Maintance

গাড়িতেই ফেইসবুক কর্মীর ঘর-সংসার

প্রকাশঃ ১০:০০ অপরাহ্ন, জুলাই ৩০, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:৫৯ অপরাহ্ন, জুলাই ৩১, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সিলিকন ভ্যালিতে উচ্চমূল্যের অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়ার খরচ যোগাতে না পেরে ফেইসবুকের একজন কর্মী বাধ্য হচ্ছেন নিজের গাড়িতে বসবাস করতে।

ডেইলি মেইলের এক খবরে বলা হয়েছে, পারশার পিঙ্ক রঙের চুল, পিঙ্ক কার এবং পিঙ্ক রঙের কুকুরের জন্য অপ্রকাশ্যে তিনি ‘পিঙ্কি’ নামে পরিচিতি পেয়েছেন। যার কাছে ইতোমধ্যে মেডিকেল বিল এবং ‘স্টুডেন্ট লোন’ বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

‘পিঙ্কি’ পারশা বলেন, আমি সবসময় মানুষকে বলি, ‘মানুষ কী পাচ্ছে এবং বাইর থেকে কী দেখা যাচ্ছে’ সেগুলো দেখা বন্ধ কর। কারণ এগুলোর অনেকই ফাঁপা।

সিলিকন ভ্যালির বিজনেস জার্নালের হিসাবে, ক্যালিফোর্নিয়ার উত্তরাঞ্চলে এক রুমের একটি সাধারণ বাসা ভাড়া দুই হাজার ৩০০ মার্কিন ডলার। দুই শিশুসহ পারশার পক্ষে এই ব্যয়ের যোগান দেওয়া সম্ভব নয়।

Facebook-PArsha-Techshohor

একারণেই তিনি তার গাড়িতে বসবাস করছেন। কিন্তু বিষয়টি লোকলজ্জার ভয়ে তার সহকর্মীদের কাছ থেকে বিষয়টি চেপে রয়েছেন।
পারশা বলেন, আমার এই অবস্থা দেখে সহকর্মীরা হতাশ হতে পারেন যে কারণে আমি সবসময় তাদের সামনে কর্মক্ষেত্রে হাসাহাসি করছি, অনেকটাই স্বাভাবিক থাকি।

আমি মনে করি কোম্পানিগুলোর উচিত হবে তাদের কর্মীদের বেতনের দিকে নজর দেওয়া। কর্মীরা এই বেতনে জীবন যাপন করতে পারেন কিনা সেটা তাদের জানাটা খুবই জরুরি বলে মনে করেন পারশা।

এতোসব অভিযোগ যখন ফেইসবুকের বিরুদ্ধে তখন প্রতিষ্ঠানটির একজন মুখপাত্র জানান, ফেইসবুক সবসময় তার কর্মীদের ব্যাপারে সচেতন। যে কারণে তারা তাদের কর্মীদের বাসস্থান সম্পর্কে সচেতনও থেকেছে।

তবে অভিযোগ নিয়ে ফেইসবুকের ব্যাখ্যা হলো, তারা কমিউনিটিতে বিভিন্ন গ্রুপ তৈরিতে যারা কন্ট্রিবিউটর হিসেবে কাজ করেন, তাদের জন্য কয়েক মাসের জন্য ২ কোটি ডলার বরাদ্দ করে রেখেছেন।

ফেইসবুক সবসময় প্রত্যেক কর্মীর জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টিতে বিশ্বাসী।

তবে পারশা ফেইসবুকের একজন চুক্তিভিত্তিক কর্মী উল্লেখ করে ফেইসবুক জানায়, তারা একজন চুক্তিভিত্তিক কন্ট্রিবিউটররে ঘণ্টায় ১৫ ডলার করে বেতন দেন। আর এটা প্রতি পাক্ষিকেই পরিশোধ করা হয়।

এছাড়াও ছুটি এবং শিশুদের সুরক্ষায় চার হাজার ডলার দেওয়া হয়।

পারশা মাত্র দুমাস আগে ফেইসবুকের চুক্তিভিত্তিক কন্ট্রিবিউটর হিসেবে কাজে যোগ দিয়েছেন।

ইকোনোমিক টাইমস অবলম্বনে ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/