Maintance

ঈদে চাঙ্গা ফোনের বাজার, বাড়েনি দাম

প্রকাশঃ ১:০৬ অপরাহ্ন, জুন ১৮, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:০৬ অপরাহ্ন, জুন ১৮, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ঈদের আগে সাজ-পোশাক কেনার পাশাপাশি তরুণদের নজর থাকে নতুন ইলেক্ট্রনিক গ্যাজেট ও মোবাইল ফোনের কেনার দিকে। অনেকেই চান ঈদে তাদের পুরাতন ফোন পরিবর্তন করে নতুন ফোন নিতে। সেজন্য ইতোমধ্যেই ঈদ উপলক্ষে স্মার্টফোন বাজারে পছন্দের ডিভাইস কিনতে ভিড় করছেন অনেকেই।

বাজেটে শুল্ক বাড়ানো হলেও ঈদের আগে বিক্রি বাড়াতে দাম বাড়াননি বিক্রেতারা। ঈদের আগে প্রতিযোগিতাও বৃদ্ধি পায় বিক্রেতাদের মধ্যে। এ কারণে ক্রেতা ধরে রাখতে এমন পদক্ষেপ নিয়েছেন বলে বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে।

মোবাইল বাজারে বাজেটের প্রভাব না পড়া এবং ঈদের উপলক্ষ থাকায় গত কয়েকদিন স্মার্টফোনের বাজার কিছুটা চাঙ্গা। বিক্রেতারা বলছেন, বিক্রি বেড়েছে তুলনামূলক বেশি। রাজধানীর অন্যতম মোবাইল মার্কেট বসুন্ধরা শপিং সিটি ঘুরে দেখা মেলে কিছু চিত্রের।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, ক্রেতাদের কাছে মিডরেঞ্জ ফোনে চাহিদা বেশি। এছাড়াও ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসের প্রতি গ্রাহকদের রয়েছে বিশেষ আগ্রহ। তবে অনেক ক্রেতা ব্যাকআপ ফোন হিসেবে ফিচার ফোন কিনছেন বলেও বিক্রেতারা জানান।

স্যামসাং, আসুস, হুয়াওয়ে, শাওমি, এলজি, অপ্পো’র মতো ব্র্যান্ডের পাশাপাশি বাজারে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন, উই, সিম্ফোনির বিক্রি বেশ।

ফোন কিনতে আসা বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া হাসান নামের একজন টেকশহরডটকমকে জানান, ঈদের পোশাক কেনাকাটা বাদ দিয়ে তিনি ফোন কিনেছেন। আগের ফোন নষ্ট  হওয়ায় নতুন ফোন কেনা। তার বাজেট অনুযায়ী শাওমি রেডমি৪ এক্স কেনেন তিনি।

শাওমি ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস এমআই৬ বিক্রি হচ্ছে ৪০ হাজার টাকায়। এছাড়া শাওমি রেডমি৪ এক্স ফোনের দাম ১৫ হাজার ৪৯০ টাকা। এতে রয়েছে ৫ ইঞ্চি পর্দা, ৩ জিবি র‍্যাম, ৩২ জিবি রম, ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের ফোন বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান গাজী ইলেকট্রনিক্সের কর্মকর্তা রিমন আহমেদ টেকশহরডটকমকে জানান, ঈদ উপলক্ষে ফোনের বিক্রি ভালো হচ্ছে। গ্রাহকরা মধ্যম বাজেটের কিনতে বেশি আগ্রহী। ফোনের পাশাপাশি কভার, হেডফোন ও পাওয়ার ব্যাংকের বিক্রিও বেড়েছে।

দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটনের ১.৩ গিগাহার্জের কোয়াড কোর প্রসেসর, ২ জিবি র‍্যাম, ১৬ জিবি রমের প্রিমো এন৩ ফোনের দাম ১০ হাজার ২৯০ টাকা। প্রিমো আরএম৩ এস ফোনের দাম ১৪ হাজার ৪৯০ টাকা। এতে রয়েছে ৫.২ ইঞ্চি পর্দা, ১.৩ হাজার গতির অক্টাকোর প্রসেসর, ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

অপ্পো’র সেলফি এক্সপার্ট এফ৩ প্লাস ফোনের দাম ৩৯ হাজার ৯৯০ টাকা। এতে রয়েছে ৬ ইঞ্চি পর্দা। সামনের ক্যামেরা ১৬ মেগাপিক্সেল ক্ষমতার। এতে আছে অক্টাকোর প্রসেসর, ৪ জিবি র‍্যাম এবং ৬৪ জিবি রম।

এদিকে চলতি সপ্তাহে দেশের বাজারে এসেছে আসুস জেনফোন লাইভ। বিশ্বের প্রথম স্মার্টফোন হিসেবে এতে হার্ডওয়্যার অপ্টিমাইজড প্রযুক্তি ব্যবহার করে সরাসরি সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। এর বিল্টইন অ্যাপ ‘বিউটি লাইভ’ দিয়ে ব্যবহারকারীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরাসরি যেতে পারবেন। এতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লাইভে যাওয়ার বিশেষ সুবিধা আছে। স্মার্টফোনটির বিক্রি হচ্ছে ১৩ হাজার ৯৯০ টাকায়।

স্যামসাংয়ের ইনফিনিট ডিসপ্লের ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস এস৮ ও এস৮ প্লাস বিক্রি হচ্ছে যথাক্রমে ৭৭ হাজার ৯০০ এবং ৮৩ হাজার ৯০০ টাকায়। এছাড়া গ্যালাক্সি সি৯ প্রো ফোনের দাম ৪৯ হাজার ৯০০ টাকা ও গ্যালাক্সি এ৭ (২০১৭) ৪৪ হাজার ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

স্যামসাংয়ের বিক্রয় কর্মী আব্দুল রহমান টেকশহরডটকমকে জানান, ঈদের সময়টা সব সময় বিক্রি ভালো থাকে। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়।

স্মার্টফোনের পাশাপাশি মেমোরি কার্ড, মোবাইল ফোনের কভার, হেডফোন, পাওয়া ব্যাংক, ব্লুটুথ স্পিকার ইত্যাদি পণ্যের বিক্রি বেড়েছে। যে সকল গ্রাহকরা নতুন ফোন কিনতে পারছেন না তারা নতুন কভার বা মেমোরি কার্ড কিনে ফোনটি নতুন করে নিতে চাইছেন।

মোহাম্মদ শাহজাহান চাকরি করেন ব্যাংকে। তিনি টেকশহরডটকমকে জানান, ঈদের আগে নিজের ফোনকে আকর্ষণীয় করতে তিনি কাভার কিনছেন। সঙ্গে একটি মেমোরি কার্ডও নিয়েছেন। সেই সাথে ঈদের সময় যেন ফোনের ব্যাটারি ব্যাকআপ নিয়ে ঝামেলায় না পড়তে তাই কিনেছেন একটি পাওয়ার ব্যাংক।

তুসিন আহমেদ

*

*