Maintance

অ্যাপল স্যামসাংয়ের প্রতিদ্বন্দ্বী হচ্ছে গুগল!

প্রকাশঃ ১২:২১ অপরাহ্ন, অক্টোবর ৬, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন, অক্টোবর ৭, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : গুগলের প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিচাই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার খুব ভক্ত। সেজন্য প্রতিষ্ঠানটির আনা ফ্ল্যাগশিপ পিক্সেল ২ এবং পিক্সেল এক্সএলে তা রাখা হয়েছে।

বিষয়টি নতুন নয়, এইআইয়ের ব্যবহার এর আগেও করেছে অ্যাপল এবং স্যামসাং। অ্যাপলের সিরি এবং স্যামসাংয়ের ব্রিক্সবি এক্ষেত্রে অনেকে চেয়ে অনেক এগিয়ে। কিন্তু পিক্সেল ফোনে এআই ব্যবহারে গুগল নতুন মাত্রা আনছে বলে জানাচ্ছেন সুন্দর পিচাই।

বুধবার বিশ্ববাজারে গুগল আটটি পণ্য নিয়ে হাজির হয়েছে। যার মধ্যে সবচেয়ে আগ্রহের বিষয়টিই ছিলো পিক্সেল স্মার্টফোন।

বিশেষজ্ঞ এবং প্রযুক্তি বিশ্লেষকরা বলছেন, অ্যাপলের আইফোন এবং স্যামসাংকে টেক্কা দিতে গুগল তাদের স্মার্টফোনে নতুন ফিচারে জোর দিয়েছে। তাদের ভাষ্য, আইফোন এবং স্যামসাংকে এখন পিক্সেল নিয়ে ভাবতে হবে। কারণ পিক্সেল ফোন দিয়েই এখন গুগল তাদের শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বীতে পরিণত হতে যাচ্ছে।

এছাড়াও গুগল সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যারে জোর দিয়ে নিজেরে উদ্ভাবনী ধারণাকে কাজে লাগিয়ে যে প্রিমিয়াম স্মার্টফোন বাজারে আনলো তা অবশ্যই অ্যাপল ও স্যামসাংয়ের মাথাব্যথার কারণ হবে।

অন্যদের সঙ্গে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হতে গুগল ইতোমধ্যেই তাদের বিপণন বিভাগ ঢেলে সাজিয়েছে। পিক্সেলের বিপণনে জোর দিতে নানা কর্মসূচীও নিয়েছে গুগল।

যদিও এক বছর আগে বাজারে আসা পিক্সেল ফোন বিশ্ববাজারের মাত্র ২ শতাংশের মতো বাজার দখল করতে পেরেছে। তবে গুগলের ‘অনিচ্ছাতেই’ এটি বাজার ধরতে পারেনি বলেও মত দেন বিশ্লেষকরা।

ফরেস্টারের প্রধান বিশ্লেষক এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট থমাস হুসন বলেন, গুগল ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনটি দেখতে কেমন, কতোটা ভালো হবে, কোন হার্ডওয়্যার প্রস্তুতকারী এটা বানাচ্ছে এটা কোনো বিষয় নয়। এখানে মূল বিষয় হচ্ছে, ক্রেতাদের কাছে সেটি কত সহজলভ্য।

আর ফোনটি সহজলভ্য করতেই ইতোমধ্যে গুগল যেসব কাজ হাতে নিয়েছে তার অন্যতম হচ্ছে, তারা একটি শক্ত সাপ্লাই চেইন তৈরিতে কাজ করছে। গুগলের সঙ্গেই ক্যারিয়ার গড়া এবং পরিবেশক নিয়োগ দিতে, ভেন্ডর তৈরি করতে এবং তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ করে তোলার কাজ করছে। যা প্রতিষ্ঠানটিকে অন্যদের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় সামিল করবে বলেই মত এই বিশ্লেষকের।

তবে অবশ্যই বাজারে দেখতে সুন্দর, ভালো কাজ করে, ডিজাইনে ভিন্নতা এবং নতুন নতুন ফিচারসমৃদ্ধ স্মার্টফোনের চাহিদা রয়েছে। আর সেদিকেই নজর দিয়েছে গুগল।

গত মাসেই গুগল তাইওয়ান ভিত্তিক স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এইচটিসির মোবাইল ইউনিট কিনে নিয়েছে। এর কারণ তাদের সঙ্গেই পিক্সেল ফোনটিকে আরো আকর্ষণীয় এবং শক্তিশালী করে তোলা। কারণ বিশ্বে জনপ্রিয় স্মার্টফোনের তালিকায় এইচটিসির নাম রয়েছে।

পিক্সেল ভারতের বাজারেও বড় ধরনের একটি প্রভাব বিস্তার করতে চায় বলে বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইপিডিসির এক গবেষণ ইঙ্গিত দিচ্ছেন। এজন্য নাকি গুগল ভারতের বাজারে কাজও করছে।

গুগল পিক্সেল ২ এবং এক্সএল স্মার্টফোনের দাম অনেকইটাই স্যামসাংয়ের ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসের মতোই। শুধু দামে নয়, বরং ফিচারেও সমানে সমান বলে বলছেন বিশ্লেষকরা।

তাই অদূর ভবিষ্যতে ফ্ল্যাগশিপ বা প্রিমিয়াম বাজারে অ্যাপল এবং স্যামসাংয়ের সমকক্ষ হয়ে উঠতে যাচ্ছে গুগল পিক্সেল। তাতে আসলেই কোনো সন্দেহ থাকবে না।

আইএএনএস এবং বিজনেস স্ট্যাডার্ড অবলম্বনে ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/