অনলাইনে ‘গণমাধ্যম’ ঝড়

ইমদাদুল হক, অতিথি লেখক : সহনশীলতার জায়গায় ময়দান আজ তপ্ত প্রতিক্রিয়াশীলতায়। সেই আঁচ থেকে বাদ যায়নি দেশের পেশাজীবী সমাজও। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই বাতিঘর হয়ে দাড়িয়ে গেলেন একজন সংবাদ কর্মী। রোববার নগরীতে ঘটমান সহিংসতা আড়ালে মূলধারা গণমাধ্যমের পাতায় জায়গা না পেলেও দেশের ভার্চুয়াল জগতে ‘হিরো অব দ্য ডে’ হলেন তিনি।

সোমবার তার ছবির স্ট্যাটাস, শেয়ার আর লাইক নিয়ে আলোচনা আর স্তুতির বন্যা বয়ে গেছে অনলাইন যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক। দল-মত নির্বিশেষে সাধুবাদ পেয়েছেন ইংরেজি দৈনিক ‘দ্য নিউ এজ’ পত্রিকায় কর্মরত সাংবাদিক সানাউল হক। আর তার নাম উচ্চারিত হবার সাথে সাথে ভাব-মর্যাদা উজ্জ্বল হয়েছে গণমাধ্যমের। কেননা একমাত্র এই গণমাধ্যম কর্মীই দায়িত্ব পালনের সময় নিজেকে ঝুঁকির মধ্যে রেখে আগলে রাখতে চেষ্টা করেছেন একজন নারী আইনজীবীকে, সরকার দলীয় দুর্বৃত্ত কর্মীদের বেধড়ক পিটুনি থেকে। ছবিটি তুলেছেন অপর ইংরেজি দৈনিক ঢাকা ট্রিবিউন এর সহকর্মী মাহমুদ হোসাইন অপু।

Sanaul_TechShohor

এই ছবিটি ছাপিয়ে গেছে বিরোধী দল সমর্থক মহিলা আইনজীবীকে পেটানোর সহিংসতার একাধিক ছবিকে। একই ভাবে ফেইসবুকে বেশ আলোচনা হয়েছে রোববার বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া’র সংবাদ পরিবেশনে ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমকর্মীদের মুন্সিয়ানার। মই বেয়ে বেগম জিয়ার বাসায় প্রবেশ করে তার বক্তব্য সংগ্রহের খবরে।

গণমাধ্যম এবং গণমাধ্যম কর্মীদের নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য ছাড়াও বর্তমান সময়ে ঢালাও ভাবে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ, আবার কখনও আক্রমণাত্মক কথামালা আর তীর্যক সমালোচনা ছাপিয়ে দেশের গণমাধ্যম এবং এককর্মীর প্রশংসায় সরব হয়েছে অনলাইন যোগাযোগ মাধ্যম।

অবশ্য এসব কিছুর ফাঁকে অনলাইনে বেশ চমক দেখিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সজীব ওয়াজেদ জয়ের ব্যাডমিন্টন খেলার ছবি। সমান তালে নানা পর্যালোচনা হচ্ছে বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার ‘বাড়ি কই গোপালি’ বক্তব্য নিয়ে।

*

*

Top