Maintance

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এককাট্টা গুগল, ফেইসবুক, অ্যাপল, অ্যামাজন

প্রকাশঃ ৬:১৭ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:১৭ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে অবৈধ অভিবাসীদের সুরক্ষায় ‘ড্রিমার’ প্রকল্প চালু করেছিল তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

কিন্তু সেটি বাতিল করার জন্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় ‘ড্রিমার’ প্রকল্প বাতিলের কথা বলেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে প্রকল্পটি গত মঙ্গলবার বাতিল করা হলে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ দেখান অনেক অভিবাসী।

শুধু অভিবাসী নন, প্রকল্প বাতিলের বিরুদ্ধে এবার এককাট্টা হয়েছে গুগল, ফেইসবুক, অ্যাপল, অ্যামাজনের মতো প্রযুক্তি জায়ান্টগুলো।

google-facebook-appe-amazon-Techshohor

প্রকল্পটি বাতিল করা হলে দেশটি থেকে কাজ বা পড়ালেখার সুযোগ হারাবেন অন্তত ৮ লাখ অভিবাসী তরুণ। আর সে কারণেই অভিবাসীদের পক্ষ নিয়েছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো। এমনকি মাইক্রোসফট প্রেসিডেন্ট ব্রাড স্মিথের কাছে কর সংস্কারের চেয়েও ‘ড্রিমার’ প্রকল্পের গুরুত্ব বেশি।

এমন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক’শ বড় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান বৃহস্পতিবার একটি খোলা চিঠি পাঠিয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে। চিঠিতে প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা ‘ড্রিমার’ প্রকল্প বহাল রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।

ফেইসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ ও প্রধান অপারেটিং অফিসার শেরিল স্যান্ডবার্গ, অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক, আমাজনের চেয়ারম্যান জেফ বেজোস, গুগলের প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিচাইয়ের সই রয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে লেখা চিঠিতে।

ফেইসবুকে জাকারবার্গের দেওয়া এক পোস্টে বলেছেন, তিনি ড্রিমারদের পাশে আছেন।  যেসব তরুণ মা-বাবার হাত ধরে তাদের দেশে গেছেন, তাদের অনেকেই সেখানে বুদ্ধি হওয়ার পর থেকে অবস্থান করছেন।

তিনি লেখেন, আমাদের এমন একটি শাসনপদ্ধতি দরকার যারা ড্রিমারদের সুরক্ষা করবে। এসব তরুণই আমাদের দেশ ও অর্থনীতির ভবিষ্যৎ।

এ ছাড়াও বুধধবার ফেইসবুক লাইভে পাশে তিনজন ‘ড্রিমার’ বা অবৈধ অভিবাসীকে নিয়ে ৪৫ মিনিটব্যাপী এক প্রতিবাদ জানান জাকারবার্গ। তিনি জানান, তার প্রতিষ্ঠান এসব ড্রিমারদের পাশে থাকবে।

যুক্তরাষ্ট্রে এখন আট লাখের বেশি অবৈধ অভিবাসী রয়েছে। ২০১২ সালে তাদের সুরক্ষায় ড্রিমার প্রকল্প চাল ুকরেছিল ওবামা প্রশাসন।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/