Maintance

টপ ১০০ কোয়ালিফায়ার্সে সেরা বিক্রয় ডটকম ও ট্র্যাক মাই ভেহিক্যাল

প্রকাশঃ ১:৪৯ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১৯, ২০১৫ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১:৫৯ অপরাহ্ন, এপ্রিল ১৯, ২০১৫

ফখরুদ্দিন মেহেদী, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের সেরা স্টার্টআপ নির্বাচনে অন্যদের পেছনে ফেলে শীর্ষস্থান দখল করেছে বিক্রয় ডটকম ও ট্র্যাক মাই ভেহিক্যাল। বিচারকদের রায়ে সেরা হয়েছে অনলাইন মার্কেটপ্লেসটি। আর অনলাইন ভোটে সকলের পছন্দের শীর্ষে জায়গা পেয়েছে গাড়ি ট্র্যাক করার সেবা নিয়ে কাজ করা অপর প্রতিষ্ঠানটি।

‘টপ ১০০ কোয়ালিফায়ার্স’ নামের এ প্রতিযোগিতায় সেরা হওয়া এ দুটি প্রতিষ্ঠান বিশ্বের অন্যতম স্টার্টআপ সম্মেলন ‘ইসিহেলন এশিয়া সামিট ২০১৫’-তে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে।

নির্বাচিত স্টার্টআপ দুটি সিঙ্গাপুরে আগামী জুনে শুরু হতে যাওয়া সম্মেলনে নিজেদের সম্ভাবনা তুলে ধরার মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের বিনিয়োগকারীদের আকর্ষণ করার সুযোগ পাবে।

start up

জুনের ২৩ ও ২৪ তারিখ ইসিহেলন এশিয়া সামিটে এশিয়ার ১৪ দেশের ১০০ প্রযুক্তি স্টার্টআপ যোগ দেবে।২০১০ সাল থেকে এ সম্মেলনের আয়োজন করে আসছে উদ্ভাবনী ব্যবসায় উৎসাহদানকারী এশিয়ার প্রতিষ্ঠান ই২৭।

বাংলাদেশের স্টার্টআপগুলোকে এ সম্মেলনে যোগ দেওয়ার সুযোগ দিতে রাজধানীর বনানীর নিউজক্রেডে ‘টপ ১০০ কোয়ালিফায়ার্স’ নামের এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে দেশীয় স্টার্টআপ কাকতাড়ুয়া, ট্র্যাক মাই ভেহিক্যাল, হাউ আই ওয়ার্ক, গোবিডি, ব্যাংগো, বুকমার্ক, বিক্রয় ডটকম এবং লুডু ফ্রেন্ডসের কর্মকর্তারা নিজেদের প্রতিষ্ঠানের সম্ভাবনা নিয়ে উপস্থাপনা তুলে ধরেন।

চার বিচারকদের রায়ে নির্বাচিত হয় বিক্রয় ডটকম। তবে নতুন কোনো স্টার্টআপকে সুযোগ দিতে আয় ও খ্যাতির দিক থেকে ভালো অবস্থানে থাকা প্রতিষ্ঠানটি সম্মেলনে নিজেদের ব্যয়ে যোগ দেবে।

বিক্রয় ডটকমের এ ঘোষণায় সম্মেলনে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে আরেকটি স্টার্টআপ। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে বিচারকদের রায়ের ভিত্তিতে সেটির নাম জানানো হবে।

অন্যদিকে ‘টপ ১০০ কোয়ালিফায়ার্সে’ দর্শকদের অনলাইন ভোটে ট্র্যাক মাই ভেহিক্যাল নির্বাচিত হয়। ইসিহেলন এশিয়া সামিট ২০১৫- এর প্রজেক্ট ডিরেক্টর ব্রেইন কোহ জানিয়েছেন,  বিচারকদের রায়ে প্রতিষ্ঠানটি নির্বাচিত না হওয়ায় সামিটে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ পেলেও আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতা পাবে না তারা।

অনুষ্ঠানের বিচারক প্যানেলে উপস্থিত ছিলেন কুয়েন্ট ভেঞ্চার পার্টনার্সের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী হেদেকি ফুজিতা, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক সামাম মিরলী, ফরচুনার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এম ফায়েজ তাহের এবং এসডি এশিয়ার প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মোস্তাফিজুর খান।

এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে স্টার্টআপদের এগিয়ে যেতে বিভিন্ন পরামর্শ দেন ফাউন্ডার ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের সহ-পরিচালক মিনহাজ আনোয়ার এবং লাইফক্যাসল পার্টনার্সের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী বিজন ইসলাম।

অনুষ্ঠানে হেদেকি ফুজিতা বলেন, স্থানীয় পর্যায়ে স্টার্টআপকে এমনভাবে জনপ্রিয় করা উচিত যাতে আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারীরা সহজে আকৃষ্ট হন। এ জন্য স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠাতাদের কঠোর পরিশ্রম জরুরি।

বিশ্বের ৮ থেকে ৯ শতাংশ উদ্যোগ প্রতিষ্ঠা পায় বলে জানান এম ফায়েজ তাহের। দেশের উদ্যোক্তাদের নিজেদের স্টার্টআপকে সফল করতে প্রতিষ্ঠিত উদ্যোগগুলোকে অনুসরণের পরামর্শ দেন তিনি।

*

*

Related posts/