Maintance

ভুয়া ম্যাসেজে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ব্লু হোয়েল, সতকর্তা জরুরি

প্রকাশঃ ২:৩১ অপরাহ্ন, অক্টোবর ৯, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৭:৩৫ অপরাহ্ন, অক্টোবর ৯, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ‘+917574999093 নম্বরটি কুখ্যাত ‌’ব্লু হোয়েল গেইম’ কর্তৃপক্ষের। এতে ফোন কল অথবা রিসিভ করবেন না। এই বার্তাটি আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। ব্লু হোয়েলের আঘাত থেকে আপনার পরিবারকে রক্ষা করুন।’

কয়েকদিন ধরে ফেইসবুক ওয়াল, মেসেঞ্জার এমনকি এসএমএসে এমন বার্তা অনেকেই পেয়েছেন। যাচাই না করেই বিষয়টি ব‍্যক্তিগত ওয়াল ও বন্ধুদের ইনবক্স করছেন অনেকেই। নম্বরটিতে ফোনকল করতে, এসএমএস বা তার থেকে আসা ফোন রিসিভ করতেও বারণ করছেন। সঙ্গে এই বার্তাটি অন্য আরো নির্দিষ্ট বা অসংখ্য লোককে ছড়িয়ে দেওয়ার অনুরোধ করছেন।

তবে এটি একটি ভুয়া নম্বর এবং এর মাধ্যমে সামাজিক মাধ্যমে ব্লু হোয়েল নিয়ে আতঙ্ক ছড়ানো হচ্ছে।

আরো পড়ুন: দেশে ব্লু হোয়েলের খোঁজ করতে বিটিআরসিকে নির্দেশনা

গত বৃহস্পতিবার রাজধানীতে এক কিশোরীর নিজ কক্ষে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করার পর সেটিকে ব্লু হোয়েলের কারণে ‘আত্মহত্যা’ বলে প্রচার হয়।

বিভিন্ন গণমাধ্যমে তার বাবার বরাতে এমন সংবাদ ছাপা হতে থাকে। কিন্তু নিউমার্কেট থানা পুলিশ বলছেন, তারা সেই ‘আত্মহত্যার’ কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারেননি। ওই কিশোরীর সুরতহাল করার পর তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলে জানায় পুলিশ।

একই সঙ্গে পুলিশ জানায়, কিশোরী যে ফোন ব্যবহার করতো তা তার মায়ের। পুলিশ ফোনটি পর্যবেক্ষণ করে ব্লু হোয়েল গেইমের কোনো অস্তিত্ব পায়নি।

ফেইসবুক, মেসেঞ্জার এবং এসএমএসে যেসব বার্তা আসছে সেখানে দেওয়া ফোন নম্বটি ভারতের গুজরাট রাজ‍্যের। এই নম্বরে কেউ নিজ থেকে ফোন করলেও ব্লু হোয়েলের অস্তিত্ব পাওয়া যায় না।

প্রথমে ভারতের অনলাইনে একটি চক্র ভুয়া বার্তাটি ছড়িয়েছিলো। যা এখন বাংলাদেশে ছড়াচ্ছে। ব্লু হোয়েল গেইমটির খেলার জন্য কেউ ফোন দেয় না। যে গেইমটি খেলতে চায় তাকে নিজ থেকে অ‍্যাপটি ইন্সটল করে নিতে হয়। এরপর ব্লু হোয়েলের এডমিন অনুমতি দিলেই কেবল গেইমটি খেলা যায়। তাই এই ধরনের বার্তা আসলেই ভিত্তিহীন।

ইতোমধ্যে বার্তাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নানা ভাবে ছড়িয়েছে এবং ছড়াচ্ছে। তবে এটি যে একেবারেই ভুয়া বার্তা সেটি কেউই যাচাই করছেন না।

অভিষেক দেবনাথ অভ্র নামের একজন ইতোমধ্যে এমন ভুয়া বার্তা পেয়ে বিরক্ত হয়ে তার টাইমলাইনে পোস্ট করেছেন, ব্লু হোয়েল গেইম নিয়ে ইনবক্সে কপি করা সতর্কবাণী পাঠানো প্রতিটি জনরদরদী প্রাণীকে আনফ্রেন্ড করা হবে। শুভ সকাল।

ব্লু হোয়েল নিয়ে সংবাদ প্রচারণার পর অনেকেই অ‍্যাপটি খুঁজে  পেতে গুগল সার্চ করেন। মানুষের এই আগ্রহকে কাছে লাগিয়ে এক শ্রেণির মানুষ অনলাইনে ছড়াচ্ছে ব্লু হোয়েলের ভুয়া অ‍্যাপ। অ‍্যাপগুলো মোবাইলে ইন্সটল করলে মূলত বিজ্ঞাপন প্রদর্শিত হয়। অনেক ভুয়া অ‍্যাপ ইন্সটলের ফলে ব‍্যক্তিগত তথ‍্য চুরি হতে পারে।

আরো পড়ুন: দেশে ব্লু হোয়েলের ‘অস্তিত্ব’ নেই

এছাড়া গুগলের প্লে স্টোর বা অ‍্যাপলের অ‍্যাপ স্টোরে ব্লু হোয়েল গেইমের কোনো অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যাবে না। এমন কি ডার্ক ওয়েব ছাড়া গুগলে খুঁজেও পাওয়া যাবে না আসল ব্লু হোয়েল গেইম। কেননা পাবলিকভাবে উন্মুক্ত নয় গেইমটি।

এর আগে ভারতে ব্লু হোয়েল গেইমটি খেলে কয়েকটি ‘আত্মহত্যার’ ঘটনা ঘটে। তারপরই নড়েচড়ে বসে দেশটির সরকার। আদালত থেকে একটি নির্দেশনা জারি করে গুগল, অ্যাপল, মাইক্রোসফটসহ অন্যান্য প্রযুক্তি জায়ান্টগুলোকে গেইমটি তাদের প্লাটফর্মে না রাখার নির্দেশ দেয়।

একইসঙ্গে দেশটির সাইবার ক্রাইম ইউনিটকে দেশব্যাপী গেইমটির বিষয়ে সতর্ক থাকার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশেও পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউটিন এ বিষয়ে খোঁজখবর নিতে শুরু করেছে। পুলিশ কর্মকর্তারা এ বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। গেইমাররাও বলছেন সচেতন না থাকলে বিপদে পড়তে পারেন অনভিজ্ঞরা।

*

*

Related posts/