এবার খাদ্য ও দুর্যোগ নিয়ে অ্যাপস

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : খাদ্য ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত তথ্য পৌঁছে দিতে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন (অ্যাপস) তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রণালয়। এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার রাজধানীর হাউজ বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন ভবনে আইসিটি মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রনালয় এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ‘জাতীয় পর্যায়ে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন উন্নয়ন ও দক্ষতাবৃদ্ধি কর্মসূচী’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন আইসিটি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কামাল উদ্দিন আহমেদ। এতে দেশের দুর্যোগ ও খাদ্য সংক্রান্ত তথ্য মানুষের কাছে সহজে পৌঁছে দিতে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন নির্মাণের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরা হয়। কর্মশালায় খাদ্য মন্ত্রনালয় এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বিভিন্ন সংস্থার চল্লিশ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহন করেন। তারা বিভিন্ন বিষয়ে অ্যাপ্লিকেশন নির্মাণের ধারণা উপস্থাপন করেন। এরমধ্যে নদীর পানি প্রবাহ সংক্রান্ত তথ্য, বেসরকারি খাদ্য মজুদ তথ্য, দুর্যোগ তথ্য, ওএমএস উইন্ডো, ইউনিয়ন পর্যায়ের খাল-বিলের তথ্য নিয়ে অ্যাপ্লিকেশন নির্মাণের ধারণা উপস্থাপন করা হয়।

Apps Development-TechShohor

কর্মশালায় আইসিটি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, “আমাদের দেশ দুর্যোগ প্রবণ। প্রায়ই এই দুর্যোগ আমাদের খাদ্য নিরপত্তা ব্যবস্থাকে ঝুঁকির মুখে ফেলে দেয়। তাই আমরা যদি সহজে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে দেশের মানুষদের আগাম দুর্যোগের তথ্য দিতে পারি তবে দুর্যোগ মোকাবেলা সম্ভব হবে। অন্যদিকে দুর্যোগ মোকাবেলার প্রস্তুতি নিলে খাদ্য নিরাপত্তাও নিশ্চিত করা যাবে”।

কর্মশালায় আইডিয়া শোনা ও গ্রুপওয়ার্ক ডিস্ট্রিবিউশন করেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব ও কর্মসূচী উপ-পরিচালক মিয়া মোহাম্মাদ কেয়াম উদ্দিন। উপস্থিত ছিলেন খাদ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. মাইনুল হক, এথিকস এডভান্স টেকনোলোজি লিমিটেডের সিটিও ড. রাজেশ পালিত প্রমুখ।

এদিকে সর্বসাধারণের কাছ থেকে অ্যাপ্লিকেশন নির্মাণের ধারণা নিতে একটি ওয়েব সাইট খোলা হয়েছে। উল্লেখ্য, এই আয়োজনের সহযোগিতায় রয়েছে এথিকস এডভান্স টেকনোলোজি লিমিটেড (ইএটিএল)।

Related posts

*

*

Top