বৃহত্তম প্রদর্শনীতে অভিনব প্রযুক্তির সমাহার

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রথম থ্রিডি কলম, বাঁকানো স্ক্রিনের টিভি, সেন্সর বসানো ব্রেসলেট, চালকবিহীন গাড়ি। চমক জাগানো এমন আরও অনেক উদ্ভাবনের দেখা মিলবে একই ছাদের নিচে। বিচিত্র ও অভিনব সব প্রযুক্তি পণ্য নিয়ে সেজেছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ইলেকট্রনিক্স প্রদর্শনী (সিইএস)।

ইলেকট্রনিক্স থেকে শুরু করে প্রযুক্তি পণ্য ও গাড়ি প্রস্তুতকারক শীর্ষ কোম্পানিগুলো নিজেদের সেরাটা নিয়ে হাজির হয়েছে এ প্রর্দশনীতে।

যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে মঙ্গলবার থেকে শুরু এ মেলার চমক তৈরির ইতিহাস অনেক পুরনো। এবার সবগুলো কোম্পানি পিলে চমকানোর মতো নতুন পণ্য নিয়ে হাজির হবে বলে খবর প্রকাশ হতে শুরু করেছে গণমাধ্যমগুলোতে। নিত্য নতুন ফিচার সমৃদ্ধ প্রযুক্তি দেখতে মুখিয়েও রয়েছেন প্রযুক্তিপ্রেমীরা।

CES-2014_techshohor

৪৭তম বারের মতো আয়োজিত সপ্তাহব্যাপী এ প্রদর্শনী চলবে  ৪ দিন পর্যন্ত। মানুষের আগ্রহ বেড়ে যাওয়ায় এবার আগের বছরের চেয়ে মেলার পরিধিও বাড়ানো হয়েছে। এক লাখ ৪০ হাজার বর্গফুট জায়গায় এবার ২০ হাজারেরও বেশি নতুন প্রযুক্তি পণ্য প্রদর্শন করা হবে।

প্রতি বছর আয়োজিত প্রদর্শনীতে বছরের সেরাটা নিয়েই হাজির হয় কোম্পানিগুলো। এতে প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতারা সর্বাধুনিক প্রযুক্তির গাড়ি, স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, কম্পিউটার, ক্যামেরা, টেলিভিশনসহ বিভিন্ন পণ্য উন্মোচন করে।

ইতোমধ্যে খবর বেরিয়েছে সনি উন্মোচন করবে জেড ওয়ান এস স্মার্টফোন, স্যামসাং নতুন ট্যাব প্রো এবং নোট প্রো, গুগল আসবে চালকবিহীন গাড়ি নিয়ে।

এ প্রদর্শনী বিষয়ক খবরে ওয়াশিংটন পোস্ট এক প্রতিবদনে উল্লেখ করেছে, ১৭ শতাংশ মার্কিনীরা ব্যাক্তিগত গাড়ি ব্যবহার করে। ২০১৪ সাল নাগাদ তা ২০ ভাগে পৌঁছবে। তাই গাড়ি নির্মাতাদের বিশেষ দৃষ্টি থাকে এ আয়োজনকে ঘিরে। এবার বেরর্ড সংখ্যক মোটরগাড়ি প্রদর্শন করা হবে হবে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সিইিএস২০১৪-এর উদ্যোক্তারা।

এতে অংশ নেবে শীর্ষস্থানীয় গাড়ি প্রস্তুতকারক কোম্পানিগুলো। টয়োটা, অডি, বিএমডব্লিউ, ক্রাইসলার, ফোর্ড, জেনারেল মটরর্স, কিয়া, মাজদা ও মার্সেডিজ গাড়ি প্রদর্শন করা ছাড়াও কনফারেন্সে তাদের পণ্য সম্পর্কে তথ্য প্রকাশ করবে।
এ ছাড়া থাকছে অ্যাপল, স্যামসাং, ডেল, আসুস, এসার, সনিসহ আরও বিভিন্ন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান। প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের তৈরি সর্বশেষ প্রযুক্তি নিয়ে হাজির হয়েছে।

– বিবিসি ও ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল প্রতিবেদন থেকে তুসিন আহমেদ

Related posts

*

*

Top