Maintance

ভিডিও গেইমে শিশুর বুদ্ধি বাড়ে

প্রকাশঃ ২:৪৮ অপরাহ্ন, আগস্ট ১০, ২০১৬ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:৪৮ অপরাহ্ন, আগস্ট ১০, ২০১৬

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অনেক মা-বাবা মনে করেন তাদের সন্তানরা ভিডিও গেইম খেলে বখে যাবেন। তাই সবসময় নজরদারি চলে যেনো কোনোভাবেই সন্তানরা ভিডিও গেইম খেলতে না পারেন।

সেসব মা-বাবারা এবার একটু হলেও সান্ত্বনা পাবেন যে ভিডিও গেইম শুধু শিশুদের বখে যেতে শেখায় না। বরং তাদের বুদ্ধি বাড়াতে ভিডিও গেইম খুবই ইতিবাচক কাজ করে থাকে।

বিজ্ঞানীদের গবেষণা সম্প্রতি এমনই ইঙ্গিত দিয়েছে। যেখানে মা-বাবাদের ভিডিও গেইম নিয়ে আশঙ্কাকে ভুল প্রমাণ করেছে।আন্তর্জাতিক যোগাযোগ জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় এমন ফলাফল তুলে ধরা হয়েছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের টিভি চ্যানেল এনবিসি নিউজ খবর প্রকাশ করেছে।

ভিডিও-গেইমম-খেলা-টেকশহর
গবেষণার ফলাফলে দেখা গেয়ে, যারা ভিডিও গেইম খেলে তারা যারা খেলে না তাদের চেয়ে বেশি মেধাবী হয়। কারণ এক্ষেত্রে বিজ্ঞান ও গণিতের মতো বেশ কিছু বিষয় সম্পর্কে ভালো জ্ঞান রাখতে হয় এবং জানতে হয় বলে বলেছেন গবেষকরা।

১৫ বছরের নিচে এমন ১২ হাজার অস্ট্রেলীয় শিশুর উপর করা ওই গবেষণার ফলাফলে এই মেধার মান নির্ধারণে একটি পয়েন্ট ধরা হয়। যেখানে দেখা গেছে সাধারণ যারা গেইম খেলে না এমন শিশুদের চেয়ে যারা ভিডিও গেইম খেলে এমন কি গেইমে আসক্ত তাদের পয়েন্ট অনেক বেশি। তারা গড়ে প্রায় ১৫ পয়েন্ট বেশি পেয়েছে বলে গবেষণায় বলা হয়েছে।

এছাড়াও যেসব শিশুরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসক্ত তারা গড় ওই ফলাফলের চেয়ে চার পয়েন্ট কম পেয়েছে।

মেলবোর্ন ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির অধ্যাপক ও গবেষক দলের অন্যতম সদস্য আলবার্তো পোসো জানান, গণিত ও বিজ্ঞানের প্রতি ঝোঁক আছে এমন শিশুরাই ভিডিও গেইমসে বেশি আসক্ত। আর গেইমের লেভেল পার করতে স্বাভাবিকভাবেই বিভিন্ন কিছু গণিত এ ধাঁধার মতো বিষয় সমাধান করতে হয়। এ সবকিছু তাদের মস্তিষ্কে খোরাক যোগায় বলে বলেন আলবার্তো।

ভিডিও গেইম খেলা এসব শিশুরা বাস্তব জীবনেও বেশকিছু জটিল বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে বলেও গবেষণার ফলাফলে বলেছেন বিজ্ঞানীরা।

*

*

Related posts/