Maintance

বাড়ছে না পিসি বিক্রি

প্রকাশঃ ৯:৪৮ পূর্বাহ্ন, অক্টোবর ১২, ২০১৩ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৯:৫২ পূর্বাহ্ন, অক্টোবর ১২, ২০১৩

টেক শহর ডেস্ক : টানা ছয় প্রান্তিক ধরে কমতির দিকে রয়েছে ডেস্কটপ কম্পিউটারের বিক্রি। চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে এসে পিসি বিক্রির হার কমেছে ৮.৬ শতাংশ। এ প্রান্তিকে সারাবিশ্বে মাত্র ৮ কোটি পিসি বিক্রি হয়েছে। বাজার বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান গার্টনারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। অপর এক প্রতিষ্ঠান আইডিসি পিসি বিক্রির হার ৭.৬ শতাংশ কমেছে বলে উল্লেখ করেছে।

সাধারণত যেকোনো বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে, অর্থাৎ জুলাই থেকে সেপ্টেম্বরে পিসির বাজার রমরমা থাকে। এসময়ে শিক্ষার্থীরা নতুন শিক্ষাবর্ষে প্রবেশ করে, নতুন বছরের প্রস্তুতি হিসেবে বেড়ে যায় পার্সোনাল কম্পিউটারসহ শিক্ষা সম্পর্কিত পণ্যের বিক্রি। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানও এ সময়ই কারিগরি বিভাগে নতুন নতুন হার্ডওয়্যার সংযোজন করে। কিন্তু এবারের তৃতীয় প্রান্তিকে পিসি বিক্রি তো বাড়েইনি, উল্টো মন্দা বেড়েছে। বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই নতুন শিক্ষাবর্ষকে সামনে রেখে ট্যাবলেট বা নোটবুক কিনেছে, কিংবা আগেরটাই ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Desktop user girl_Tech Shohor

আইডিসি আরও জানিয়েছে, এবারের প্রান্তিকে উইন্ডোজ এক্সপি থেকে উইন্ডোজ সেভেনে প্রবেশ করেছেন প্রচুর ব্যবহারকারী। অনেকে উইন্ডোজ এইটে প্রবেশ করেছেন ও করছেন, যার ফলে ভালোই বিক্রি হচ্ছে উইন্ডোজ এইট ভিত্তিক নতুন মডেলের ট্যাবলেট ও ল্যাপটপগুলো।

গার্টনার জানিয়েছে, সব স্তরের বাজারেই ভোক্তারা দৈনন্দিন কাজের জন্য পিসি থেকে ট্যাবলেটের দিকে আকৃষ্ট হচ্ছেন। বিশেষ করে নতুন ভোক্তারা পিসির বদলে কমদামী অ্যান্ড্রয়েড ট্যাবলেটগুলো কেনার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। এই নতুন ভোক্তারাই এর আগে কম্পিউটার মার্কেটের বড় অংশ দখল করে ছিলেন।

আইডিসির বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ক্রোমবুক, আইপ্যাডের মতো ‘আল্ট্রাস্লিম’ ডিভাইসগুলোর দাপটে এ প্রান্তিকে যুক্তরাষ্ট্রের পিসি মার্কেটে একবিন্দু প্রবৃদ্ধি হয়নি। ২০১৪ সালে পিসি বিক্রি কমার এ হার অব্যাহত থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অবশ্য অনেকেই ধারণা করেছিলেন, মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ ৮.১ বাজারে আসার ঘোষণার পর কিছুটা বাড়তে পারে পিসি বিক্রি। এ সপ্তাহের শেষেই মুক্তি পাচ্ছে নতুন এই উইন্ডোজ। এর কোনো প্রভাব কম্পিউটার মার্কেটে পড়ে কিনা, তা দেখার জন্য চতুর্থ প্রান্তিক পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

তবে মন্দার মধ্যেও পিসি বিক্রির দিক দিয়ে দ্বিতীয় প্রান্তিকেই প্রতিদ্বন্দ্বী এইচপিকে ছাড়িয়ে গেছে চীনের প্রতিষ্ঠান লেনোভো। এ সময়ে তাদের বিক্রি ২.৮ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় দেড় কোটি ইউনিটে। এইচপি ও ডেলের বিক্রি বেড়েছে দেড় ও ১ শতাংশ। তবে ধস নেমেছে এসার ও আসুসের বিক্রিতে।

– পিসিওয়ার্ল্ড অবলম্বনে হাসান শাহরিয়ার হৃদয়

*

*