Maintance

কাতার সংবাদ সংস্থা হ্যাকের বিষয় অস্বীকার আরব আমিরাতের

প্রকাশঃ ৭:২৮ অপরাহ্ন, জুলাই ১৭, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:৫০ অপরাহ্ন, জুলাই ১৭, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : কাতারের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা হ্যাকের অভিযোগ অস্বীকার করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এমন কাজের সঙ্গে আরব আমিরাতের কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা নেই বলেও জানায় দেশটি।

মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের উদ্ধৃত করে ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকায় বলা হয়েছে,  সংযুক্ত আরব আমিরাত কাতারের আমীরকে এমন একটি কূটনৈতিক কাজে জড়িয়ে পড়েছে। যেখানে উদ্দেশ্য ছিলো কাতারের আমীরকে খুশি রাখা।

কিন্তু এই ঘটনায় প্রতিবেশী দেশ দুটির মধ্যে কূটনৈতিক উত্তেজনাও ছড়িয়ে পড়েছে।

আরব আমিরাতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আনোয়ার গার্ভেস সোমবার বিবিসিকে বলেছেন, পোস্টের রিপোর্ট ‘অসত্য’ ছিল।

তিনি বলেন, কাতার ২০২২ সালে যে ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজন করতে যাচ্ছে তা অন্যত্র সরিয়ে নিতে আরব আমিরাতসহ প্রতিবেশি পাঁচ দেশ ফিফাকে কোনো চিঠি লেখেনি। কারণ এটা করার কোনো অধিকার তাদের নেই।

সুইজ নিউজ নেটওয়ার্ক দ্যা লোকাল জানিয়েছে, একটি নকল ও মিথ্যা পোস্ট গত কয়েকদন ধরেই বিভিন্ন ওয়েবাসাইটে পাওয়া যাচ্ছে। যেটি প্রকাশ হয়েছে ফিফা সভাপতি গিয়াননি ইনফান্তিয়োকে উদ্ধৃত করে। কিন্তু সেটা তার লেখা নয়।

তবে ওয়াশিংটন পোস্টে নাম প্রকাশ না করার শর্তে যুক্তরাষ্ট্রের ওই কর্মকর্তা নিশ্চিতভাবেই বলেছেন, কাতারের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থার সাইট হ্যাক করার জন্য আরব আমিরাত সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কয়েকজন কর্মকর্তা ২৩ মে একটি বৈঠক করেছে।

কাতারি কর্তৃপক্ষ বলছেন, এটা বিশ্বাস করা অমূলক যে সংস্থাটি কোনো ‘অজ্ঞাত সত্তা’ দ্বারা হ্যাক করা হয়েছে। আমিরাতের এমন গল্পের কোনো ‘ভিত্তি’ নেই বলেও বলেন কর্মকর্তারা।

বিবিসি অবলম্বনে ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/