Maintance

তরুণদের তথ্যপ্রযুক্তির উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান

প্রকাশঃ ৪:২৫ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৬ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৪:৪৫ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৬

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের তরুণদের তথ্যপ্রযুক্তি পেশায় উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে দিক নির্দেশনা দিতে একটি সেমিনার করেছে বাংলাদেশ আইসিটি ইনোভেশন ফোরাম।

তথ্যপ্রযুক্তি ব্যাকগ্রাউন্ড ছাড়াও যে এই খাতে দক্ষ উদ্যোক্তা হওয়া সম্ভব সে সম্পর্কে আলোকপাত করা হয়েছে অনুষ্ঠানটিতে।

সেমিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) সভাপতি মোস্তাফা জব্বার।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ আইসিটি ইনোভেশন ফোরাম গঠিত হওয়ায় আমি ব্যক্তিগতভাবে আনন্দিত। এধরনের ফোরাম দেশের তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পে নতুন উদ্যোক্তা তৈরিতে নিঃসন্দেহে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

tech-meetup-techshohor

আজকের তরুণ সমাজই আগামী দিনের দেশ গড়বে। তরুণ সমাজ যত বেশি ইনোভেটিভ চিন্তা করবে দেশের পরিবর্তনে ততবেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে।

সেমিনারে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জুমশেপার এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও কাওসার আহমেদ। আইটি বিষয়ে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা না থাকলেও আইটি উদ্যোক্তা হিসেবে কিভাবে সফলতা পাওয়া যেতে পারে এ বিষয়ে নিজের অভিজ্ঞতার আলোকে অংশগ্রহণকারীদের দিকনির্দেশনামূলক বিভিন্ন কথা বলেন কাওসার।

তিনি বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে কোনো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ছাড়াই প্রতিষ্ঠা করেছেন পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম জুমলা টেম্পলেট কোম্পানি ‘জুমশেপার’। এসময় তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তা হওয়ার বিষয়ে অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি।

অনুষ্ঠানের আয়োজক ‘বাংলাদেশ আইসিটি ইনোভেশন ফোরাম’ এবং ‘স্পেস অ্যাপস বাংলাদেশ’ এর আহ্বায়ক আরিফুল হাসান অপু বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তা হওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের দেশের তরুণরা যেসব চড়াই-উতরাইয়ের সম্মুখীন হন সেগুলোর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া এবং সেগুলো কিভাবে অতিক্রম করা যায় এ বিষয়ে তাদের দিক নির্দেশনা দেয়া এধরনের কার্যক্রমের প্রধান উদ্দেশ্য।

তিনি জানান, বাংলাদেশ আইসিটি ইনোভেশন ফোরাম সারাদেশে এধরনের অনুষ্ঠান করবে। এই কার্যক্রম অংশগ্রহণকারীদের আইটি বিষয়ে ইনোভেটিভ আইডিয়াগুলোকে এগিয়ে নিতে সহায়তাও করা হবে।

এই অনুষ্ঠান আয়োজনের সহযোগিতায় ছিল স্পেস অ্যাপস বাংলাদেশ, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, প্রিজম ইআরপি এবং ইএমকে সেন্টার।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*