রূপালী পর্দা মাতানো ১০ গেইম

শাহরিয়ার হৃদয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : এখন এক ঢিলে দুই পাখি মারছেন রূপালী পর্দার নির্মাতারা। একদিকে সিনেমা বানিয়ে ব্যবসা করছেন। আবার এসব চমকপ্রদ কাহিনীরভিত্তিতে তৈরি করছেন গেইম। হালের আমলে এসব গেইম বেশ জনপ্রিয়তাও পেয়েছে। ব্যবসা সফলও হচ্ছে। এ কারণে সিনেমা থেকে গেইম তৈরির ধুম পড়েছে।

গেইমপ্রেমীদের কথা মাথায় রেখে হলিউড বা বলিউডের বড় বাজেটের ছবিগুলোর সঙ্গে মুক্তি পাচ্ছে সেটির গেইম। এক সময় এসব গেইম কনসোল বা কম্পিউটারভিত্তিক হলেও এখন জমানা পাল্টেছে।

স্মার্ট ডিভাইসের এ যুগে বেশি সংখ্যক গ্রাহকের কথা মাথায় রেখে বেশিরভাগ সিনেমাভিত্তিক গেইম বের হচ্ছে মোবাইল প্ল্যাটফর্মে।

সিনেমা থেকে গেইম জগতেও সাড়া ফেলেছে এমন দশটি গেইম নিয়ে এ প্রতিবেদন।

top game_techshohor

ধুম থ্রি
বলিউড কাঁপানো সিনেমা ধুম থ্রি। শুধু ভারতে নয়, বিদেশেও সিনেমাপ্রেমীদের মাত করেছে এটি। বলিউড নায়ক আমির খানের সাড়া জাগানো এ সিনেমাটিও গেইমে রূপান্তর করা হয়েছে। অফিসিয়াল গেইমটি তৈরি করেছে ভারতীয় ডেভেলপার নাইনটিনাইনগেইমস ও পাবলিশ করেছে যশরাজ ফিল্মস।

dhoom 3 game_ Tech Shohor

ধুম থ্রি গেইমটি এন্ডলেস রানিং গোত্রের গেইম, অর্থাৎ টেম্পল রান বা সাবওয়ে সার্ফার্সের মতো আপনার কাজ কেবলই সামনে ছুটে যাওয়া। তবে ধুমে আপনার বাহন হবে সুপারবাইক, আর আপনি হবেন সাহির (আমির খান)। ছুটে বেড়াতে হবে শিকাগোর রাস্তায়। ধরার জন্য পিছু নেবে জাঁদরেল পুলিশ।

টাচ ও টিল্ট- দুইভাবে বাইক নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। রাস্তা থেকে কয়েন সংগ্রহ করতে হবে, যে কয়েন দিয়ে নতুন বাইক, রেসিং স্যুট, পাওয়ার কেনাসহ অনেক আপগ্রেড করতে পারবেন।

গেইমটির গ্রাফিক্স খুবই উন্নত, বিশেষ করে ভারতে তৈরি অন্যান্য গেইমের চেয়ে। মজা আরও বাড়িয়ে দেবে ধুমের থিম মিউজিক, যা মুভিতে শোনা যায়। শুরুতে গেইমটি কেবল উইন্ডোজ ফোনের জন্য মুক্তি পেয়েছিল, তবে বর্তমানে আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েডেও রয়েছে।

ক্রিশ থ্রি
বলিউডের জনপ্রিয় সুপারহিরো ক্রিশকে স্মার্টফোনে নিয়ে আসে ভারতের গেইমশাস্ত্র নামে একটি প্রতিষ্ঠান। ২০১৩ সালে ক্রিশ থ্রি সিনেমার পাশাপাশি এটিও মুক্তি দেওয়া হয়।

এটি সাইড স্ক্রোলিং রানিং গেইম। এ ধরনের আরেক বিখ্যাত গেইম ভেক্টর। ক্রিশকে নিয়ে বাড়িঘরের ছাদে দৌড়ে বেড়াতে হবে। ঠিকঠাক ‘সোয়াইপ’ করে বিভিন্ন বাধা এড়িয়ে লাফ দিয়ে এক ছাদ থেকে আরেক ছাদে যেতে হবে। মাঝে মাঝে আবার প্রতিপক্ষ আসবে, যাদের পিছু ফেলতে পারলে বাড়তি পয়েন্ট পাওয়া যাবে।

krrish 3_ Tech Shohor

নির্দিষ্ট পয়েন্ট অর্জন করতে পারলে পরের লেভেলে যাওয়া যাবে। এছাড়া দৌড়ের পথে ‘ক্রিস্টাল’ সংগ্রহ করতে পারবেন, যা গ্যাজেট কিনতে কাজে লাগবে।

গেইমটি খেলার জন্য তিনটি ম্যাপ রয়েছে- নিউইয়র্ক, ওল্ড সিটি ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়া। ক্রিশ ছাড়াও আরও দুটি চরিত্র নিয়ে খেলতে পারবেন- কায়া ও ফ্রগম্যান। আকর্ষণীয় গ্রাফিক্সের এই গেইমটি অ্যান্ড্রয়েড, উইন্ডোজ ফোন ও আইওএস প্ল্যাটফর্মের অ্যাপ স্টোরে রয়েছে।

ডন টু
বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের আরেক জনপ্রিয় সিনেমা ডন টু’র গেইম এটি। ডেভেলপ ও পাবলিশ করেছে ভারতীয় কোম্পানি গেইমশাস্ত্র।

ডন টু থার্ড পারসন শুটিং গেইম। মুভি থেকে তৈরি হওয়া গেইমগুলোর মধ্যে অবশ্য এমন শুটিং গেইম বেশি নেই। এতে দেখা যাবে, এশিয়ার অন্ধকার জগত দখল করার পর ইউরোপে প্রভাব বিস্তার করতে চাইছে ডন।

৬টি বৈচিত্র্যময় মিশনে ডন, অর্থাৎ শাহরুখ খান হয়ে কুয়ালালামপুর থেকে বার্লিন পর্যন্ত বিচরণ করতে হবে। মৃত্যু ও গ্রেফতার হওয়া এড়িয়ে প্রতিটি মিশন সম্পন্ন করতে হবে।

গেইমটিতে নানা ধরনের কন্ট্রোল রয়েছে। অন-স্ক্রিন বাটনের মাধ্যমে বিভিন্ন পরিস্থিতিতে ডনকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। তবে এ ধরনের অন্যান্য গেইমের চেয়ে কন্ট্রোল কিছুটা কঠিন।

এর গ্রাফিক্স আহামরি না হলেও মন্দ নয়। আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েডের জন্য এটি পাওয়া যাচ্ছে।

চেন্নাই এক্সপ্রেস
শাহরুখ খান আর দীপিকা পাড়ুকৌনের চেন্নাই এক্সপ্রেসকে জনপ্রিয় করার জন্য মুভিটি মুক্তি পাওয়ার কিছুদিন আগে এই গেইম বের হয়। এটিও অবশ্য কম জনপ্রিয় হয়নি।

তবে গেইমটিতে নিজস্বতা কিছুটা কম। বরং জনপ্রিয় গেইম সাবওয়ে সার্ফার্সের ভারতীয় সংস্করণ বলা যেতে পারে। স্ক্রিনে সোয়াইপ করে লাফ দিতে হবে ও সামনের বাধা টপকাতে হবে। সামনে থেকে ছুটে আসবে ট্রেন, অটোরিক্সা, বাস, ট্রাক ইত্যাদি। কয়েন সংগ্রহের পাশাপাশি বহুমূল্যের হীরা পেয়ে যেতে পারেন। তবে মাঝে মাঝে একদল লোক লাঠিহাতে হাজির হতে পারে আপনাকে মারার জন্য। মারপিট করে তাদের পার করতে হবে।

যদিও এর গেইমপ্লেতে নতুন কিছু নেই, তারপরও ভারতীয় পরিবেশের মজার কিছু বিষয়ের কারণে অনেকেরই ভালো লাগতে পারে। গেইমটি অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস প্ল্যাটফর্মের জন্য রয়েছে।

ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ৬
বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় মুভি ফ্রাঞ্চাইজ ফাস্ট অ্যান্ড্র ফিউরিয়াস। ভিন ডিজেল অভিনীতি এই খ্যাতনামা সিরিজ নিয়ে অনেক মাতামাতি হলেও এর কোনো গেইম ছিল না। সিরিজের ষষ্ঠ মুভিতে এসে এই চাহিদা মিটলো।

মুভির মতো গেইমের মূল বিষয় গাড়ি নিয়ে তুলকালাম। তবে শুধু রেস জিতলেই হবে না, প্রতিপক্ষের গাড়িকে ভেঙে চুরমারও করতে হবে। ১৯৭২ ফোর্ড গ্র্যান্ড টরিনো মডেলের একটি ঝরঝরে গাড়ি দিয়ে যাত্রা শুরু হবে। এরপর প্রবেশ করবেন ড্র্যাগ রেস, ড্রিফট চ্যালেঞ্জসহ উত্তেজনাময় বিভিন্ন রেস ইভেন্টে।

রেসে জিতলে টাকা পাওয়া যাবে, যা দিয়ে গাড়ি আপগ্রেড ও কাস্টমাইজ করা যাবে। মূল রেসের গেইমপ্লে বেশিরভাগ ড্র্যাগ রেসিং গেইমের মতো। ঠিক সময়ে স্ক্রিনের ভার্চুয়াল বাটন চেপে গাড়িকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সরু মোড়ওয়ালা রাস্তায় সতর্কভাবে ড্রিফট করতে হবে।

গেইমটি ফ্রিমিয়াম লাইসেন্সের, অর্থাৎ বিনামূল্যে ডাউনলোড করে প্রাথমিক কিছু রেস খেলতে পারবেন। কিন্তু পুরো গেইমটি খেলার জন্য টাকা দিয়ে বিভিন্ন আপগ্রেড কিনতে হবে। এটি আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েডের জন্য রয়েছে।

আয়রন ম্যান থ্রি
গেইমলফটের তৈরি মুভিভিত্তিক আরেক জনপ্রিয় মোবাইল গেইম আয়রন ম্যান থ্রি। ২০১৩ সালে মুভিটি মুক্তি পাওয়ার কিছুদিন আগে গেইমটি বের হয়।

এটিও টেম্পল রানের মতো এন্ডলেস রানার গেইম। অবশ্য নায়ক যেহেতু আয়রন ম্যান, তাই ‘রান’ এর বদলে ‘ফ্লাই’ করতে হবে। আকাশে ছুটে বেড়ানোর সময় অ্যাডভান্সড আইডিয়া মেকানিক্স নামে শত্রুদলের সদস্যরা হাজির হবে। নানা পাওয়ার ব্যবহার করে তাদের মারতে হবে। পথে অবশ্যই টোকেন সংগ্রহ করতে হবে, যা আপগ্রেডে কাজে লাগবে। আয়রন ম্যানের জন্য কয়েক রকমের আর্মর (বর্ম) রয়েছে, একেকটি একেকভাবে কাজে লাগবে। আর্মর, পাওয়ার ও নানা আপগ্রেডের জন্য টাকা লাগবে।

টাচ বা টিল্ট করে গেইমটি খেলতে হবে। খুবই দ্রুতগতির হওয়ায় টেম্পল রান বা সাবওয়ে সার্ফাসের মতোই মজা পাওয়া যাবে। মুভির সাথে বেশ কিছু মিল আছে, তাই আয়রন ম্যান ফ্যানরা বাড়তি আনন্দ পাবেন। আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েডে এটি পাওয়া যাচ্ছে।

পাইরেটস অফ দ্য ক্যারিবিয়ান: মাস্টার অফ দ্য সি
পাইরেটস অফ দ্য ক্যারিবিয়ান নিয়ে পিসিও কনসোলে মূলধারার গেইম রয়েছে। কিন্তু স্মার্টফোনের জন্য এই সিরিজের প্রথম গেইম মাস্টার অফ দ্য সি। সিরিজটির স্বত্ত্বাধিকারী ডিজনি এটি তৈরি করেছে।

pirate of the caribbean at world's end-TechShohor

ধাঁধাঁ আর বুদ্ধির গেইম এটি। পিসি গেইমের মতো এতে তলোয়ার-বন্দুক নিয়ে লড়তে হবে না। বিভিন্ন ধাঁধাঁ ও প্রশ্নের উত্তর দিয়ে মিশন সম্পন্ন করতে হবে। উত্তর ঠিক হলে কাঙ্খিত গন্তব্যে পৌঁছাবেন, নইলে আবারও সমুদ্রে হারিয়ে যেতে পারেন।

বিভিন্ন দ্বীপে আবার দোকান রয়েছে, সেখান থেকে গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপাতি কিনতে পারবেন। অন্য জাহাজ দখল করে বা ভাঙা জাহাজ লুট করে ধনরত্ন সংগ্রহ করতে পারবেন।

সহজ, কিন্তু মজাদার গেইমপ্লের এই গেইমটি অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএসের জন্য রয়েছে।

দ্য ডার্ক নাইট রাইজেজ
ব্যাটম্যান নিয়ে পিসি ও কনসোলের বিখ্যাত গেইম সিরিজ আর্কহ্যাম। কিন্তু স্মার্টফোনের জন্য তেমন কিছু ছিল না। ২০১২ সালে গেইমলফট ব্যাটম্যানের সর্বশেষ সিনেমা দ্য ডার্ক নাইট রাইজেজ এর অফিসিয়াল গেইম মুক্তি দেয় আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েডের জন্য।

গেইমটিতে ব্যাটম্যান বা ক্যাটওম্যান হয়ে খেলতে পারবেন। গোথাম সিটির ভিতরে ওপেন-ওয়ার্ল্ড স্টাইলে ইচ্ছেমতো ঘুরে বেড়াতে পারবেন। ব্যাটম্যানের বিভিন্ন গ্যাজেট, যেমনও- ব্যাটারাং, ব্যাটপড ব্যবহার করে শত্রুর সাথে লড়তে হবে।

স্ক্রিনের ওপর ভার্চুয়াল বাটন দিয়ে ব্যাটম্যানকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সিরিজটির বিখ্যাত ভিলেন বেইন এখানে মূল শত্রু। এছাড়া বিভিন্ন মিশন থেকে প্রাপ্ত পয়েন্ট দিয়ে নতুন নতুন অ্যাকশন ও গ্যাজেট আনলক করতে পারবেন।

অসাধারণ গ্রাফিক্স ও সাউন্ড এফেক্ট গেইমটিকে মোবাইল ডিভাইসের অন্যতম সেরা গেইমে পরিণত করেছে। গোথাম সিটির এই বিশাল জগতে ঢুকতে হলে অবশ্য ৬ দশমিক ৯৯ ডলার গুণতে হবে।

আইস এজ ভিলেজ
মুভির উপর ভিত্তি করে তৈরি বেশিরভাগ গেইমের গেইমপ্লে গতানুগতিক। আইস এজ এদিক থেকে ব্যতিক্রম। এটি স্ট্র্যাটেজি ধাঁচের সিমুলেশন গেইম, যাতে আইস এজের পুরো জগত নিয়ে আপনাকে হেলতে হবে।

মূল সিনেমার মতো এতেও দেখা যায়, পৃথিবীর বরফ গলে যেতে শুরু করেছে, তাই বিদায়ঘণ্টা বাজছে বরফ যুগের। তাই আইস এজের চরিত্রগুলোর জন্য নতুন বাসস্থান খুঁজতে হবে। পাশাপাশি প্রতিকূল পরিবেশে তাদের দেখভালের ব্যবস্থা করতে হবে।

শুরু করতে হবে প্রাগৈতিহাসিক বাঘ, ম্যামথ বা পাখি- যেকোনো একটি চরিত্র নিয়ে। ড্রিম জু বা ফার্মভিলের মতো জনপ্রিয় সিমুলেশন গেইম যারা খেলেছেন, তাদের কাছে গেইমপ্লে পরিচিত মনে হবে।

গ্রাফিক্স ও সাউন্ডের দিক দিয়ে মূল অ্যানিমেশন ফিল্মের সাথে গেইমের প্রচুর মিল রয়েছে। তাই পাওয়া যাবে বাড়তি মজা। আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েডের জন্য গেইমটি পাওয়া যাচ্ছে।

মেন ইন ব্ল্যাক থ্রি
এলিয়েন বা ভিনগ্রহবাসী আমাদের মধ্যেই আছে। কালো পোশাকধারী বাহিনীর কাজ হচ্ছে তাদের দিকে কড়া নজর রাখা, তাদের অস্তিত্ব গোপন রাখা। এমন কাহিনীর বিখ্যাত হলিউড সিরিজ ম্যান ইন ব্ল্যাকের সর্বশেষ সংস্করণ নিয়ে গেইমলফটের গেইম মেন ইন ব্ল্যাক দ্য গেইম।

আইস এজের মতো এটিও সিমুলেশন গেইম। আপনাকে মেন ইন ব্ল্যাক নামে সংস্থাটির ম্যানেজার হিসেবে খেলতে হবে। সদরদপ্তরে যেন ঠিকঠাক নিরাপত্তা থাকে, অস্ত্রশস্ত্র থেকে শুরু করে খাবারদাবারে যাতে এজেন্টদের কোনো সমস্যা না হয় তা সেজন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা করতে হবে। এই পরিকল্পনা আর সেগুলোর বাস্তবায়ন নিয়ে গেইমটির গেইমপ্লে।

মুভির গল্পের মতো করে গেইমটির মূল কাহিনী এগিয়েছে। বাস্তব সময়ের সাথে মিল রেখে বিভিন্ন মিশনের সময় নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। গেইমটি ফ্রিমিয়াম ক্যাটাগরির, তাই বিনামূল্যে ডাউনলোড করে খেলা শুরু করতে পারবেন। কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র ও আপডেট টাকা দিয়ে কেনা লাগবে।

স্মার্টফোনে যারা ভারিক্কি ধরনের গেইম খেলতে পছন্দ করেন এটি তাদের বেশ ভালো লাগবে। আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ স্টোরে এটি পাওয়া যাচ্ছে।

ট্যাগ ,

Related posts

*

*

Top