চীন ও ভারতে অ্যাপল স্যামসাং হুমকিতে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অ্যাপল ও স্যামসাংয়ের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াচ্ছে চীন এবং ভারতের প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো।

উন্নত গুণগত মানের সঙ্গে কম দামের কারণে ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হচ্ছে চীন এবং ভারতীয় মোবাইল ফোন ও ডিভাইস প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের তৈরি পন্যগুলো। বড় ব্র্যান্ডগুলোর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ডিভাইস তৈরি করে নজর কাড়ছে সকলের।

এতে আগামীতে দুই জায়ান্ট অ্যাপল ও স্যামসাংকে মোবাইল ডিভাইসের বাজারে হারাতে হতে পারে হুয়াও, ডেজটিই, কুলপ্যাড, কারবন,  জিওয়াওমিসহ চীন ও ভারতের অন্যান্য সব মোবাইল নির্মাণ প্রতিষ্ঠানের কাছে।

phone_techshohor

গবেষণা প্রতিষ্ঠান বিআই ইন্টেলিজেন্সের সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়, ভারতের স্মার্টফোন বাজারে স্যামসাং এবং স্থানীয় নির্মাতা মাইক্রোম্যাক্স ও কারবনের মোট বিক্রির পরিমান ৬০ শতাংশ। এ বাজারে আগামীতে আধিপত্য হারাবে দক্ষিণ কোরিয়ান প্রতিষ্ঠান স্যামসাং।

বিআই প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে বৃদ্ধি পাচ্ছে স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেট ডিভাইসের জনপ্রিয়তা। নিত্য নতুন ফিচারসমৃদ্ধ এসব ফোন আনতে নেতৃত্ব দিচ্ছে দুই জায়ান্ট স্যামসাং ও অ্যাপল। কিন্তু দাম বেশি হওয়ার কারণে অনেকে তা কিনছে পারছেন না।

চীনের শীর্ষস্থানীয় পাঁচটি মোবাইল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এবং ভারতের শীর্ষ স্থানীয় দুইটি প্রতিষ্ঠান প্রতি প্রান্তিকে মোট ৬৫ মিলিয়ন স্মার্টফোন বিক্রি করছে, যা অ্যাপলের চেয়ে বেশি। অতি দ্রুত এই প্রতিষ্ঠানগুলো আরও এগিয়ে যাবে।

এদিকে ভারতে মোট মোবাইল ডিভাইসের বাজারে এক-চতুর্থাংশ দখল করে আছে দেশটির স্থানীয় নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। অপরদিকে চীনে দুই-পঞ্চমাংশ দখল করে আছে স্থানীয় নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। নিজেদের দেশে নিজেদের পন্যের বাজার দেশ দুটিতে দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এমনকি দেশের বাইরেও প্রতিষ্ঠানগুলো প্রভাব বিস্তার করতে শুরু করেছে। ভারতীয় মাইক্রোম্যাক্স এখন নেপাল, বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার বাজারে বিক্রি হচ্ছে।

প্রযুক্তি বিশ্লেষকদের ধারণা আগামীতে বিশ্বে চীন এবং ভারতের স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো উলেখ্যযোগ্য হারে বাজার দখল করতে সক্ষম হবে।

– টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে তুসিন আহমেদ

Related posts

*

*

Top