যমুনা ফিউচার পার্কে এবারের বিসিএস আইসিটি ওয়ার্ল্ড

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) আয়োজনে ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ০৮ মার্চ যমুনা ফিউচার পার্কের লেভেল ৪-এ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে হালনাগাদ তথ্যপ্রযুক্তিপণ্যের আন্তর্জাতিক মানের জমকালো প্রদর্শনী ‘বিসিএস আইসিটি ওয়ার্ল্ড ২০১৪’। ‘তথ্যই শক্তি, প্রযুক্তিতে মুক্তি’ শ্লোগানে আয়োজিত এ প্রদর্শনীতে তথ্যপ্রযুক্তির শতাধিক দেশী-বিদেশী নামি প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে।

আর এ প্রদর্শনীর মধ্য দিয়েই এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্কে চালু হচ্ছে ২ লাখ ৫০ হাজার বর্গফুটের অত্যাধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি-বাজার।

BCS ICT World Meet the press-TechShohor

‘বিসিএসআইসিটিওয়ার্ল্ড ২০১৪’ উপলক্ষে রোববার বিসিএস কার্যালয়ে আয়োজিত মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিসিএস সভাপতি মোস্তাফা জব্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সমিতির মহাসচিব ও প্রদর্শনীর আহ্বায়ক মো: শাহিদ-উল-মুনীর পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে প্রদর্শনীর বিস্তারিত তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে যমুনা গ্রুপের পরিচালক (মার্কেটিং, সেলস অ্যান্ড অপারেশন) ড. মোহাম্মদ আলমগীর আলম এবং মাত্রার ব্যবস্থাপনা পরিচালক সানাউল আরেফিন বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে সমিতির সহ-সভাপতি মো: মঈনুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ মো. জাবেদুর রহমান শাহীন ও পরিচালক মো. ফয়েজউল্যাহ খান উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও সমিতির সদস্য, প্রদর্শনীর স্পন্সর প্রতিনিধি ও প্রদর্শক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা মিট দ্য প্রেসে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, তথ্যপ্রযুক্তিবিশ্ব ও ডিজিটাল জীবনধারাভিত্তিক নতুন সব আবিষ্কারের খোঁজ মিলবে এখানে। পাশাপাশি থাকবে সচেতনতা, বিনোদন ও শিক্ষামূলক বৈচিত্র্যময় নানা আয়োজন। প্রদর্শনী প্রাঙ্গনে থাকবে উৎসবমূখর ইভেন্ট কর্নার, যাতে থাকবে সেলিব্রেটি শো, কুইজ প্রতিযোগিতা, প্রোডাক্ট শো, যাদু প্রদর্শনী, কৌতুক পরিবেশনা ইত্যাদি আয়োজন।

প্রদর্শনী চলাকালে তথ্যপ্রযুক্তি ও সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অন্তত পাঁচটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। প্রদর্শনীতে শিক্ষার্থীদের জন্য থাকছে ডিজিটাল চিত্রাঙ্কন, চিত্রাঙ্কন, ডিজিটাল ফটোগ্রাফি ও গল্প লিখন প্রতিযোগিতা, গেমিং ইত্যাদি আয়োজন। পুরো মেলা প্রাঙ্গনে থাকবে বিনামূল্যের ওয়াই-ফাই জোন, ইন্টারনেট ব্রাউজিং কর্নারে দর্শনার্থীদের সুযোগ থাকছে উচ্চ-গতির ইন্টারনেট বিনামূল্যে ব্যবহারের।

প্রদর্শনী উপলক্ষে সমান্তরালভাবে আয়োজন করা হয়েছে ভার্চুয়াল ওয়েব ফেয়ার। এতে থাকবে প্রদর্শনীর প্রতি মুহুর্তের আলোকচিত্র, অনুষ্ঠানাদির সময়সূচি, প্রদর্শনীর স্পন্সর ও প্রদর্শক এবং তাদের পণ্য সামগ্রীর তালিকা, প্রতিদিনের বিশেষ অফার, বিভিন্ন প্রতিযোগিতাসহ প্রদর্শনীর সব আয়োজন। যে কেউ এতে অংশ নিয়ে জিতে নিতে পারবেন ল্যাপটপসহ শতাধিক আকর্ষণীয় পুরস্কার। এজন্য দর্শনার্থীদের লগঅন করতে হবে প্রদর্শনীর ওয়েবসাইট www.bcsictworld.com.bd -এ। মেলা চলাকালে প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮টার মধ্যে।

মিট দ্য প্রেসে জানানো হয়, মেলায় দর্শনার্থীদের জন্য প্রতিদিনই টিকেটের ওপর র্যা ফেল ড্র’র আয়োজন থাকবে। এতে প্রতিদিনই নেটবুকসহ জনপ্রিয় ১০টি তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য পুরস্কার দেয়া হবে। র্যা ফল ড্র আর ওয়েব ফেয়ার ছাড়াও বিশেষায়িত প্রদর্শনী ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতাতেও পুরস্কার থাকছে জনপ্রিয় তথ্যপ্রযুক্তিপণ্য। আর প্রদর্শনী উপলক্ষে প্রদর্শক প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের পণ্য ও সেবা বিক্রিতে দেবে বিশেষ ছাড় ও উপহার। অনলাইনেও করা যাবে কেনাকাটা।

প্রদর্শনী প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলার প্রবেশমূল্য জনপ্রতি ২০ টাকা। তবে বিসিএসের অন্যান্য প্রদর্শনীর মতো এবারও স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র প্রদর্শন সাপেক্ষে বিনামূল্যে প্রদর্শনীতে প্রবেশ করতে পারবে। এছাড়া অনলাইনে নিবন্ধন করেও যে কেউ এ সুবিধা নিতে পারবেন। এজন্য তাকে অনলাইনে নিবন্ধন করে এর প্রিন্ট কপি সঙ্গে আনতে হবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল প্রদর্শনী আয়োজনে সহযোগিতা করছে। আর ব্যবস্থাপনায় রয়েছে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান মাত্রা।

– বিজ্ঞপ্তি থেকে তুহিন মাহমুদ

Related posts

*

*

Top