Maintance

ফেইসবুকে অগমেন্টেড রিয়েলিটি

প্রকাশঃ ৬:২৮ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১৯, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:২৮ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১৯, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : পোকেমন গো দিয়ে জনপ্রিয় হওয়া প্রযুক্তি অগমেন্টেড রিয়েলিটিতে নজর দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ জায়ান্ট ফেইসবুক।

ইতোমধ্যে ফেইসবুক এটি নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষাও চালিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ফেইসবুক কেন্দ্রিক ব্যবসার সম্প্রসারণ করার জন্য অগমেন্টেড রিয়েলিটির জন্য ফেইসবুক ভালো একটি প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করতে পারবে বলে জানিয়েছেন জাকারবার্গ।

মঙ্গলবার প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক এফ৮ ডেভেলপারস কনফারেন্সে প্রযুক্তিটি নিয়ে কাজ করার কথা জানিয়েছেন জাকারবার্গ।

তবে পোকেমন গো এর মতো কোনো গেইম তৈরির পরিকল্পনা ফেইসবুকের নেই বলেও বলেন তিনি।

Inspired+by+Pokemon+Go,+Facebook+pushes+augmented+reality-TECHSHOHOE

আগের বছর উন্মোচন করা হয় পোকিমোন গো। বাজারে আসার পর অল্প সময়ের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তায় রেকর্ড গড়েছে গেইমটি। গ্রাহকের মোবাইলে ক্যামেরার মাধ্যমে বাস্তব দুনিয়ায় অ্যানিমেটেড কার্টুন সংগ্রহ করতে হয় এই গেইমে।

সম্প্রতি ফেইবুকের মোবাইল অ্যাপেও যোগ করা হয়েছে ক্যামেরা অপশন। জাকারবার্গ জানান, এর মাধ্যমে পোকিমন গো-এর মতো একই ধরনের ফিচার চালু করতে পারবে প্রতিষ্ঠানটি।

জাকারবার্গ বলেন, যদিও আমাদের সকল অ্যাপে ক্যামেরা যোগ করতে আমরা ধীর গতিতে এগোচ্ছি, আমি আত্মবিশ্বাসী যে আমরা এই অগমেন্টেড রিয়ালিটি প্ল্যাটফর্মকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি।

ফেইসবুকে অগমেন্টেড রিয়ালিটি সংযোজনের বিষয়ে তিনি বলেন, এর মাধ্যমে এক বন্ধু অন্য বন্ধুর জন্য ভার্চুয়াল নোট রেখে যেতে পারেন বা রাস্তায় দেয়ালে ভার্চুয়াল শিল্প রেখে যেতে পারেন, বাস্তবে যেটি আসলে ফাঁকা।

তিনি বলেন, এটি শুধু একটি ব্লকের মধ্যে পোকিমন খোঁজা নয়।

চোখে পড়ার মতো কোনো ডিভাইসেই অগমেন্টেড রিয়ালিটি ব্যবহার করবেন গ্রাহক। তবে, এর জন্য ফেইসবুক কোনো হার্ডওয়্যার তৈরি করবে কিনা সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি জাকারবার্গ।

এ যাবত ভার্চুয়াল রিয়ালিটি প্রযুক্তি নিয়েই গবেষণা চালাচ্ছিল ফেইসবুক। ২০১৪ সালে ২০০ কোটি মার্কিন ডলারে ভিআর প্রতিষ্ঠান অকুলাস-কে কেনে ফেইসবুক। ইতোমধ্যেই ভিআর হেডসেটও এনেছে প্রতিষ্ঠানটি। তবে, এখনও বড় পরিসরে এর উৎপাদন শুরু করতে অনেকটা দেরি রয়েছে বলে জানানো হয়।

কনফারেন্সে ফেইসবুকের ভিডিও কনটেন্টে আরও উন্নয়ন করার কথাও জানান প্রতিষ্ঠান প্রধান। আতঙ্ক ছড়ায় এমন ভিডিও দমন করতে উদ্যোগ নেবে প্রতিষ্ঠানটি। রোববার যুক্তরাষ্ট্রের ক্লিভল্যান্ডে হত্যার লাইভ ভিডিও সম্প্রচার করা হয়। পরবর্তীতে দুই ঘণ্টা সেটি ফেইসবুকে ছিল।

রয়টার্স ও বিডিনিউজ২৪ অবলম্বনে

*

*

Related posts/