Maintance

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে দৈনিক লেনদেন ১৮৫ কোটি টাকা

প্রকাশঃ ১০:১৩ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ২২, ২০১৩ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১০:১৩ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ২২, ২০১৩

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মোবাইল ব্যাংকিংয়ের প্রতি গ্রাহকদের আগ্রহ দিন দিন বাড়ছে। আর্থিক লেনদেনের জন্য অনেকেই এ সেবাকে বেছে নিচ্ছেন। এতে দৈনিক লেনদেনের পরিমাণও বাড়ছে। নভে্ম্বর মাসে দৈনিক গড়ে ১৮৫ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। অক্টোবরে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ১৭০ কোটি টাকা।

সাম্প্রতিক সময়ে জনপ্রিয় হয়ে ওঠা মোবাইল ব্যাংকিংয়ে নভেম্বর শেষে মোট গ্রাহক দাঁড়িয়েছে  এক কোটি ১৫ লাখ ৪৫ হাজার। অক্টোবরে এক কোটির মাইল ফলক ছাড়িয়ে যায়। এর আগে এপ্রিল শেষে গ্রাহক ছিল ৫০ লাখ।

mobile banking_techshohor

গ্রাহকের বিপরীতে গ্রাহকের সংখ্যাও বাড়ছে। নভেম্বরে নিবন্ধিত এজেন্টের সংখ্যা বেড়ে এক লাখ ৭২ হাজারে দাঁড়িয়েছে।

সব ধরনের মানুষের কাছে সেবাটি সহজ হওয়ায় দ্রুত গ্রাহকের সংখ্যা বাড়ছে। মোবাইল ব্যাংকিং লেনদেনের বড় অংশই ক্যাশ ইন তথা অন্যের অ্যাকাউন্ট থেকে আরেক অ্যাকাউন্টে টাকা জমা বা উত্তোলন করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, নভেম্বরে মোট লেনদেনের মধ্যে ক্যাশ ইন হয়েছে দুই হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা।

শুরুর পর থেকে মোবাইল ব্যবহার করে ইউটিলিটি বিল পরিশোধের হার বেড়েছে ৫২ দশমিক ৩৮ শতাংশ এবং ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি পর্যায়ে লেনদেন বেড়েছে ২১ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ।

ব্যাংকাররা জানান, প্রবাসীদের অর্থ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাসরত উপকারভোগীর কাছে দ্রুত পৌঁছে দিতে ২০১০ সালে মোবাইল ব্যাংকিং চালু করে বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে এখন আর তা শুধু এ সেবার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। এর মাধ্যমে অর্থ পাঠানো, জমা ও উত্তোলন, বেতন ভাতা পরিশোধ, ইউটিলিটি বিল পরিশোধ, ব্যবসায়িক পরিশোধসহ অনেক ধরনের আর্থিক সেবা পরিচালিত হচ্ছে। এসব কারণে স্বল্প সময়ে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এ কার্যক্রম।

– আমিন রানা

*

*