থা, স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে তুলে ধরতে পঞ্চমবারের মতো বসছে ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড’ আয়োজন।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) চারদিনের এই আয়োজন শুরু হবে ৬ ডিসেম্বর। চলবে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এটি দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সবচেয়ে বড় আয়োজন।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারের জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে আয়োজনের বিস্তারিত জানায় আয়োজক তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ। 

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক আয়োজনের বিস্তারিত তুলে ধরতে গিয়ে বলেন, ‘রেডি ফর টুমরো’ স্লোগান নিয়ে এবারের আয়োজন হচ্ছে। যেখানে গত ৯ বছরে প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের অর্জন তা তুলে ধরা হবে।

পলক বলেন, এবারের আয়োজনের মধ্য দিয়ে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি জায়ান্টদের কাছে আমাদের উন্নয়নকে তুলে ধরবো। এর পাশাপাশি বিগ ডেটা অ্যানালিটিক্স, মেশিন লার্নিং, ফিন্টেক, বায়োটেক, কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা, রোবোটিক্সের মতো আধুনিক এবং চলমান প্রযুক্তিতে নিজেদের প্রস্তুত করছি।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চারদিনের অনুষ্ঠানে প্রায় ৭০ জন বিদেশিসহ শতাধিক বক্তা ২৯টি সেশনে অংশ নেবেন। গুগল, নুয়ান্স, ফেইসবুক, অ্যাংরিবার্ডস, কোয়ালকম, মটোরালাসহ শীর্ষ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরাও সেশনে নেবেন।

এবারের ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে  সফটওয়্যার, ই-গভর্নেন্স, মোবাইল ইনোভেশন, ই-কমার্স, স্টার্টআপ বাংলাদেশ, এক্সপেরিয়েন্স, মেইড ইন বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক জোন নামে আটটি জোন থাকছে।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, এটি এখন আর আগের মতো শুধু প্রদর্শনীর মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। বরং এখান থেকে এখন প্রতিষ্ঠানগুলো স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারগুলো থেকে কাজের অ্যাসুরেন্স পায়। গত বছর এর পরিমাণ ছিল প্রায় ৭০ কোটি টাকা।   

৬ ডিসেম্বর আয়োজনটির উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরের দিন ৭ ডিসেম্বর  এ মেলায় ফিলিপাইন, মালদ্বীপ, সৌদি আরব, আফগানিস্তানসহ বিভিন্ন দেশের মন্ত্রীদের উপস্থিতিতে মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক  উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

মেলায় প্রবেশে কোনো টিকিট থাকছে না। তবে দর্শনার্থীদের একটি নিবন্ধন করতে হবে। এই ঠিকানায় গিয়ে অনলাইনেই নিবন্ধন করা যাবে। এবার প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ আয়োজনে তথ্যপ্রুক্তি বিভাগের সহযোগী হিসেবে থাকছে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি), বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়ার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্প।

এছাড়াও পার্টনার হিসেবে থাকছে বাক্য, বিসিএস, ই-ক্যাব, বিআইজেএফ, বিবিআইটি, বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম এবং সিটিও ফোরাম।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব সুবীর কিশোর চৌধুরী, কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার সরকারসহ তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/