বইয়ের পরিবর্তে স্কুলে যাচ্ছে স্মার্ট ডিভাইস

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় ও সিম্ফনির যৌথ উদ্যোগে তৈরী হচ্ছে শিক্ষামূলক স্মার্ট ডিভাইস। এই ডিভাইসে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড বইয়ের মাল্টিমিডিয়া সংস্করণ থাকবে।

বুধবার এ প্রকল্প বিষয়ক এক সভায় এই ডিভাইস তৈরীর বিষয়টি চুড়ান্ত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নজরুল ইসলাম খান , সিম্ফনি মোবাইলের সেলস ডিরেক্টর রেজওয়ানুল হকসহ মন্ত্রণালয় ও সিম্ফনির উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

educational smart device

খুব শীঘ্রই দেশের স্কুলের শিক্ষার্থীরা কাঁধে বিশাল বইয়ের ব্যাগের পরিবর্তে ক্লাস রুমে প্রবেশ করবে বিশেষ ধরণের শিক্ষামূলক এ স্মার্ট ডিভাইস নিয়ে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো.নজরুল ইসলাম খান জানান, প্রচলিত কাগজের বইয়ের অনেক সীমাবদ্ধতা থেকে মুক্তি মিলবে এই শিক্ষামূলক ডিভাইস পেলে। ডিভাইসে বইয়ের ছবিগুলো অ্যানিমেটেড হওয়ায় এবং শব্দ সুবিধা থাকায় এটি শিক্ষা গ্রহণে ছাত্র-ছাত্রীদের আগ্রহ এবং আনন্দ বাড়িয়ে দেবে বহুগুন। এছাড়া শিক্ষা জীবনের শুরুতেই শিক্ষার্থীরা আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে আগ্রহী হয়ে উঠবে। ফলে উন্নত বিশ্বের সমানতালে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে খুব সহজেই অবদান রাখতে পারবে আমাদের নতুন প্রজন্ম।

আইসিটি সচিব আরও বলেন, শিক্ষকদের জন্যও বিশেষ ভাবে সহায়ক হবে এই ডিভাইসটি । ওয়াই-ফাই প্রযুক্তির কল্যাণে শিক্ষক তার ডিভাইসটি সংযুক্ত করতে পারবেন ক্লাসের শিক্ষার্থীদের ডিভাইসের সাথে এবং সকল শিক্ষার্থীদের বাড়ির কাজ বা ক্লাসের অনুশীলন পরীক্ষা করতে পারবেন নিজের ডিভাইস থেকে। এর ফলে একজন শিক্ষক অল্প সময়ে অধিক শিক্ষার্থীকে পাঠদান করাতে পারবেন এবং অপেক্ষাকৃত দুর্বল শিক্ষার্থীদের প্রতি বিশেষ নজর দিতে পারবেন। তাছাড়া প্রতিবছর পাঠ্য বই মুদ্রণে যে বিপুল অঙ্কের অর্থ ব্যয় হয় তাও সাশ্রয় হবে এই ডিভাইসের মাধ্যমে।

সিম্ফনি এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগের এই প্রকল্পটিতে কনটেন্ট অংশীদার হিসেবে থাকছে স্মার্ট স্টার্ট।

Related posts

*

*

Top