Maintance

বিশ্বকাপ ফুটবলে হামলার হুমকি হ্যাকারদের

প্রকাশঃ ৮:৪৬ অপরাহ্ন, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৪ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৮:৪৬ অপরাহ্ন, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৪

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বকাপ ফুটবলে সাইবার আক্রমনের হুমকি দিয়েছে হ্যাকাররা। ব্রাজিলের হ্যাকাররা বলেছে, বিশ্বকাপ ফুটবল ‘ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ-২০১৪’ অনুষ্ঠানের সময় ফিফা, ব্রাজিল সরকার ও স্পন্সর প্রতিষ্ঠানগুলোর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটগুলোতে একযোগে আক্রমন চালানো হবে।

হুমকির সত্যতা ও সেইসঙ্গে ব্রাজিলিয়ান এই হুমকিদাতাদের সাথে আন্তর্জাতিক হ্যাকার সংগঠন অ্যানোনিমাসের যে যোগাযোগ রয়েছে তা নিশ্চিত করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

world-cup-2014-TechShohor

ছদ্মনামী হ্যাকার চে কমোডোরে জানায়,অফিশিয়াল ওয়েবসাইট এবং স্পন্সর কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোই আক্রমনের টার্গেটে থাকবে। এতে ডিস্ট্রিবিউটেড ডিনায়াল অফ সার্ভিস (ডিডস) আক্রমন হবে। তবে সাধারণ ব্রাজিলিয়ান নাগরিকদের এ নিয়ে দুশ্চিন্তার কোন কারণ নেই।

আরেক ছদ্মনামী হ্যাকার এডুয়ার্ডো ডিয়োরাট্টো জানায়, “সকল পরিকল্পনা শেষ। আমাদের ঠেকাতে তাদের কোন পদক্ষেপ কাজে আসবে না”।

অন্যদিকে বিশ্বকাপে নিজেদের অনলাইন নিরাপত্তা সামলে রাখতে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভুগলেও ব্রাজিলের সেনাবাহিনী বড় ধরণের হুমকি ঠেকানোর সামর্থ্যের কথা বলেছে।

তবে এখন পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিক কোন মন্তব্য করেনি ফিফা।

রয়টার্সের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বকাপ আয়োজনে নতুন স্টেডিয়াম ও অন্যান্য খাতে বিপুল অর্থ খরচ করা হয়েছে। সেই সমারোহে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থাটি গুরুত্বে আসেনি। যেখানে ব্রাজিলের অনলাইন নিরাপত্তা ব্যবস্থা খুবই দুর্বল ও পাইরেটেড সফটওয়্যারে ছয়লাব অবস্থা। বিপরীতে সাইবার অপরাধীরাও বেশ দক্ষ।

বিশ্বকাপ আয়োজনে ব্রাজিলের আনুমানিক ৮৪০ কোটি পাউন্ড ব্যয় হবে। আর এই ব্যয় দেশটির দারিদ্রের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। যেখানে মোট জনসংখ্যার বড় অংশই দারিদ্রসীমার নিচে বাস করে। এরমধ্যে কনফেডারেশন কাপ চলাকালীন সময়ে প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে এসেছিল ১০ লাখ মানুষ। ফলে বিশ্বকাপ নিয়ে জনরোষের অভিজ্ঞতা ব্রাজিল সরকারের ইতিমধ্যে হয়েছে।

– আল আমীন দেওয়ান

*

*