Maintance

সাইবার নিরাপত্তায় শুরুতে প্রচারণা, পরে সমন্বয় বৈঠক

প্রকাশঃ ৪:৫৯ অপরাহ্ন, মে ১৬, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৪:৫৯ অপরাহ্ন, মে ১৬, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সাইবার নিরাপত্তা ইস্যুতে সচেতনতা বাড়াতে প্রচারণা শুরু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসি। এরপর সরকারি সংস্থাগুলোর কাজের মধ্যে সমন্বয়হীনতা কাটাতে একটি উচ্চ পর্যায়ের সমন্বয় বৈঠক করা হবে।

দেশে ও বিশ্বজুড়ে র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণের প্রেক্ষিতে টেলিযোগাযাগ বিভাগে এক বৈঠকে এ বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে বিটিআরসিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব সুবীর কিশোর চৌধুরী।

খুব দ্রুতই প্রচারণার কাজ শুরু করতে বৈঠক থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ইতোমধ্যে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ র‌্যানসমওয়্যার হতে নিরাপদ থাকতে ও ক্ষতি এড়াতে ৬টি পরামর্শ দিয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে।

এতে বলা হয়, পেন ড্রাইভ, সিডি, হার্ডডিস্কে সংরক্ষণ করে নিয়মিত ডেটা ব্যাকআপ রাখতে হবে।

উইন্ডোজ কম্পিউটারে ms17-010 প্যাচ (patch) দিয়ে হালনাগাদ করা, নিয়মিত উইন্ডোজ আপডেট এক্ষেত্রে উইন্ডোজ অটোমেটিক হালনাগাদ চালু রাখা।

কোনো অনিরাপদ বা অবিশ্বস্ত সোর্স হতে র‌্যানসমওয়্যার রিমুভ্যাল টুল ডাউনলোড না করা। কারণ এটি নতুন হামলা হতে পারে।

মেইলের সোর্স যাচাই না করে সেগুলো ক্লিক করা যাবে না। এগুলোতে দেয়া লিঙ্কগুলোতেও না। এছাড়া সিস্টেমে অ্যান্টি-ভাইরাস ব্যবহার করা।

ransomware

এদিকে সাইবার  নিরাপত্তায় দেশে বিভিন্ন সংস্থা নানাভাবে কার্যক্রম চালালেও কাজের মধ্যে সমন্বয় নেই বলে বৈঠকে অনেকেই মত প্রকাশ করেন। এতে করে যে কোনো সাইবার আক্রমণ হলে দেশের তথ্য প্রযুক্তি ও ডিজিটাইজেশন কার্যক্রম বড় ধরণের ক্ষতির মুখে পড়তে পারে বলেও মন্তব্য করেন কেউ কেউ।

টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের সভাপতিত্বে সোমবারের বৈঠকে টেলিযোগাযোগ বিভাগ, তথ্য প্রযুক্তি বিভাগ, বিটিআরসি, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থাসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

গত শুক্রবার থেকে র‍্যানসমওয়্যার পৃথিবীজুড়ে আক্রমণ শুরু করে, যার খানিকটা প্রভাব বাংলাদেশেও লেগেছে।

দেশে ইতিমধ্যে ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কয়েক ডজন কম্পিউটার র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণের শিকার হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দু’এক দিনের মধ্যেই সব টেলিভিশন এবং অন্যান্য সংবাদ মাধ্যমে সচেতনতামূলক বার্তা দিয়ে প্রচারণার কাজ শুরু করবে বিটিআরসি।

বৈঠকে সকল সংস্থার কাজের মধ্যে সমন্বয় রাখতে প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে একটি সমন্বয় বৈঠক আয়োজনের প্রস্তাব করা হয়। ওই বৈঠকে সকলের কাজের অগ্রগতি ও সমন্বয়ের বিষয়ে আলোচনা করার কথা বলা হয়।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় এ বিষয়ে টেলিযোগাযোগ বিভাগ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়কে চিঠি লেখা হবে, যাতে তারা বৈঠকটি আয়োজন করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

জামান আশরাফ

*

*