ভ্যাট-ট্যাক্স মুক্ত আইটি খাত প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেবেন নাজমুল

আল আমীন দেওয়ান : দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সবচেয়ে বড় সংগঠন বিসিএসের ২৯ মার্চের নির্বাচনকে সামনে রেখে টেকশহরডটকমের সিরিজ প্রতিবেদনের সঙ্গে থাকছে বর্তমান ও সাবেক নেতা, প্রার্থী ও ভোটারদের সঙ্গে আলাপচারিতা।

নির্বাচনকে ঘিরে অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) সদস্যরা এখন বেশ আলোচনায় আছেন। ভোটের প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা ভোটার-সদস্যদের সঙ্গে সংগঠনের অতীত, বর্তমান, ভবিষ্যতের বিষয়-আশয় নিয়ে আলাপচারিতায় ব্যস্ত।

নির্বাচনের এ ডামাডোলের মধ্যে টেকশহরডটকমও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বৃহত্তম এ সংগঠনের বর্তমান হালচাল, প্রার্থীদের প্রতিশ্রুতি, ভোটারদের চাওয়া পাওয়ার বিষয়ে জানতে কথা বলেছে অনেকের সঙ্গে। এ প্রতিবেদনে থাকছে স্বতন্ত্র প্রার্থী নাজমুল আলম ভূঁইয়ার সঙ্গে আলাপচারিতার চুম্বক অংশ।

Nazmul Alam Bhuiyan Jewel-TechShohor

বিসিএসের ২০১০-২০১১ মেয়াদে যুগ্ম-মহাসচিব হিসাবে দায়িত্বপালনকারী নাজমুল আলম সাইবার কমিউনিকেশনস লিমিটেডের সিইও। স্বতন্ত্র প্রাথী হিসাবে নির্বাচনে অংশ নেওয়া এ সংগঠক সমিতির বিভিন্ন বিষয় ও নিজের প্রার্থীতার বিষয়ে কথা বলেছেন।

নাজমুল বলেন, আগের কমিটিতে দায়িত্ব পালনের সময় ও পরে সংগঠনের জন্য অনেক কিছু করার ইচ্ছা ছিল। অনেক পরিকল্পনাও ছিল, কিন্তু নানা কারণে তা হয়ে ওঠেনি। নতুন কমিটিতে দায়িত্ব পেলে সেসব পরিকল্পনা বাস্তবায়নের কথা বলেন তিনি।

উদাহরণ হিসাবে এ ব্যবসায়ী নেতা বলেন, ওয়ারেন্টি পলিসি নিয়ে আজ পর্যন্ত ভাল কিছু করা যায়নি। কেউ ওয়ারেন্টি দিচ্ছেন তিন বছর, আবার কেউ দিচ্ছেন এক বছর। এমনটা হওয়াতে ঝামেলা বেড়েছে। অনেক ক্ষেত্রে তিন বছর বলা থাকলেও ভোক্তারা পাচ্ছেন এক বছর। ওয়ারেন্টির এ সময়সীমা সবার জন্য সব ব্রান্ডের জন্য এক করার পরিকল্পনার কথা জানান তিনি।

সাবেক এ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, এ খাতের জন্য একটা যুতসই নীতি তৈরির কাজে হাত দিতে চাই। প্রযুক্তি পণ্যের আমদানি ও বিক্রির ক্ষেত্রে ভ্যাট-ট্যাক্সের বিষয়ের অনেক সমস্যার এখনও সমাধান হয়নি। এ খাতকে ভ্যাট-ট্যাক্স মুক্ত করতে কাজ করার কথা বলেন তিনি।

তথ্যপ্রযুক্তি খাতের আমদানিকারক, ডিস্ট্রিবিউটর ও রিসেলারদের মধ্যে পণ্য বিক্রির মূল্যের ক্ষেত্রে একটি সামঞ্জস্য সহজ নীতি প্রয়োজন উল্লেখ করে নাজমূল বলেন, এ নীতি সাধারণ ব্যবসায়ীদের রক্ষা করবে। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় আমদানীকারকরা যে মূল্যে পণ্য ডিস্ট্রিবিউট করছে ও রিসেইলারদের দিচ্ছে, তারা কখনও কখনও বিভিন্ন পরিস্থিতির কথা বলে কমমূল্যে সেই পণ্য বিক্রি করছে। এতে রিসেইলাররা ক্ষতিগ্রস্থ হয়। আমদানীকারকদের এমআরপি নির্দিষ্ট করে সকলের মধ্যে সমঝোতা ও আস্থার জায়গা বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন তিনি।

সাইবার কমিউনিকেশনসের সিইও বলেন, বর্তমান কমিটি ভ্যাট ট্যাক্সের বিষয়টি নিয়ে চেষ্টা করেছে। যদিও তারা কোনো ফলাফল এনে দিতে পারেনি। আগামীতে এ বিষয়টি সমাধানে উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানান তিনি।

এ ব্যবসায়ী বলেন, বিসিএস এর আগে দেশব্যাপী আঞ্চলিক কমিটিগুলোকে বিভিন্ন মেলা ও প্রোগ্রামে যুক্ত করে উজ্জীবিত রাখতে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নিতো। বর্তমান কমিটি সেটি করতে পারেনি জানিয়ে তিনি বলেন, এ কারণে আঞ্চলিক কমিটিগুলো বর্তমান কমিটি নিয়ে সন্তুষ্ট নয়। এ দিকগুলোতে নজর দেওয়ার কথা তিনি ভোটার-সদস্যদের জানিয়েছেন বলে জানান।

সাধারণ ব্যবসায়ীদের সহায়তায় সম্প্রতি গঠিত কল্যাণ তহবিলকে ভালো উদ্যোগ জানিয়ে নাজমুল ভবিষ্যতে এ তহবিলকে আরও কার্যকর করতে কাজ করার কথা উল্লেখ করেন।

সমিতির নেতৃত্বের বিষয়ে স্বতন্ত্র এ প্রার্থী বলেন, বিসিএসের নেতৃত্বে নতুন, পুরাতন ও অভিজ্ঞ এ তিনের সমন্বয় প্রয়োজন। একেবারে নতুন দিয়ে যেমন হবে না, তেমনি শুধু অভিজ্ঞতা দিয়ে তারুণ্যের ঘাটতি পূরণ করা যাবে না।

Related posts

*

*

Top