Maintance

অভিযোগের পাহাড়েও ঢাকায় জনপ্রিয় ‘অবৈধ’ উবার

প্রকাশঃ ২:৪৩ অপরাহ্ন, মে ১১, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৩:৪০ অপরাহ্ন, মে ১১, ২০১৭

ইমরান হোসেন মিলন, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বর্তমান সময়ে ঢাকাতে যে কয়েকটি ফেইসবুক পেইজ খুব সক্রিয় তার মধ্যে অন্যতম ‘উবার ইউজার ইন বাংলাদেশ’। গ্রুপটিতে প্রায় ৫০ হাজার ফেইসবুক ব্যবহারকারী যুক্ত আছেন।

তবে গ্রুপটিতে যেসব পোস্ট এবং মন্তব্যে কথোপকথন হয় তার উল্লেখযোগ্য অংশই দেশে উবারের ‘বাজে’ সার্ভিস নিয়ে। বেশিরভাগ পোস্ট যাত্রীদের হয়রানি, বাড়তি ভাড়া, যাত্রী না নিয়েই রাইড চালু করে রাখা এবং উবার চালকদের দুর্ব্যবহারের অভিযোগ সংক্রান্ত।

কিন্তু এতো এতো অভিযোগ থাকলেও দেশে ‘অবৈধ’ উবারের জনপ্রিয়তা এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলোর চেয়ে বেশি বলে বলছে উবার কর্তৃপক্ষ।

গত বছরের ২২ নভেম্বর দেশে উবার অ্যাপের মাধ্যমে ট্যাক্সি সার্ভিস চালু করে সানফ্রানসিসকো ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটি।

uber bd

উবার কর্তৃপক্ষ বলছে, চালুর পর পাঁচ মাসে প্রতি মাসে দুই অঙ্কের বেশি হারে চালক ও যাত্রী বেড়েছে ঢাকাতে।

এশিয়ার শহরগুলোর মধ্যে এই বৃদ্ধির হার ঢাকাতেই সবচেয়ে বেশি। ঢাকায় উবারের যাত্রা শুরু একটিমাত্র প্রোডাক্ট উবার এক্স দিয়ে। আর গত বছরের ৫ ডিসেম্বর থেকে ২৪ ঘণ্টায় সার্ভিসটি চলছে।

তবে ইতোমধ্যেই অনেক যাত্রীর ভাড়া গুণতে হয়েছে বেশ কয়েকগুণ। আর সে কারণেই যাত্রীদের নাভিশ্বাস উঠেছে অল্প পথ পেরোতে সিএনজি-অটোরিক্সার চেয়ে ক্ষেত্র বিশেষে তিনগুণ বা তার বেশি।

একজন উবার ব্যবহারকারী ওয়াহিদ সামি উবার ইউজার গ্রুপ বাংলাদেশে লিখেছেন, উবারের বর্তমান ভাড়া সিএনজির চেয়ে ক্ষেত্র বিশেষ ৩ গুণ! ৫.৫ কি.মি. রাস্তায় প্রতিদিনই ৩০৫-৩৩০ টাকা বিল উঠে; এমন কোনো যানজটও না। যদি ভাড়াটা ২০০ টাকার মতো হতো, আমার ধারণা অনেকাংশে লোক এমনকি ব্যক্তিগত গাড়ি আছে এমন লোকও উবার ব্যবহারের দিকে বেশী ঝুঁকে পড়তো। আর গাড়ি বেশী মানে উবারের কমিশনও বেশী। আর উবারের লস তো সেবা বন্ধ। আমার পরামর্শ উবারের ভাড়া কিছু কমানো উচিত।

এর আগে উবার যে ভাড়ায় ঢাকায় তাদের সার্ভিস শুরু করে চলতি বছরের ২৩ মার্চ থেকে তারা তা বাড়িয়ে দেয়।
শুরুতে প্রতি কিলোমিটারের ভাড়া ১৮ টাকায় শুরু হলেও তা বেড়ে ২১ টাকা হয়েছে। প্রতি মিনিট ওয়েটিং চার্জ ২ টাকা থেকে হয়েছে ৩ টাকা। আর এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ৫০ টাকা বেইজ ভাড়া।

উবার ভাড়া বাড়ালেও ঢাকাতে এখন প্রতিদিনই নতুন সব গাড়ি উবারে যুক্ত হচ্ছে বলে জানায় উবার কর্তৃপক্ষ।
তবে নতুন গাড়ি যুক্ত হওয়ায় অনেক যাত্রী বিড়ম্বনায় পড়েছেন বলেও অনেকেই ফেইসবুকে পোস্টের মাধ্যমে জানিয়েছেন।

ফাহমিদা আখতার নামের একজন নিজের টাইমলাইনে পোস্টে লিখেছেন, তাকে তিন মিনিটের দূরত্বে দেখানো গাড়ি পেতে দেরি করতে হয়েছে ২০ মিনিট।

চালক ম্যাপ দেখেও রাস্তা না চেনায় এমন ঘটেছে উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, যতো বেশি নেটওয়ার্কে যোগ হবে তত ভালো খবর কিন্তু সার্ভিস যেন খারাপ না হয় সেদিকেও লক্ষ রাখতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন তিনি। এজন্য চালকদের অন্তত কিছুটা হলেও প্রশিক্ষণ দেওয়ার দরকার বলেও লিখেন তিনি।

এশিয়ার ৩৩তম শহর হিসেবে ঢাকায় উবার চালুর তিন দিনের মাথায় বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে অ্যাপে পরিবহন সেবা দেওয়ার এই প্রতিষ্ঠানকে বেআইনি ও অবৈধ ঘোষণা করে।

কিন্তু তারপর ছয় মাস সময় পেরোলেও তা এখনো কোনো কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বৈধতা পায়নি।

উবারের মুখপাত্র এক বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়েছেন, , তারা এখনো সরকারের সঙ্গে কাজ করছেন। তারা নীতিমালার আওতায় আসতে চান এবং এই আলোচনা একটি সঠিক দিকে গেলে তারা খুশি হবেন।

দেশে রাইড শেয়ারিং ব্যবস্থার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে, যা এই শহরে যাতায়াত ব্যবস্থায় ভালো একটি প্রভাব ফেলবে বলেও মনে করে উবার কর্তৃপক্ষ।

*

*

Related posts/