Maintance

স্টার্টআপদের দিশা দেবে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ : পলক

প্রকাশঃ ৬:২১ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১৮, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৬:২১ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১৮, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, সব ধরনের উদ্যোগ যে সফল হবে তা নয়, বরং অনেক উদ্যোগ ব্যর্থতার হাত ধরেই সফলতার দেখা পায়। তাই ধৈর্য্য ধরে উদ্যোগকে অন্যের সামনে নিয়ে আসতে হবে। ব্যর্থ হওয়ার পর যে সাহসটা দরকার তা আমরা দিতে চাই।

প্রযুক্তিখাতে তরুণদের বিভিন্ন উদ্ভাবনে যুক্ত ও তাদের সৃজনশীলতাকে সহায়তা করতে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ থেকে অর্থায়ন করতে সরকার প্রস্তুত আছে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের বিসিসি অডিটোরিয়ামে ‘ডিজিটাল অপরচুনিটি ফর স্টাটআপ ইন আইসিটি ডিভিশন’ শিরোনামের এক কর্মশালার শুরুতে এসব কথা বলেন তিনি।

Startup-Palak-Techshohor

কর্মশালার শুরুতে কি-নোট পেপার উপস্থান করেন প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, এমন কোনো উদ্যোগ যা বিশ্বমানের, যা এখন নাই এমন কিছু সল্যুসন নিয়ে আসেন। সম্পূর্ণ ফান্ডিং যত রকমের সহযোগিতা লাগে আমরা দেব। ই-ইমিগ্রেশন, মিউনিসিপালিটি সিটিজেন সার্ভিস সিস্টেম, ই-কাস্টমস সার্ভিস সিঙ্গেল উইন্ডো ইত্যাদি এখন হাই প্রয়োরিটি। এগুলোর সল্যুসন নিয়ে আসেন, এগুলো আমাদের দরকার, আমাদের ফান্ড আছে, প্রজেক্ট আছে।

দেশে মোবাইল গেইমে ১৬ হাজারের বেশি তরুণ-তরুণীকে বিনামূল্য প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে বলে বলেন তিনি। তিনি বলেন, এই প্রশিক্ষণে এক হাজার ৫০ মোবাইল গেইম ও অ্যাপ তৈরি করবো, যারা অ্যাপ বা গেইম ডেভলপার যারা তাদের আইডিয়া প্রোডাক্ট হিসেবে নিয়ে আসতে চান, তাদের ফান্ড দিয়ে সহযোগিতা করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ থেকে যে ইনোভেশন ফান্ড আছে সেখান থেকে স্টার্টআপদের ন্যূনতম ৩০ লাখ এবং বিশেষ অনুদান হিসেবে ৫০ লাখ টাকা দেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব সুবীর কিশোর চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন বিকাশের প্রধান নির্বাহী কামাল কাদির, দেশীয় স্টার্টআপ উন্নয়নে সহযোগীতাকারী শাহানা শারমিন ও সাইফ কামাল।

কর্মশালায় অংশ নেওয়া স্টার্টআপরা বিভিন্ন প্রশ্নের মাধ্যমে নিজেদের সমস্যাগুলো তুলে ধরেন এবং সমাধানের পথ জানতে চান। অনুষ্ঠানে শতাধিক স্টার্টআপ অংশ নেয়।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

Related posts/