Maintance

ব্লু হোয়েল নিয়ে এবার বিটিআরসির নামে ভুয়া বার্তা

প্রকাশঃ ১২:৫৯ পূর্বাহ্ন, অক্টোবর ১৩, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:৩৩ অপরাহ্ন, অক্টোবর ১৪, ২০১৭

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ‘১৩ অক্টোবর শুক্রবার রাত ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত এক ঘন্টা বাংলাদেশের সকল অ‍্যান্ড্রয়েড ফোনে ব্লু হোয়েল গেইম ঢুকিয়ে দেয়া হবে।’

‘যা প্রবেশের ফলে আপনার ফোনের সকল ব‍্যক্তিগত তথ‍্য, ফেইসবুক, টুইটার, হোয়াটসঅ‍্যাপ, আইএমওসহ সকল কিছু ধ্বংস হয়ে যাবে। তাই শুক্রবার রাত ৯ থেকে ১০টা পর্যন্ত ফোন বন্ধ রাখুন। আর দেশের সেবায় এটি বেশি বেশি ফরোয়ার্ড করুন। জনসচেতনতায় বিটিআরসি।’

বৃহস্পতিবার রাতে ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়ে এই বার্তা। আর তা নিয়ে আতংকিত হয়ে পড়েন অনেকেই। টেকশহরডটকমের কাছে অনেকেই জানতে চান বিষয়টি নিয়ে।

আসলে এটি একটি ভুয়া বার্তা। বিটিআরসি জানিয়েছে, এটি একটি ভুয়া, বানোয়াট বার্তা। এতে আতংকিত হবার কিছু নেই। কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছে।


কয়েকদিন আগে ব্লু হোয়েল নিয়ে আরেকটি ভুয়া বার্তা ভাইরাল করা হয়েছিল। সেই বার্তাটিতে বলা হয়েছিল, ‘+917574999093 নম্বরটি কুখ্যাত ‌’ব্লু হোয়েল গেইম’ কর্তৃপক্ষের। এতে ফোন কল অথবা রিসিভ করবেন না। এই বার্তাটি আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। ব্লু হোয়েলের আঘাত থেকে আপনার পরিবারকে রক্ষা করুন।’।

ফেইসবুক, মেসেঞ্জার এবং এসএমএসে ভাইরাল হওয়ার বার্তাটিতে থাকা ফোন নম্বটি ছিল ভারতের গুজরাট রাজ‍্যের। এই নম্বরে কেউ নিজ থেকে ফোন করলেও ব্লু হোয়েলের অস্তিত্ব পাওয়া যায় না। প্রথমে ভারতের অনলাইনে একটি চক্র ভুয়া বার্তাটি ছড়িয়েছিলো। এরপর বাংলাদেশেও তা ছড়িয়ে যায়।

এছাড়া ব্লু হোয়েল নিয়ে সংবাদ প্রচারণার পর অনেকেই অ‍্যাপটি খুঁজে পেতে গুগল সার্চ করেন। মানুষের এই আগ্রহকে কাছে লাগিয়ে এক শ্রেণীর মানুষ অনলাইনে ছড়াচ্ছে ব্লু হোয়েলের ভুয়া অ‍্যাপ। অ‍্যাপগুলো মোবাইলে ইন্সটল করলে মূলত বিজ্ঞাপন প্রদর্শিত হয়। অনেক ভুয়া অ‍্যাপ ইন্সটলের ফলে ব‍্যক্তিগত তথ‍্য চুরি হতে পারে।

গুগলের প্লে স্টোর বা অ‍্যাপলের অ‍্যাপ স্টোরে ব্লু হোয়েল গেইমের কোনো অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যাবে না। এমন কি ডার্ক ওয়েব ছাড়া গুগলে খুঁজেও পাওয়া যাবে না আসল ব্লু হোয়েল গেইম। কেননা সাধারণভাবে উন্মুক্ত নয় গেইমটি। আর চাইলেই কেউ ব্লু হোয়েল গেইমটি ফোনে ইন্সটল করতে পারে না। যে গেইমটি খেলতে চায় তাকে নিজ থেকে অ‍্যাপটি ইন্সটল করে নিতে হয়। এরপর রেজিস্ট্রেশন, এতে কারও আমন্ত্রণ, অ্যাডমিন অনুমতির পরই কেবল গেইমটি খেলা যায়।

তাই এই ধরনের বার্তা আসলেই ভিত্তিহীন। ইতোমধ্যে বার্তাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নানা ভাবে ছড়িয়েছে এবং ছড়াচ্ছে। তবে এসব যে একেবারেই ভুয়া বার্তা সেটি কেউই যাচাই করছেন না।

তাই ব্লু হোয়েল নিয়ে ভুয়া তথ‍্য, শেয়ার বা ইনবক্স করা থেকে বিরক্ত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন প্রযুক্তি বিশ্লেষকরা।

*

*

Related posts/