Maintance

এসিএম-আইসিপিসি ঢাকায় বুয়েটের আধিপত্য

প্রকাশঃ ৭:৩৩ অপরাহ্ন, নভেম্বর ১১, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১১:৩৭ পূর্বাহ্ন, নভেম্বর ১২, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বের সবচেয়ে মর্যদাপূর্ণ প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার আসর এসিএম-আইসিপিসি’র ঢাকা অঞ্চলের পর্বে শীর্ষ দুই স্থান দখল করেছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি দল।

এছাড়াও শীর্ষ দশের হিসাবে পাঁচটি দখল করেছে বুয়েট। আর তিনটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

শুক্রবার ও শনিবার দুদিনব্যাপী রাজধানীর এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটিতে ঢাকা পর্বের চূড়ান্ত আসর বসেছিল।

প্রতিযোগিতায় ১০টি সমস্যার সবগুলোর সমাধান করে চ্যাম্পিয়ন হয় বুয়েটের দল ‘বুয়েট ড্রেচারি’; ১০টি সমস্যার সমাধার করে দ্বিতীয় হয় ‘বুয়েট নেভারমাইন্ড’।

এছাড়াও নয়টি করে সমস্যা সমাধান করে তৃতীয় ও চতুর্থ হয়েছে যথাক্রমে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল সাস্ট_টিমএক্স এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দল  ডিইউ ডার্কস্ল্যায়ার্স।

Screenshot_2

আটটি করে সমস্যা সমাধান করে পঞ্চম, ষষ্ঠ এবং সপ্তম স্থানেও রয়েছে বুয়েটের আরও তিনটি দল।

পুরো ফলাফল পাওয়া যাবে এই ঠিকানায়

এসিএম-আইসিপিসি হচ্ছে, অ্যাসোসিয়েশন ফর কম্পিউটিং মেশিনারি-ইন্টারন্যাশনাল কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং কনটেস্ট। অর্থাৎ, দলভিত্তিক বার্ষিক প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা। ঢাকা পর্বের প্রতিযোগিতায় এবার ১৫০টি দল অংশ নেয়। যাদের গত ২৩ সেপ্টেম্বর অনলাইনে একটি প্রাক-নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে আসতে হয়েছে।

অনুষ্ঠানের সমাপণীতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

সব জায়গায় প্রোগ্রামিং প্রয়োজন আছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের দেশের প্রায় এক লাখ ৭০ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় সাড়ে চার কোটি শিক্ষার্থী রয়েছে। এদের যদি কোনো ভাবে প্রোগ্রামিং নিয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া যায় তাহলে দেশকে প্রযুক্তিতে উন্নত করতে দেরি লাগবে না।

পলক বলেন, এভাবে প্রশিক্ষণ দিয়ে প্রোগ্রামিংয়ে দক্ষ করে তুলতে থাকলে অচিরেই এসিএম-আইসিপিসি আমরা আয়োজক হতে পারবো।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমি কিছুদিন আগেই গুগলের প্রধান কার্যালয় সফর করেছি। সেখানে গিয়ে দেখেছি গুগল বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দক্ষ প্রোগ্রামির খুঁজে নিয়ে চাকরি দিয়েছে। এভাবেই আমরা এগিয়ে যাবো।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর জামিলুর রেজা চৌধুরী।

এসিএম-আইসিপিসি ঢাকা পর্বের আয়োজন করেছে এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়। আর সহযোগিতা করেছে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ এবং তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি)।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/