জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের সম্ভাবনা

তুহিন মাহমুদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভারতে পুনেতে শুরু হয়েছে ‘আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড-আইজেএসও’। ৩ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই আয়োজন চলবে আগামী ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এতে পর্যবেক্ষক হিসেবে অংশ নিয়েছে বাংলাদেশের দুই সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। অনুষ্ঠানে ‘আইজেএসও’ এর পূর্ণাঙ্গ সদস্যপদের জন্য আবেদন করা হবে। এটি অনুমোদন হলেই আগামী বছর থেকে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা আইজেএসও’তে অংশগ্রহণ করতে পারবে।

এফএসআইবিএল-বিএফএফ চিলড্রেন সায়েন্স কংগ্রেসের কনভেনর মুনির হাসান জানান, “আইজেএসও এর সহযোগি সদস্য হিসেবে পুনেতে অনুষ্ঠিত এই অলিম্পিয়াডে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। এই প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বুয়েটের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক ও বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. ফারসিম মান্নান। দলের অন্য সদস্য হলেন আহসানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির ফারহানা মান্নান। এই প্রতিনিধি দল অলিম্পিয়াডে আইজেএসও এর পূর্ণাঙ্গ সদস্যপদের আবেদন করবেন। আমরা আশা করছি এটি সানন্দে গ্রহণ ও অনুমোদন করবে সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ”।

IJSO-TechShohor

দেশে সফলভাবে এফএসআইবিএল-বিএফএফ চিলড্রেন সায়েন্স কংগ্রেস ২০১৩ আয়োজনে পর আইজেএসও এর বাংলাদেশ সহযোগি সদস্যের আবেদন করে। তাতে সাড়া দেয় কর্তৃপক্ষ। এরই ধারাবাহিকতায় পূর্ণাঙ্গ সদস্যপদের আবেদন করা হচ্ছে।

আগামী বছরে সদস্য দেশ হিসেবে অংশগ্রহণের প্রত্যাশা নিয়ে ইতিমধ্যেই কার্যক্রম হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি। এসব কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে- বছর জুড়ে বিজ্ঞানের জন্য প্রচারণা, স্কুলে স্কুলে অ্যাক্টিভেশন ও বিজ্ঞান মেলা, গুগল ও ইন্টেল বিজ্ঞান মেলার প্রস্তুতির জন্য কর্মশালা, বিজ্ঞানকর্মী এবং বিজ্ঞান লেখকদের জন্য কর্মশালা, আঞ্চলিক ও জাতীয় বিজ্ঞান ক্যাম্প, কংগ্রেস, আইজেএসওতে অংশ নেওয়া ইত্যাদি।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড হলো বিশ্বের অন্যতম একাডেমিক প্রতিযোগিতা। প্রতিবছর আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন ও জীববিজ্ঞানের উপর প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

Related posts

*

*

Top