বিসিএস আইসিটি ওয়ার্ল্ডের যাত্রা শুরু বৃহষ্পতিবার

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : রাজধানীতে আরও একটি তথ্যপ্রযুক্তি বাজারের যাত্রা শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার। এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্কে নতুন এ বাজার চালু হচ্ছে।

ফিউচার পার্কের লেভেল ৪-এ বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) উদ্যোগে আড়াই লাখ বর্গফুট স্থানজুড়ে বিসিএস আইসিটি ওয়ার্ল্ড নামের এ বাজার গড়ে তোলা হয়েছে। এতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি পণ্য এবং মোবাইল ফোনের দেড় শতাধিক দেশি-বিদেশি নামী প্রতিষ্ঠানের দোকান থাকবে।

বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আইসিটি ওয়ার্ল্ডের উদ্বোধন করবেন। এ বাজার চালু উপলক্ষে এক প্রদশর্নীরও আয়োজন করা হয়েছে।

কম্পিউটার ও মোবাইলের এ প্রদর্শনী চলবে ৮ মার্চ পর্যন্ত। তথ্যই শক্তি, প্রযুক্তিতে মুক্তি’ স্লোগান নিয়ে শুরু এ প্রদর্শনী সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

BCS ICT World 2014 Meet the press-TechShohor

তথ্যপ্রযুক্তি বাজার ও প্রদর্শনী উদ্বোধন উপলক্ষে মঙ্গলবার বিসিএস কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।সংবাদ সম্মেলনে সমিতির মহাসচিব ও প্রদর্শনীর আহবায়ক শাহিদ-উল-মুনীর প্রদর্শনীর বিস্তারিত তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানে সমিতির বিসিএস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার, সহ-সভাপতি মঈনুল ইসলাম, পরিচালক মজিবুর রহমান স্বপন ও বাংলালায়ন কমিউনিকেশনের হেড অব মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকশন জি এম ফারুক খান বক্তব্য দেন।

সমিতির কোষাধ্যক্ষ জাবেদুর রহমান শাহীন, পরিচালক এটি শফিক উদ্দিন আহমেদ ও ফয়েজউল্যাহ খান এবং মাত্রার সিইও খন্দকার আলমগীর উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, তথ্যপ্রযুক্তি, ডিজিটাল জীবনধারা ও মুঠোফোনভিত্তিক নতুন সব আবিস্কারের খোঁজ মিলবে এখানে। পাশাপাশি থাকবে সচেতনতা ও বিনোদনমূলক নানা আয়োজন। থাকবে উৎসবমুখর ইভেন্ট কর্নার, যাতে থাকবে সেলিব্রেটি শো, কুইজ প্রতিযোগিতা, প্রোডাক্ট শো, যাদু প্রদর্শনী, কৌতুক পরিবেশনা ইত্যাদি আয়োজন।

প্রদর্শনী চলাকালে তথ্যপ্রযুক্তি ও সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অন্তত পাঁচটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। প্রদর্শনীতে শিক্ষার্থীদের জন্য থাকছে ডিজিটাল চিত্রাঙ্কন ও চিত্রাঙ্কন, ভার্চুয়াল ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, গেমিং ইত্যাদি আয়োজন। থাকছে ডিজিটাল এডুকেশন জোন।

পুরো মেলা প্রাঙ্গনেই থাকবে ফ্রি ওয়াই-ফাই সুবিধা আর ইন্টারনেট ব্রাউজিং কর্নারে দর্শনার্থীদের সুযোগ থাকছে উচ্চ-গতির ইন্টারনেট বিনামূল্যে ব্যবহারের।

প্রদর্শনী চলাকালে তথ্যপ্রযুক্তি ও মুঠোফোন পণ্য ও সেবায় থাকছে আকর্ষণীয় ছাড় এবং বিশেষ উপহার। দর্শনার্থীরা তা কেনাকাটা করতে পারবেন অনলাইনেও।

আর প্রদর্শনী চলাকালে যমুনা ফিউটার পার্কের সব সেবায় (ব্লকবাস্টার সিনেমাস, ইনডোর ও আউটডোর রাইডস ইত্যাদি) থাকছে ১০ শতাংশ ছাড়।

প্রদর্শনী উপলক্ষে সমান্তরালভাবে আয়োজন করা হয়েছে ভার্চুয়াল ওয়েব ফেয়ার। এতে থাকবে প্রদর্শনীর প্রতি মুহুর্তের আলোকচিত্র, অনুষ্ঠানাদির সময়সূচি, প্রদর্শনীর স্পন্সর ও প্রদর্শক এবং তাদের পণ্য সামগ্রীর তালিকা, প্রতিদিনের বিশেষ অফার, বিভিন্ন প্রতিযোগিতাসহ প্রদর্শনীর সব আয়োজন।

যে কেউ এতে অংশ নিয়ে জিতে নিতে পারবেন দেড় শতাধিক আকর্ষণীয় পুরস্কার। এজন্য দর্শনার্থীদের লগঅন করতে হবে প্রদর্শনীর ওয়েবসাইট www.bcsictworld.com.bd -এ।

মেলার প্রবেশমূল্য জনপ্রতি ২০ টাকা। প্রতিদিন টিকেটের ওপর র‍্যাফেল ড্রয়ের আয়োজন থাকবে। প্রতিদিন ল্যাপটপসহ জনপ্রিয় ১০টি তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য পুরস্কার হিসাবে দেওয়া হবে।

বিসিএসের অন্যান্য প্রদর্শনীর মতো এবারও স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র প্রদর্শন সাপেক্ষে বিনামূল্যে প্রদর্শনীতে প্রবেশ করতে পারবে। এছাড়া অনলাইনে নিবন্ধন করেও যে কেউ এ সুবিধা নিতে পারবেন। এজন্য তাকে www.bcsictworld.com.bd -এ নিবন্ধন করে এর প্রিন্ট কপি সঙ্গে আনতে হবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল প্রদর্শনী আয়োজনে সহযোগিতা করছে। প্রদর্শনীর সহযোগতিয়া রয়েছে ডাচ-বাংলা ব্যাংক, গ্রামীণফোন, বাংলালায়ন, ক্যাসপারস্কি ও মাত্রা।

মিডিয়া পার্টনার চ্যানেল আই, দৈনিক সমকাল, রেডিও এবিসি ও বিডিনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম।

– সংবাদ বিজ্ঞপ্তি অবলম্বনে তুহিন মাহমুদ

Related posts

*

*

Top