Maintance

প্রকৃত অবস্থা শেয়ার হয় না টুইটারে!

প্রকাশঃ ১২:১৪ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:০৮ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ‘সুখী’ বা ‘ভারাক্রান্ত’ টুইট দিয়ে নিজের প্রকৃত অবস্থা বোঝাতে চান অনেক টুইটার ব্যবহারকারী।

তবে এসব দিয়ে বাস্তব জীবনের অবস্থা এড়িয়ে যান ব্যবহারকারী। নিজেকে ‘ভালো বা  ইতিবাচক’ দেখাতে টু্ইটে নিজেদের প্রকৃত অবস্থা বোঝাতে পারেন না বলে নতুন একটি গবেষণায় দাবি করা হয়েছে।

গবেষণার ফলাফলে বলা হয়েছে, ব্যবহারকারীরা টুইটারে যে টুইট করে নিজে অবস্থা জানান দেন বাস্তবিক ক্ষেত্রে বা অফলাইনে সেই অবস্থায় তিনি নাও থাকতে পারেন। ফলে টুইটের মাধ্যমে প্রকৃত অবস্থা বোঝানো যায় না।

গবেষণাপত্রটি প্রকাশ করা হয়েছে, পিএলওএস ওয়ান নামের একটি জার্নালে। সেখানে বলা হয়েছে, টুইটার ব্যবহারকারীরা মাধ্যমটিতে তাদের নিজস্ব অনন্য সাংস্কৃতিক আচরণ, কথোপকথন এবং পরিচয় তৈরি করেছেন এবং সেখানেই তাদের মতামতগুলিই শুধু প্রকাশ করেন।

twitter-techshohor

গবেষণায় নেতৃত্ব দেওয়া ব্রিটেনের ওয়ারউইক বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক এবং গবেষণা পত্রটির লেখক এরিরিক জেনসেন বলেন, সামাজিক এই মাধ্যমে কোনো কিছু শেয়ার করার ক্ষেত্রে ব্যবহারকারী সত্যিই সেই অবস্থায় রয়েছে কিনা তার কোনো এভিডেন্স বা প্রমাণ থাকে না।

এর সঙ্গে সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারী বৃদ্ধি পাওয়া এবং বিগ ডেটা ব্যবহার সহজ হওয়ায় স্যোশাল সায়েন্সের জ্ঞান সবারই বৃদ্ধি পেয়েছে।

মাসিক ৩০ কোটি সক্রিয় ব্যবহারকারী রয়েছে টুইটারের। সেখানে বিশ্বে প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ তাদের অনুভূতি ১৪০ বা তার কম শব্দে লিখে প্রকাশ করেন। আর টুইটারের এসব তথ্য বিভিন্ন গবেষণা এবং মিডিয়ার কাছে খুবই ‘লোভনীয়’।

নতুন এই গবেষণা টুইটার ব্যবহারকারীদের নমুনা থেকে সর্বশেষ সমস্যাগুলিকেও তুলে এনেছে।

গবেষক জেনসেন অবশ্য টুইটারকে ‘বিশ্ব আবেগের একটি অবিশ্বস্ত প্রত্যক্ষদর্শী’ হিসেবে তুলে ধরেছেন।

জেনসেন আরও বলেন, টুইটার ব্যবহারকারীরা তাদের জীবনের একটি দিকই শুধু এখানে প্রতিফলনের চেষ্টা করেন। সেজন্য পেশাগত দিক থেকে ব্যবহারকারীরা শুধুমাত্র তাদের ইতিবাচক বা ভালো দিকগুলোই সবসময় তুলে ধরেন।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/