Maintance

এমএনপি চালু হবে আগামী বছর মার্চে

প্রকাশঃ ৬:১৭ অপরাহ্ন, নভেম্বর ৭, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১০:৫০ অপরাহ্ন, নভেম্বর ৭, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আগামী বছর দেশে চালু হতে যাচ্ছে নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলের সুযোগ বা এমএনপি। দীর্ঘ প্রতীক্ষিত এই সুবিধা দিতে নির্বাচিত অপারেটর ইনফোজিলিয়নকে নোটিফিকেশন পত্র প্রদান করেছে বিটিআরসি।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ এই নোটিফিকেশন পত্র প্রদান করেন।

তবে এখনো লাইসেন্স দেওয়া হয়নি ইনফোজিলিয়ান বিডি-টেলিটেক প্রতিষ্ঠানটিকে।চলতি মাসের ৩০ নভেম্বরের মধ‍্যে বিটিআরসিকে ১১ কোটি ৬০ লাখ টাকা প্রদান করলে মিলবে লাইসেন্স।

সংবাদ সম্মেলনে ইনফোজিলিয়ান বিডি-টেলিটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মামরুর হোসেন বলেন, সব প্রক্রিয়া শেষ করে আগামী বছর মার্চ-এপ্রিলের মধ‍্যেই দেশে করা হবে এমএনপি।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ বলেন, এমএনপি লাইসেন্সের জন্য ইনফোজিলিয়ান বিডি-টেলিটেককে নির্বাচিত করার পর গত ১৫ অক্টোবর সরকারের চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়া গেছে। লাইসেন্স অ্যাকুইজিশন ফি এবং কোম্পানি গঠনের জন্য ৩০ দিন সময় দিয়ে গত ১ নভেম্বর প্রতিষ্ঠানটিকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এই সেবা গ্রাহকের স্বাধীনতা আরো নিশ্চিত করবে এবং গ্রাহক সেবাও বৃদ্ধি পাবে।

এ সেবা চালু হওয়ার পর গ্রাহকরা ৩০ টাকা ফি দিয়ে নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর পরিবর্তনের আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তার অপারেটর বদলে যাবে। পুনরায় অপারেটর পরিবর্তন করতে হলে তাকে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

এর আগে গত মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মোবাইল নম্বর পোর্টাবিলিসটি (এমএনপি) সেবা চালুর জন্য ইনফোজিলিয়নকে লাইসেন্স দেওয়ার প্রস্তাবে চূড়ান্ত অনুমোদন দেন। গত সেপ্টেম্বরে জয়েন্ট ভেঞ্চার কোম্পানি ইনফোজিলিয়নের নাম প্রস্তাব করে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে পাঠানো হয়।

অন্তত এক দশক ধরে বাংলাদেশে এমএনপি চালুর আলোচনা থাকলেও এতদিন পর্যন্ত তা হয়নি। এখন এটি চালুর পর্যায়ে আসায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন অনেকে। বিশেষ করে যারা অপারেটরগুলোর সেবা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরক্ত।

এর আগে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে একবার নিলাম আহবান করেও শেষ পর্যন্ত নিরাপত্তার কথা বলে তা বাতিল করা হয়। পরে সিদ্ধান্ত বদলে নিলামের পরিবর্তে সরকার দরপত্র আহবান করে। আগ্রহী পাঁচটি কোম্পানি এ সেবা দিতে আবেদন করে।

ইনফোজিলিয়ন ছাড়া অন্য চার কোম্পানি হলো- রিভ নম্বর লিমিটেড, গ্রিনটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, টেলিটেক কনর্সোটিয়াম, ব্রাজিল-বাংলাদেশ কনর্সোটিয়াম ও রুটস ইনফোটেক।

*

*

Related posts/