Maintance

বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ড পেল ৪২ প্রতিষ্ঠান

প্রকাশঃ ৭:৩৮ অপরাহ্ন, অক্টোবর ১০, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১১:২২ পূর্বাহ্ন, অক্টোবর ১১, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রথমবারের মতো ‘বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস’ পেয়েছে দেশের ৪২ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস বা বেসিস ১৭ ক্যাটাগরিতে প্রতিষ্ঠানগুলো এই পুরস্কার দিয়েছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর কাকরাইলস্থ আইডিইবি মিলনায়তনে দেশের সম্ভাবনাময় ও উদ্ভাবনী প্রকল্পগুলোকে এই পুরস্কার দেয় সংগঠনটি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

তিনি বলেন, এই প্রথম এ ধরণের আয়োজনের জন্য বেসিসকে ধন্যবাদ জানাই। আমরা প্রথম ও দ্বিতীয় শিল্প বিল্পবে অংশ নিতে পারিনি। কিন্তু তৃতীয় শিল্প বিল্পব ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরেছি। পরবর্তী শিল্প বিল্পবেও আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলো কাজ করতে শুরু করেছে। এআর, ভিআর, ইন্টারনেট অব থিংসসহ পরবর্তী নানা প্রযুক্তির খাতে আমাদের বড় সম্ভাবনা রয়েছে। তাই সেই শিল্প বিপ্লবের সঙ্গে আমাদের ৮০ শতাংশ তরুণকে সম্পৃক্ত করতে কাজ করছি।

বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, প্রথমবার আয়োজন করেই আমরা প্রচুর সাড়া পেয়েছি। আন্তর্জাতিক মানে বিচারিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বিজয়ী এসব প্রকল্পগুলো খুবই সম্ভাবনাময় ও উদ্ভাবনীমূলক। সেরা প্রকল্পগুলোকে আমরা অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস এর জন্য মনোনীত করবো। আমরা আমাদের প্রকল্পগুলোকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে পারবো।

তিনি বলেন, গতবার অ্যাপিক্টায় অংশ নিয়েই আমরা একটি মেরিট অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলাম। এবার সকল ক্যাটাগরিতে আমাদের প্রকল্প থাকবে। ১৬টি দেশের কয়েক’শ প্রতিযোগির মধ্যে যদি আমরা বিজয়ী করতে পারি সেটি বাংলাদেশের জন্য গর্বের হবে। একই সঙ্গে এসব প্রকল্প আন্তর্জাতিক বাজারেও সম্প্রসারিত হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হবে।

প্রথমবারের এই আয়োজনে ১৭ ক্যাটাগরিতে মোট ৩৬৫ প্রকল্প জমা পড়ে। সেখান থেকে অভিজ্ঞ বিচারকরা ১৮১টি প্রকল্প চূড়ান্ত বাছাই পর্বের জন্য মনোনীত করেন। প্রায় ৪০ জন বিচারক সংশ্লিষ্টদের প্রেজেন্টেশন ও যাবতীয় ডকুমেন্টেশন পর্যালোচনার মাধ্যমে ৪২টি প্রকল্প বিজয়ী নির্বাচন করেছেন বলে পুরস্কার কমিটির আহবায়ক এম রাশিদুল হাসান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বেসিসের পরিচালক উত্তম কুমার পাল, সোনিয়া বশির কবির, লিডসফট বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেখ আবদুল আজিজ, বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ, বিচারকবৃন্দ, বেসিসের সাবেক সভাপতি ও নির্বাহী কমিটির সদস্যবৃন্দ, উপদেষ্ঠাবৃন্দ, বেসিসের স্থায়ী কমিটির নেতৃবৃন্দ ও বেসিস সদস্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ।

পুরস্কার প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকা এই ঠিকানায় দেখা যাবে।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/