স্মার্টফোনের মেমরি আসলে কত?

শাহরিয়ার হৃদয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : স্মার্টফোনের গুণের অভাব নেই। ক্যামেরা, অ্যাপস, গেইম- সবকিছুতেই সেরা অভিজ্ঞতা পাওয়া যায়। তবে সব ভালো জিনিষের কিছু খারাপ, বিরক্তিকর দিকও রয়েছে। তেমনি একটা ব্যাপার হলো এসব ফোনের মেমরি।

দেশি সিম্ফোনি থেকে শুরু করে স্যামসাং পর্যন্ত সব কোম্পানির ফোনে যতটুকু মেমরি আছে বলা হয়, বাস্তবে কিন্তু ততটুকু মেলে না। লিখিত মেমরির চেয়ে কম পান ব্যবহারকারীরা। অনেক ক্ষেত্রে সেটা এতটাই কম, বাড়তি মেমরি লাগানো আবশ্যক হয়ে পড়ে।

smartphone_memory_techshohor

১৬ জিবি বিল্ট ইন মেমরির বিভিন্ন ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনের মেমরি পরীক্ষা নিরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করে প্রযুক্তি বিষয়ক সাইট গিজমোডোর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আইফোন ৫সি ১৬ জিবিতে ইউজাররা ব্যবহার করতে পারেন মাত্র ১২.৬০ জিবি। এটাই সর্বোচ্চ। এরপর আছে যথাক্রমে গুগল নেক্সাস ৫, আইফোন ৫এস, সনি এক্সপেরিয়া জেড১ ও ব্ল্যাকবেরি জেড৩০।

১৬ জিবির এসব ফোনের ব্যবহারযোগ্য মেমরি যথাক্রমে ১২.২৮ জিবি, ১২.২০ জিবি, ১১.৪৩ জিবি ও ১১.২০ জিবি। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ফোরের মাত্র ৮.৫৬ জিবি, অর্থাৎ মূল মেমরির মাত্র অর্ধেকটা আপনি ব্যবহার করতে পারবেন!

যদিও কোম্পানিগুলো বলে থাকে যে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের কারণে এত মেমরি খরচ হয়; কিন্তু ইচ্ছা করলে তা কমানো সম্ভব বলে অনেক ব্যবহারকারী মনে করেন। এ জন্য তারা কোম্পানিগুলোকে সিস্টেম থেকে ব্লটওয়্যার রিমুভ করার পরামর্শ জানান।

– গিজমোডো অবলম্বনে

Related posts

*

*

Top