সিটি আইটি মেলা : মূল্য ছাড়ে ক্রেতা টানার চেষ্টা

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : রঙ্গিন সাজে সেজেছে বিসিএস কম্পিউটার সিটি। ক্রেতাদের মনোযোগ আকর্ষণে এ ভবনের দোকানগুলোতে চলছে নানা আয়োজন। সিটিআইটি কম্পিউটার মেলা উপলক্ষে নিজেদের সেরাটা উপস্থাপনের চেষ্টায় বিক্রেতারা। তবে মেলার মূল আকর্ষণ সব ধরণের পণ্যের মূল্যছাড়।

আগারগাঁওয়ে অবস্থিত দেশের শীর্ষস্থানীয় এ কম্পিউটার সিটির ১৬০ বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান মেলায় নতুন পণ্য আনার চেয়ে আগের পণ্য বিক্রির দিকে বেশি জোর দিচ্ছে।

cityitfai_techshohor

বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মেলায় সর্বশেষ মডেলের নতুন পণ্য আসার তেমন চেষ্টা নেই। নতুন মডেলের ক্রেতা থাকে হাতেগোনা। তাই সেদিকে নজর না দিয়ে বেশি পরিমানে পণ্য বিক্রির পরিকল্পনা বিক্রেতাদের। এ জন্য ক্রেতা টানতে সব ধরনের পণ্যে ছাড় দিচ্ছেন তারা।

কম্পিউটার সিটির এ মেলায় পাওয়া যাবে কম্পিউটার হার্ডওয়ার, সফটওয়ার, নেটওয়ার্ক ডাটা কমিউনিকেশন, মাল্টিমিডিয়া আইসিটি শিক্ষা উপকরণ, ল্যাপটপ, নোটবুক, ট্যাবলেট, পামটপ, ডিজিটাল সব ডিভাইসসহ প্রায় সব ধরনের তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সামগ্রী।

মেলার শুরুতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সব প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন অফার দিচ্ছে। এসার মূল্যহ্রাস ছাড়াও বিভিন্ন পণ্যের সঙ্গে আর্কষনীয় উপহার দিচ্ছে। প্রতিটি ল্যাপটপের সঙ্গে উপহার হিসেবে থাকছে মাউস। মডেল অনুযায়ী উপহার হিসেবে থাকবে পেনড্রাইভ, স্পিকার ও পিন্টার।

এসার ব্র্যান্ড শপের এক কর্মী টেকশহরডটকমকে জানান, মডেল অনুযায়ী দাম পাঁচশ থেকে এক হাজার টাকা কমানো হয়েছে।

কম্পিউটার বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান ইউসিসির এএমডি প্রসেসর কিনলে টি-শার্ট, মগ, ক্যালেন্ডার উপহার দেওয়া হবে।

তবে একেবারে যে নতুন পণ্য আসেনি তা নয়। লেনোভো ব্র্যান্ডের নতুন কয়েকটি ল্যাপটপ এসেছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে ১১ ইঞ্চি ডিসপ্লের নোটবুক আইডিয়াপ্যাড এস২১৫। এতে রয়েছে ২ গিগাবইট র‍্যাম, এএমডি ১ গিগাহার্জ প্রসেসর এবং ৫০০ গিগাবাইট স্টোরেজ সুবিধা। এটির মূল্য ২৭ হাজার টাকা। তবে মেলা উপলক্ষে এর দাম কিছুটা কমানোর কথা জানিয়েছন বিক্রেতারা।

লেনোভোর গেইমিং ল্যাপটপ আইডিয়াপ্যাড ৫১০পি পাওয়া যাচ্ছে। এতে রয়েছে কোর আই সেভেন প্রসেসর, ৮ গিগাবাইট র‍্যাম, ১ টেরাবাইট স্টোরেজ সুবিধা। এটির মূল্য ৯৬ হাজার টাকা।

‘বিশ্বকাপের খেলা-প্রযুক্তির মেলা’ স্লোগান নিয়ে শুরু হওয়া এ প্রদর্শনী আগামী ৮ মার্চ পর্যন্ত চলবে। প্রবেশ মূল্য ধরা হয়েছে ১০ টাকা। প্রতিবারের মতো এবারও মেলায় শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে বিনামূল্যে প্রবেশের সুযোগ পাবে।

এ ছাড়া প্রতিবন্ধীরা বিনামূল্যে মেলায় প্রবেশে অগ্রাধিকার পাবেন। প্রতিদিন প্রবেশ টিকেটের ওপর র‍্যাফেল ড্রয়ের মাধ্যমে দেওয়া হবে আকর্ষণীয় সব প্রযুক্তিপণ্যের পুরস্কার।

মেলা প্রাঙ্গনে বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্যবহার সুবিধা ছাড়াও বিভিন্ন ধরণের প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।

Related posts

*

*

Top