Maintance

স্বর্ণকেশী সুদর্শনা!

প্রকাশঃ ১০:১২ অপরাহ্ন, এপ্রিল ২, ২০১৬ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১১:০৩ অপরাহ্ন, এপ্রিল ২, ২০১৬

শামীম রাহমান, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ‘চোখ দুটো টানা টানা, ঠোঁট দুটো লাল/লজ্জায় রাঙা হয়ে থাকে তার গাল’ -জনপ্রিয় এই বাংলা গানে বর্ণিত মেয়েটিকে হয়তো অনেকেই খুঁজে ফিরেছেন। তবে গানের কথা কি বাস্তবে সব সময় মেলে!

হংকংয়ের রিকি মা এই বাংলা গানটি শুনেছেন কিনা -তা জানা নেই। তবে গানে বর্ণিত মেয়ের মতোই একটি রোবট তৈরি করেছেন এই প্রোডাক্ট ডিজাইনার ও প্রোগ্রামার।

রোবটটি তিনি বানিয়েছেন ছোটবেলার স্বপ্নের উপর দাঁড়িয়ে। অ্যানিমেশন সিনেমা দেখার পর আর পাঁচটা সাধারণ ছেলের মতো তিনিও কল্পনায় বিভিন্ন মানুষের ছবি আঁকতেন। সে সময় তার কল্পনায় একটি মেয়েও ছিল। যাকে ৪২ বছর বয়সে এসেও ভুলে যাননি রিকি।

mark

প্রায় ৫০ হাজার মার্কিন ডলার খরচ করে, দেড় বছর সময় ধরে তিনি এই রোবটটি বানিয়েছেন। এই মেয়ে রোবটটিকে তিনি মার্ক১ নামে ডাকেন। রোবটটি তিনি তৈরি করেছেন হলিউডের একজন অভিনেত্রীর আদলে। যদিও সেই অভিনেত্রীর নাম প্রকাশ করতে রাজি হননি তিনি।

মার্ক১ শুধু যে দেখতেই সুন্দর তা নয়। এটির সঙ্গে আপনি চাইলে কথাও বলতে পারবেন। করতে পারবেন তার রূপের প্রশংসা!

মার্ক১ বাহু ও পা অনেকটাই স্বাভাবিক মানুষের মতো নড়াচড়া করতে পারে। নড়াচড়া করাতে পারে মাথাও। এই স্বর্ণকেশীর টানা টানা চোখ নজর কাড়বে যে কারও। আরও মজার বিষয় আছে। রোবটটি চোখও মারতে পারে। মুখ দিয়ে করতে পারে বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গি।

mark

রোবটটিকে যদি বলা হয়, ‘তুমি খুব সুন্দর’ তাহলে সেটি চোখ মেরে, মুখ বাকিয়ে ন্যাচারালভাবে হেসে আপনাকে বলবে, ‘হে হে, ধন্যবাদ’।

মার্ক১ এর স্কিনে ব্যবহার করা হয়েছে সিলিকন। রোবটটি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে হালের থ্রিডি প্রিন্টার। এর প্রায় ৭০ শতাংশ তৈরি করা হয়েছে থ্রিডি প্রিন্টার প্রযুক্তিতে।

রোবটটি সম্পর্কে এর নির্মাতা রিকি মা বলেন, কোনো বাণিজ্যিক উদ্দেশে নয়, শুধুমাত্র নিজের শখের বশে রোবটটি তৈরি করেছি। এ রকম একটি রোবট তৈরি করার স্বপ্ন অনেক দিন থেকেই দেখতাম। আজ মোটামুটি আমি স্বপ্নের দ্বারপ্রান্তে।

mark

প্রযুক্তি বিশ্লেষকরা মনে করছেন, রিকির এই রোবটটির সঙ্গে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা যোগ করে কাজ শুরু করলে রোবট গবেষণায় হয়তো বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসবে। মার্ক১ এর সঙ্গে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা যোগ হবে কিনা –সেটা সময়ই বলে দেবে।

রয়টার্স অবলম্বনে

*

*

Related posts/