Maintance

বেসিসের নতুন লোগো উন্মোচন

প্রকাশঃ ৭:০১ অপরাহ্ন, জানুয়ারি ২০, ২০১৪ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৭:০১ অপরাহ্ন, জানুয়ারি ২০, ২০১৪

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : কর্মসংস্থান, ই-সার্ভিস ও এক্সপোর্ট এ তিন বিষয়কে মূল লক্ষ্য রেখে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস ) নতুন লোগো উম্মোচন করা হয়েছে।

সোমবার রাজধানীর কাওরান বাজারে বেসিস মিলনায়তনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক নতুন লোগো উম্মোচন করেন।

basis logo_techshohor

বেসিস নেতারা জানান, তথ্য প্রযুক্তি খাতকে আরও সমৃদ্ধ ও গতিশীল করার নতুন প্রত্যয় নিয়ে নতুন লোগো করা হয়েছে। এর মাধ্যমে তারা সংগঠনটির নবযাত্রা শুরু করতে চান।

১৯৯৭ সালে ১৭ জন সদস্য নিয়ে বেসিস যাত্রা শুরু করে। দেশের তথ্য প্রযুক্তি খাতের সামগ্রিক উন্নয়নে বেসিস প্রথম সারির একটি সংগঠন। বর্তমানে সাত শতাধিক সদস্য রয়েছে। এ সংগঠনের সদস্যদের মাধ্যমে ২০১২-১৩ অর্থবছরে রপ্তানি আয় হয়েছে ১০০ মিলিয়ন ডলার।

অধিকতর কর্মসংস্থান, উন্নততর তথ্য-প্রযুক্তির সেবা আর সর্বোচ্চ রপ্তানি এ তিনটিকে মূল লক্ষ্য করে তিনটি ভিন্ন রংয়ের ত্রিভুজের মাধ্যমে নতুন লোগোতে বেসিসের অগ্রযাত্রার প্রতিফলন ঘটানো হয়েছে। তিনটি সম্মুখগামী ত্রিভুজের মাধ্যমে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়েছে।

বেসিস সভাপতি শামীম আহসানের সভাপতিত্বে রোববার লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, আমরা ফলোয়ার থাকতে চাই না- রোল মডেল হতে চাই। আমাদের কৃষি, গার্মেন্টস ও রেমিট্যান্স শ্রম নির্ভর। আমরা এ ধারা থেকে বের হয়ে আসব। মেধা ও প্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ গড়ব।

পলক বলেন, আইসিটি মন্ত্রনালয় ও বেসিস একসাথে কাজ করলে তথ্যপ্রযুক্তি খাত আরও এগিয়ে যাবে।

তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে দেশকে সমৃদ্ধির দিকে নিয়ে যাওয়া বেসিসের নতুন লোগোর মূলমন্ত্র উল্লেখ করে বেসিস সভাপতি বলেন, সময়ের সাথে সাথে আইটি ও এই সেবা খাতের পরিবর্তনের সাথে তাল মেলাতে, সাধারণ মানুষের মাঝে বেসিসের দৃশ্যতা বাড়াতে এবং এ শিল্পের সাথে সঙ্গতিপূর্ণরেখে লোগো পরিবর্তন করা হয়েছে। তিনি বলেন, শুধু তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়ন নয়, আইটি পণ্য ও সেবা ব্যবহার করে জনগণের অর্থনৈতিক ও সামাজিক জীবনের পরিবর্তন করতে চাই।

শামীম আহসান বলেন, সফটওয়্যার খাতের রপ্তানি প্রবৃদ্ধি এখন দেশের শীর্ষ ১৫ টির একটি। বেসিস আগামী পাঁচ বছরের জন্য একটি রোডম্যাপ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। ২০১৮ সালের মধ্যে আমরা ১ মিলিয়ন আইটি প্রফেশনাল তৈরি করব এবং  এ খাত থেকে ১ বিলিয়ন ডলার রপ্তানি আয় করে জিডিপিতে ১% অবদান রাখবো।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বেসিস মহাসচিব রাসেল টি আহমেদ। অনুষ্ঠান সঞ্চলনা করেন বেসিস সচিব হাশিম আহমেদ। বেসিসের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য, সাবেক সভাপতি, বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যসহ আইসিটি খাতের বিশিষ্টজন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

– আল আমীন দেওয়ান

*

*

Related posts/