এবার সরকারিভাবে নারীদের বিনামুল্যে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে প্রথমবারের মত বিনামূল্যে ২৫০ জন নারীকে ফ্রিল্যান্সিংয়ে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। তাদেরকে গ্রাফিক্স এবং ওয়েব ডিজাইনের চার মাসের বিনামুল্যের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। শনিবার রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় যাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে ‘নারীদের অগ্রযাত্রায় ফ্রিল্যান্সিং’ শীর্ষক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রাথমিকভাবে ১০০ জন নারীর হাতে এ সম্পর্কিত কাগজ তুলে দেওয়া হয়। অবশিষ্ঠ দেড়’শ জন নারীকে সরকারিভাবি এ প্রকল্পের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম খান।

প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ক্রিয়েটিভ আইটির আয়োজনে উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথোরিটির প্রজেক্ট ডিরেক্টর এএনএম সফিকুল ইসলাম, ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ইল্যান্সের বাংলাদেশ কান্ট্রি ম্যানেজার সাইদুর মামুন খান, ক্রিয়েটিভ আইটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মনির হোসেন, প্রজেক্ট ম্যানেজার মো. ইকরাম, দেশের শীর্ষ নারী ফ্রিল্যান্সার ইমরাজিনা খান প্রমুখ।

Freelancing Scholarship 2-TechShohor

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি নজরুল ইসলাম খান বলেন, “বাংলাদেশে অর্থনৈতিক উন্নয়নে নারীদের ভূমিকা অসামান্য। এখন ফ্রিল্যান্সিংয়ে নারীরা অনেক ভালো করছে। আর আজকের এই আয়োজনে ১০০জন নারীকে যে সুযোগ দেওয়া হল তা দেশের প্রযুক্তি জগতে নারীদের অন্যরকম একটি অর্জনের মাইলফলক হয়ে থাকবে। ৩ দফায় পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া প্রথম ১০০ জনের পর অবশিষ্ট ১৫০ জনকে সরকারি খরচে এই সুযোগ দেয়া হবে”।

প্রধান অতিথি আরও বলেন, “আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে ফ্রিল্যান্সিংয়ে নারীরা ৬৬% অংশগ্রহণ করলেও বাংলাদেশে এই পরিমাণ মাত্র ৬%। আগামীতে ঢাকায় ৪৫ হাজার মানুষকে সরকারি উদ্যোগে ফ্রিল্যান্সিং শিখানো হবে”। তবে ঢাকার বাইরে এই আয়োজন বেশি গুরুত্ব দিয়ে করা হবে বলে তিনি জানান।

অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মনির হোসেন বলেন, “আমরা ১০০ জন নারীকে বিনামূল্যে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এবং গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখানোর উদ্যোগ নিলেও শেষ পর্যন্ত আরও ১৫০ জন নারীকে এই সুযোগ দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছি। আগামীতে আমাদের এই ধারা অব্যাহত থাকবে।”

Freelancing Scholarship-TechShohor

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এ স্কলারশীপের আওতায় বাছাইকৃত ২৫০ জন নারীকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে গ্রাফিক্স ও ওয়েব ডিজাইনের উপর ৪ মাসের প্রশিক্ষণ এবং সবশেষে তাদের জন্য কর্মসংস্থানের (অনলাইনে এবং স্থানীয়ভাবে) ব্যবস্থা করা হবে।

আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে প্রথম ১০০ জনের প্রকল্প শুরু হবে এবং বাকি ১৫০ জনের প্রকল্প পর্যায়ক্রমে শুরু হবে বলে প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে। অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করেছে কমজগৎ।

– বিজ্ঞপ্তি থেকে তুহিন মাহমুদ

Related posts

*

*

Top